ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৫ বৈশাখ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » ধর্ম » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

যারা তাহাজ্জুদ না পড়েও সওয়াব পাবেন

আপডেট : 2018-09-15 16:32:28
যারা তাহাজ্জুদ না পড়েও সওয়াব পাবেন

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: আল্লাহর রহমত কিভাবে দন, সেটা আমরা ভাবতেও পারিনা। আল্লাহর তৈরি মানুষ আমরা, আমাদের জন্য তার নেয়ামত অসীম। আল্লাহকে সব থেকে বেশি পাওয়া যাবে রাতে। গভীর রাতে আল্লাহকে ডাকলে তিনি সাড়া দেন বেশি,। আর এজন্য গভীর রাতের নফল নামাজ অনেক বেশি মূল্যবান।

রাতের নফল নামাজের মধ্যে তাহাজ্জুদ নামাজও একটি। অনেকেই আছে, যারা নিয়মিত নামাজ তাহাজ্জুদ নামাজ আদায় করেন,কিন্তু যদি কখনও তার নামাজটা পড়তে ভুল হয়ে যায়, তবুও তিনি পাবেন সেই নামাজের সওয়াব।

হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি রাতে কিছু (নফল) নামাজ আদায়ে অভ্যস্ত হয়। আর যদি কোনো রাতে তার ঘুম প্রবল হয়ে যায় এবং সালাত আদায় করতে না পারে তবে সে ব্যক্তির ঘুম তার জন্য আল্লাহ্‌র তরফ থেকে সাদকা স্বরূপ হবে এবং আল্লাহ্‌ তার জন্য নামাজের সওয়াব লিখে দেবেন।’ (নাসাঈ)

হজরত আবু দারদা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, ‘যে ব্যক্তি তাহাজ্জুদের নামাজ আদায় করার নিয়তে বিছানায় আসে (ঘুম যায়) কিন্তু দু’চোখে ঘুম প্রবল হয়। আর ভোর পর্যন্ত সে ঘুমিয়ে থাকে, তার জন্য তার নিয়ত অনুসারে সওয়াব লেখা হবে। আর আল্লাহ তাআলঅর পক্ষ থেকে ঘুম তার জন্য সদকা স্বরূপ হয়ে যাবে।’ (নাসাঈ)

উল্লেখিত হাদিসের আলোকে বুঝা যায়, যারা নিয়মিত তাহাজ্জুদ পড়েন। তারা যদি কোনো রাতে তাহাজ্জুদ বা নফল আদায় করতে না পারেন তবে আল্লাহ তাআলা ওই বান্দাকে তাহাজ্জুদের সাওয়াব দান করবেন আর তার ঘুম হয়ে যাবে তার জন্য সাদকা।

আবার যারা তাহাজ্জুদ নামাজে অভ্যস্ত তারা যদি ঘুম বা অসুস্থতার কারণে রাতের বেলায় তাহাজ্জুদ পড়তে না পারেন তবে দিনের যে কোনো সময়েও তা আদায় করে নিতে পারেন। এ প্রসঙ্গে হাদিসে এসেছে-

উম্মুল মুমিনিন হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন ঘুম বা অসুখ-বিসুখ কিংবা ব্যথা-বেদনার কারণে রাতে তাহাজ্জুদের নামাজ আদায় করতে না পারতেন, তখন তিনি দিনের বেলা ১২ রাকআত নামাজ আদায় করে নিতেন।’ (নাসাঈ)

সুতরাং একান্তই যারা রাতে নফল কিংবা তাহাজ্জুদ পড়তে অপারগ হয়ে যান; তারা দিনের বেলায় তা আদায় করে নিতে পারেন।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে নিয়মিত তাহাজ্জুদ নামাজসহ নফল নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। নফল নামাজ আদায়ের মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

বিজনেস আওয়ার/১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮/এমএএস

পাঠকের মতামত: