ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » অর্থনীতি » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

মাংসের বাজারে আগুন

আপডেট : 2019-02-08 11:05:25
মাংসের বাজারে আগুন

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : দাম বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির। এক সপ্তাহের ব্যবধানে রাজধানীর খুচরা বাজারে ব্রয়লার মুরগি কিনতে কেজিতে অন্তত ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশি খরচ করতে হচ্ছে ক্রেতাদের এবং গরুর মাংসের দাম বাজারভেদে কেজিতে বেড়েছে ২০ টাকা। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে মাছ ও খাসির মাংসের দাম।

রাজধানীর রামপুরা, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেটসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা কেজি দরে, যা আগে ছিল ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকা। বিভিন্ন খুচরা বাজারের তুলনায় কারওয়ান বাজারে একটু কম দামেই ব্রয়লার মুরগি কেনা যায়। এই বাজারে এক সপ্তাহ আগে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয় সর্বোচ্চ ১৩০ টাকা কেজি দরে। এখন বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৪৫ টাকায়।

মুরগির বাচ্চার দাম বেড়ে যাওয়া এবং মুরগির মাংসের বাড়তি চাহিদা তৈরি হওয়া এই দাম বাড়ার কারণ বলছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

পোল্ট্রি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মাস দুয়েক আগে ব্রয়লার মুরগির বাচ্চার দাম একেবারে তলানিতে নেমে যায়। দাম কমে প্রতিটি বাচ্চা বিক্রি হয়েছে ১৭ থেকে ২০ টাকায়। চাহিদার চেয়ে বেশি পরিমাণে মুরগির বাচ্চা উৎপাদন করায় এ অবস্থার তৈরি হয়েছিল। প্রতি সপ্তাহে এক কোটি ৪০ লাখ বাচ্চার চাহিদার বিপরীতে তখন এক কোটি ৬০ লাখ বাচ্চা উৎপাদিত হয়েছে।

দাম পড়ে যাওয়ায় বাচ্চা উৎপাদনে জড়িত ব্যবসায়ীরা উৎপাদন কমিয়ে আনে। নতুন অনেক ব্যবসায়ী ব্রয়লার মুরগির বাচ্চা উৎপাদন থেকে সরেও আসে। ফলে এখন আবার উৎপাদন এক কোটি ৪০ লাখের কাছাকাছি নেমে এসেছে। বাচ্চার অতি উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এখন আবার দাম বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। প্রতিটি ব্রয়লার মুরগির বাচ্চা এখন বিক্রি হচ্ছে ৪২ থেকে ৪৫ টাকা দরে; যার প্রভাব পড়েছে ব্রয়লার মুরগিতে।

এদিকে গত সপ্তাহে রামপুরা, খিলগাঁও ও মালিবাগ অঞ্চলের বেশ কিছু ব্যবসায়ী গরুর মাংস ৪৮০ টাকা কেজিতে বিক্রি করলেও এখন কোনো ব্যবসায়ী ৫০০ টাকার নিচে গরুর মাংস বিক্রি করছেন না।

গরুর মাংসের দামের বিষয়ে হাজীপাড়ার ব্যবসায়ী সাইফুল বলেন, আমরা নিজেরা গরু জবাই করি না। মাংস কিনে এনে বিক্রি করি। গত সপ্তাহে গরুর মাংস বিক্রি করেছি ৪৮০ টাকায়। কিন্তু এখন আমাদেরই ৪৮০ টাকা কেজি কিনতে হচ্ছে। যে কারণে ৫০০ টাকার নিচে গরুর মাংস বিক্রি করার উপায় নেই।

দাম বাড়ার কারণ জানতে চাইলে এক গরুর মাংসের ব্যবসায়ী বলেন, বাজারে এখন সব ধরনের মুরগির দাম চড়া। এর কিছুটা প্রভাব পড়েছে গরুর মাংসের দামে। এ ছাড়া এখন গরু কিনতে হচ্ছে বাড়তি দামে, যে কারণে মাংসের দাম বেড়েছে।

ব্রয়লার মুরগি ও গরুর মাংসের দাম বাড়লেও অপরিবর্তিত রয়েছে খাসি ও মাছের দাম। খাসির মাংস আগের মতই ৬৫০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

বিজনেস আওয়ার/০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/আরআই

পাঠকের মতামত: