sristymultimedia.com

ঢাকা, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


“শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন না"

০৫:১৫পিএম, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, শেখ হাসিনার অধীনে কোনো জাতীয় নির্বাচন হতে পারে না, হতে দেয়া হবে না। আগামী জাতীয় নির্বাচন নির্দলীয় সহায়ক সরকারের অধীনে হতে হবে।

বুধবার দুপুরে বরিশাল নগরীর টাউন হলে মহানগর বিএনপির কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ২০১৪ সাল ও ২০১৮ সাল এক নয়। মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে নির্বাচনে অযোগ্য করার চেষ্টা করা হলে নির্বাচন করতে দেয়া হবে না।

তিনি আরও বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেছিলেন- এটা নিয়ম রক্ষার নির্বাচন। তিনি তখন দেশবাসী এবং বিদেশি বন্ধু রাষ্ট্রগুলোকে সব দলের অংশগ্রহণে শিগগিরই একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে কথা রাখেননি শেখ হাসিনা। তিনি দেশের মানুষ এবং বিদেশী বন্ধুদের ধোকা দিয়েছেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, শেখ হাসিনা একজন ক্ষমতালোভী। তার অধীনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড সম্ভব নয়। তাই জনগণের ভোটাধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠার জন্য সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন সময়ের জন্য সেনাবাহিনীকে বিশেষ ক্ষমতা দিয়ে মাঠে নামাতে হবে। তা না হলে নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমানের জনপ্রিয়তাকে আওয়ামী লীগ ভয় পায় বলেই মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের হয়রানি করছে। শেখ হাসিনা ৩ কোটি টাকা ঘুষ নিয়েছিলেন সেই মামলা সরকার প্রত্যাহার করে নিয়েছে। আর বিএনপি নেত্রীকে সপ্তাহে তিন দিন আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে। যা কোনো আমল এমনকি পাকিস্তান আমলেও হয়নি।

এ সময় গুম, খুন আর মামলা করে বিএনপিকে দাবিয়ে রাখা যাবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন বিএনপির এই নেতা। বিএনপি আগামী বরিশাল সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে এবং জনপ্রিয়তার ভিত্তিতেই দলীয় মেয়র প্রার্থী মনোনয়ন দেবে বলে জানান খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

কর্মী সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট বিলকিস জাহান শিরিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হক নান্নু, সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়েদুল হক চাঁন, উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি মেজবাউদ্দিন ফরহাদ, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম শাহিন, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার জিয়া প্রমুখ।


বিজনেস আওয়ার / অ.মা

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

শঙ্কায় ছাত্র-ছাত্রীরা, এলাকাবাসীর ক্ষোভ
ফসলি জমির মাটি ইটভাটায় বিক্রি

তিন বিভাগে পেট্রলপাম্প ধর্মঘট
তেল বিক্রি বন্ধ, অচল হয়ে যেতে পারে সড়কপথ

উপরে