ঢাকা, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৮ চৈত্র ১৪২৫
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » জবস্ কর্নার » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

৫ লাখ জনশক্তি নেওয়া হবে জাপানে

আপডেট : 2018-12-16 22:30:22
৫ লাখ জনশক্তি নেওয়া হবে জাপানে

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : জাপানকে অর্থনীতির দেশ বলা হয়। এটি পূর্ব এশিয়ার একটি অর্থনৈতিক সমৃদ্ধ দেশ। দেশটির রাজধানী টোকিও। এর দাফতরিক ভাষা জাপানিজ। আয়তন প্রায় ৩ লাখ ৭৭ হাজার বর্গ কিলোমিটার। এখানে প্রায় ১২ কোটি ৬৪ লাখের মতো মানুষ বসবাস করে। দেশটিতে মাথাপিছু আয় প্রায় ৪০ হাজারের মতো।

জাপান এশিয়া মহাদেশের পঞ্চম ধনী দেশ। বিশ্ব অর্থনীতিতে জাপানের যথেষ্ট অবদান রয়েছে। এজন্য জাপানকে জি-২০ (গ্রুপ অব টোয়েন্টি) নেশন বলা হয়। জাপানের জিডিপি প্রায় ৫.০৭০ ট্রিলিয়ন ডলার। জাপানের নিজস্ব ৬৫ মিলিয়ন কর্মী আছে।

২০০৮ সালের তথ্যমতে, জাপানে প্রায় ৪ লাখ ৭৮ হাজার ৯৫৩ জনের মতো বিদেশি কাজ করতো। যাদের অধিকাংশ চীনের অধিবাসী (২,১৫,১৫৫ জন), ফিলিপিনো (১,১৫,৮৫৭ জন), কোরিয়ান (৬৫,৭১১ জন), থাই, ভিয়েতনাম ও তাইওয়ান (৪৭,৯৫৬ জন) এবং অন্যান্য এশিয়ার বিভিন্ন দেশের (৩৪,২৭৪ জন) অধিবাসী। তবে বর্তমানে জাপানে ১.৩ মিলিয়নের মতো বিদেশি চাকরি করছেন। চীন হলো জাপানের সবচেয়ে বড় কর্মী সরবরাহকারী দেশ।

দ্য ইকোনোমিস্ট জাপানের তথ্যমতে, জাপান সরকার আগামী ৭ বছরে অর্থাৎ ২০২৫ সালের মধ্যে ৫ লাখ জনশিক্ত নিয়োগ করবে। প্রতি বছর প্রায় ৭১,৪৩০ জন কর্মী নিয়োগ পাবে। কৃষি, কনস্ট্রাকশন, হোটেল, নার্সিং ও শিপ বিল্ডিং খাতে এই কর্মী নিয়োগ করা হবে।

জাপানে এই জনশক্তি দেশের বাইরে থেকে নেয়ার প্রধান কারণ হলো- তাদের জন্ম হ্রাস ও বয়স্ক মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি। ধারণা করা হচ্ছে যে, ২০৩০ সাল নাগাদ ৭.৯ মিলিয়ন মানুষ (কর্মী) কমে যাবে। এর পদক্ষেপ হিসেবেই জাপানিজ সরকার প্রতি বছর ২ লাখ অভিবাসীকে স্বাগত জানাবে।

২০১৯ সালেই নতুন ভিসা ক্যাটাগরি ঘোষণার মাধ্যমে আগামী জুলাই মাসেই কর্মী নিয়োগ শুরু হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। একজন কর্মী লো স্কিলড ক্যাটাগরিতে সর্বোচ্চ ৫ বছর চাকরি করতে পারবেন। আর লো স্কিলড কাজের জন্য অবশ্যই আপানাকে ভাষা জানতে হবে। তবে হাই স্কিলড চাকরিতে জাপানিজ ভাষা জানার প্রয়োজন পড়বে না, কিন্তু হাই স্কিলড চাকরি দেওয়ার জন্য খুব অল্পসংখ্যক কোম্পানি আছে।

জাপানে পড়াশোনা বা চাকরির জন্য আবেদন করতে চাইলে অবশ্যই জাপানিজ ল্যাঙ্গুয়েজ প্রফিসিয়েন্সি সার্টিফিকেট থাকতে হবে। তাই ঝটপট জাপানিজ ভাষা শিখে নিজেকে প্রস্তুত করে ফেলুন। আর দ্রুত পড়াশোনা বা চাকরির জন্য আবেদন করুন। কোর্সটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব মডার্ন ল্যাঙ্গুয়েজ ডিপার্টমেন্ট বা জুয়াব (জাপানিজ ইউনিভার্সিটি অ্যালমনাই অ্যাসোসিয়েশন ইন বাংলাদেশ) থেকেও শিখতে পারেন।

বিজনেস আওয়ার/১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮/আরএইচ

পাঠকের মতামত: