ঢাকা, শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » স্বাস্থ্য » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

সর্দিতে নাক বন্ধ ! কি করবেন জেনে নিন

আপডেট : 2019-02-08 13:01:49
সর্দিতে নাক বন্ধ ! কি করবেন জেনে নিন

বিজনেস আওয়ার ডেস্কঃ ঋতুবদলের ইঙ্গিত বেশ স্পষ্ট টের পাওয়া যাচ্ছে বাতাসে। হঠাৎই তাপমাত্রার হেরফের হলেই সর্দি-কাশির একটা সমস্যায় ভুগতে আরম্ভ করেন অনেকেই। সারা রাত শুকনো কাশি কাশতে কাশতে বুকে ব্যথা ধরে যায়।

এই পরিস্থিতিতে আপনিও নাজেহাল? জানেন তো, আমাদের শরীর যখন প্রয়োজনের চেয়ে বেশি মিউকাস তৈরি করে, তখনই বাড়তি মিউকাস নাকের দিক থেকে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। চলতি কথায় সেটাকেই আমরা বলি ‘নাক দিয়ে জল পড়া’।

সবচেয়ে বিরক্তিকর হলো সর্দিতে নাক বন্ধ হয়ে থাকা। সর্বক্ষণ সবার সামনে নাক টানা আর নাক মুছতে থাকাটা ভীষণ বিরক্তিকর। নাক বন্ধ হয়ে অস্বস্তিতে নিঃশ্বাস নিতে তো সমস্যা হয়ই, অনেকের শরীরের পাশাপাশি মেজাজটাও খারাপ হয়ে থাকে।

নাকের এই সর্দি দূর করার জন্য আপনি বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন। কিছু পদ্ধতিতে নাক দ্রুতই পরিষ্কার হয়ে যাবে। আবার কিছু পদ্ধতিতে কিছুদিন সময় লাগলেও অসুস্থতা কেটে যাবে পুরোপুরি।

কীভাবে সারবে:

খুব ভালো কাজ হয় স্টিম ইনহেল করলে, তাতে আপনার শ্বাসনালীর সমস্ত বাধা সরে যায়।

মেডিসিন বিশেষজ্ঞ বলছেন, ‘দিনে দুই বার স্টিম নেওয়ার পাশাপাশি অ্যান্টি অ্যালার্জিক ওষুধ খেলেই সাধারণত সমস্যা সেরে যায়। যাঁরা খুব অ্যালার্জিতে ভোগেন তাঁর ডিসপোজেবল মাস্ক ব্যবহার করতে আরম্ভ করুন ঋতু বদলের সময়টায় অন্তত। ’গলার কাছটায় আরামের জন্য উষ্ণ জলে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার আর মধু মিশিয়ে খেতে পারেন৷ আদা আর মধু দিয়ে চা খাওয়াও চলে। দুধ আর কাঁচা হলুদ বেশ করে ফুটিয়ে পান করুন, শরীরের ভিতরের সব ইনফেকশন কমাতে তা কার্যকর।

গবেষণা বলছে, এই নিয়মগুলো মেনে চললে উপকার পেতে পারেন।

১) স্যালাইন ড্রপ দিয়ে নাক পরিষ্কার করতে পারেন

২) যথেষ্ট পানি পান করুন

৩) নাক ঝেড়ে ফেলুন, সর্দি আটকে রাখবেন না

৪) নাক এবং কপালে গরম সেঁক দিন, তবে ত্বক যেন পুড়ে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখুন

৫) গরম চা এবং স্যুপ পান করুন

৬) ঝাঁঝালো মেনথল মলম ব্যবহার করুন

৭) গরম পানিতে গরগর করুন

৮) কুসুম গরম পানিতে গোসল করুন

৯) আপনার নাক যদি অ্যালার্জির কারণে বন্ধ হয়ে থাকে তাহলে অ্যান্টিহিস্টামিন জাতীয় ওষুধ খেতে পারেন, তবে অবশ্যই ডাক্তারের সাথে কথা বলে তারপর।তাহলে একটা শেষ চেষ্টা করতেই পারেন। সঙ্গীর সঙ্গে লম্বা কথাবার্তা চালান। যদি সেও সমান মরিয়া হয় সম্পর্কটা টিকিয়ে রাখার ব্যাপারে, তাহলে সমাধানের সূত্র বেরিয়ে আসবেই।

বিজনেস আওয়ার/০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/আরআই

পাঠকের মতামত: