ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ৭ চৈত্র ১৪২৫
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » অর্থনীতি » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

১৭ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে গার্মেন্টস অ্যাকসেসরিজ ও প্যাকেজিং পণ্যমেলা

আপডেট : 2019-01-10 17:28:40
১৭ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে গার্মেন্টস অ্যাকসেসরিজ ও প্যাকেজিং পণ্যমেলা

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : রাজধানীতে গার্মেন্টস অ্যাকসেসরিজ ও প্যাকেজিং পণ্যমেলা শুরু হতে যাচ্ছে ১৭ জানুয়ারি। পোশাক খাতে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম বা গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং পন্য পোশাক প্রস্তুতকারকদের কাছে তুলে ধরতে এ মেলার আয়োজন করা হয়। এবার দশমবারের মত শুরু হচ্ছে এ মেলাটি।রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় আয়োজিত এ মেলা চার দিনব্যাপী চলবে।

এবারের আয়োজনে ২০টি দেশের ২৭০টিরও বেশি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে। অংশগ্রহণকারী দেশগুলো হলো- বাংলাদেশসহ ভারত, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, মালায়েশিয়া, ইন্দোনিশেয়া, সিঙ্গাপুর, জার্মানি, ও ইতালি। এতে দেশী-বিদেশী রিসোর্স পারসনরা তাদের মূল্যবান প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন।

গার্মেন্টক ও গ্যাপেক্সপো প্রদর্শনীতে পোশাক খাতের সরঞ্জাম ও মোড়কীকরণ সামগ্রী তৈরির যন্ত্র, সেলাই মেশিন, এমব্রয়ডারি, ডাইং, প্রিন্টিং কাটিং, ক্যাড-ক্যাম, স্প্রেডিং যন্ত্র প্রদর্শন করবে প্রতিষ্ঠানগুলো।

বিজিএপিএমইএর সভাপতি আব্দুল কাদের খান বলেন, প্রতিবছরের ন্যায় এবারের আয়োজনে সর্বশেষ প্রযুক্তিতে উৎপাদিত পণ্যসমূহ প্রদর্শন করা হবে। পণ্যের পাশাপাশি আধুনিক মেশিন ও যন্ত্রপাতি প্রদর্শন করা হবে। এর মাধ্যমে এ খাতের ব্যবসায়রা সর্বশেষ প্রযুক্তি সম্পর্কে ধারনা নিতে পারবে। এ প্রদর্শনীর মাধ্যমে পণ্য প্রস্তুতকারক ও ক্রেতাদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি হবে, যা এ শিল্পকে নতুন মাত্রা দিবে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে আমরা দেশীয় চাহিদার প্রায় ৯৫ শতাংশ যোগান দিয়ে রপ্তানীও করছি। সরকারী সহায়তা পেলে এ শিল্প রপ্তানীতে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখেতে পারবে।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএপিএমইএ), এএসকে ট্রেড এ্যান্ড এক্সিবিশন প্রাঃ লিমিটেড এবং জাকারিয়া ট্রেড এ্যান্ড ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল যৌথভাবে মেলার আয়োজন করছে। প্রদর্শনী প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে প্রচ্ছন্ন (ডিমএক্সপোর্ট) রপ্তানী করে এ খাতের উদ্যোক্তারা আয় করেন ৭.১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা আগের বছর ছিল ৬.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। একইসঙ্গে সরাসরি গার্মেন্টস এক্সেসরিজ রপ্তানী হয়েছে এক বিলিয়ন ডলারের বেশি।

প্রদর্শনীতে সরাসরি সবোর্চ্চ রপ্তানীকারকদের থেকে তিনজনকে ও প্রচ্ছন্ন রপ্তানীকারকদের মধ্য থেকে তিন ক্যাটাগরিতে ৯জনকে পুরস্কৃত করা হবে। এছাড়াও নারী উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করার লক্ষ্যে তিনজনকে পুরস্কৃত করবে আয়োজকরা।

বিজনেস আওয়ার/১০ জানুয়ারি, ২০১৮/আরএইচ

পাঠকের মতামত: