ঢাকা, সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

অর্থ সংগ্রহে উদ্যোক্তারা শেয়ারবাজারের জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষা করবে না

আপডেট : 2019-02-12 17:57:57
অর্থ সংগ্রহে উদ্যোক্তারা শেয়ারবাজারের জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষা করবে না

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : অর্থের প্রয়োজনে কোন উদ্যোক্তা শেয়ারবাজার থেকে সংগ্রহের জন্য ২-৩ বছর বসে থাকবে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী। তারা যেখানে অর্থ পাবে, সেখানেই চলে যাবে। তাই শেয়ারবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহ সহজতর এবং স্বল্প সময়ে করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি তিনি আহ্বান করেছেন।

মঙ্গলবার (১২ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর পুরানা পল্টনের ফারস হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট হোটেলে 'দীর্ঘমেয়াদী অর্থায়নে শেয়ারবাজারের গুরুত্ব' শীর্ষক সেমিনারে এসব কথা বলেন তিনি। সেমিনারটি যৌথভাবে আয়োজন করে ব্যবসা বাণিজ্যভিত্তিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিজনেস আওয়ার টুয়েন্টিফোর ডটকম এবং ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিবিএ)।

ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী বলেন, শেয়ারবাজার থেকে যত দ্রুত পুজিঁর সংস্থান করা যাবে, তত বেশি ভালো কোম্পানি তালিকাভুক্ত হবে। এছাড়া ভবিষ্যতে ব্যাংকের মাধ্যমে পুরো অর্থায়ন করা সম্ভব হবে না। তখন কোম্পানিগুলো শেয়ারবাজারে আসতে বাধ্য হবে।

একজন উদ্যোক্তার ব্যবসা করতে দুইটি জায়গা থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে পারে। একটি ব্যাংক এবং অন্যটি শেয়ারবাজার। অর্থের প্রয়োজন হলে শুরুতেই উদ্যোক্তা শেয়ারবাজার থেকে অর্থ নিতে পারছে না। শেয়ারবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহে তাকে কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হয়। এটা একটা বড় সমস্যা। কিন্তু ব্যবসার প্রথম বছরেই উদ্যোক্তা ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে পারছেন। কাজেই নতুন উদ্যোক্তাদের শেয়ারবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহে সমস্যায় পড়তে হয়।

আরো পড়ুন...

**শর্ত পরিপালন হলেই দ্রুত আইপিও অনুমোদন

**‘আলোচনার মাধ্যমে ভালো কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে আনতে হবে’

**'শক্তিশালী শেয়ারবাজার গঠনে ভাল কোম্পানি আনতে হবে'

**'বাংলাদেশ ব্যাংকের শেয়ারবাজারবান্ধব আচরন জরুরী'

**শেয়ারবাজারকে মূলধনের প্রধান উৎস হিসেবে গড়ে তুলতে হবে’

**‘দীর্ঘমেয়াদী পুঁজি শেয়ারবাজার থেকে নেয়া উচিত’

তিনি বলেন, ব্যাংক থেকে ঋণ নিলে সুদসহ আসল পরিশোধ করতে হয়। কিন্তু শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করলে, একটা নির্দিষ্ট সময়ে সুদ প্রদানের ভার নেই। শেয়ারবাজার থেকে অর্থায়নের আরো সুবিধা হচ্ছে কোনো কোম্পানি যদি কোনো বছর লভ্যাংশ না দেয়, তাতেও সমস্যা নেই।

বিএসইসির সাবেক এই চেয়ারম্যান বলেন, প্রায় সবাই ব্যাংক থেকে অর্থায়ন করছে। খুব নগন্য সংখ্যক কোম্পানি শেয়ারবাজার থেকে মূলধন সংগ্রহ করছে। মনে হচ্ছে শেয়ারবাজারের গুরুত্ব দিন দিন আরো কমে যাচ্ছে।

শেয়ারবাজারে কোম্পানিগুলোকে জোর করে নিয়ে আসা যায় না উল্লেখ করে ফারুক আহমেদ বলেন, একটা ব্যাংক হয়তো ২৫ হাজার কোটি টাকার ব্যবসা করছে কিন্তু তার মূলধন কিন্তু ১ হাজার কোটি টাকা। বাকি সে পাবলিকের টাকায় ব্যবসা করছে। এখানে ইনভেস্টরস ইন্টারেস্ট জড়িত রয়েছে।

আমাদের দেশে বেশিরভাগই কোম্পানি পারিবারিককেন্দ্রিক উল্লেখ করে তিনি বলেন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কোম্পানির স্বচ্ছতা, কর্পোরেট গভর্নন্সে ও সুশাসন এখনো আসে নাই।
পারিবারিক কোম্পানির কর্তাব্যক্তিদের বোঝাতে হবে, ব্যবসাটা যখন আরো বড় হবে, তখন কর্পোরেট গভর্নন্সে ছাড়া নিজের ও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ব্যবসা করা সম্ভব নয়। সুতরাং কর্পোরেট গভর্নেন্স যেতেই হবে। আর কর্পোরেট গভর্নেন্স কারো উপর জোর করে চাপিয়ে দেয়া হয় না। নিজস্ব ব্যবসার স্বার্থেই কর্পোরেট গভর্নেন্স প্রয়োজন রয়েছে।

অনেকে কর হার কমানো কথা বলে থাকেন উল্লেখ করে ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী বলেন, তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে ১০ শতাংশ কম কর দিতে হয়। অথচ কর্পোরেট ট্যাক্সের সুবিধা নেয়ার জন্য তেমন কোনো কোম্পানি আগ্রহী হয় না। একটা তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে ১০ কোটি টাকা মুনাফার বিপরীতে আড়াই কোটি টাকা কর দিতে হয়, অন্যথায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা দিতে হচ্ছে। এতো বড় সুবিধা সত্বেও কেউ শেয়ারবাজারে আসতে চাচ্ছে না। এর পেছনে নিশ্চয় কোনো কারণ আছে। হয়তো তালিকাভুক্ত হলে গোপনীয়তা প্রকাশ পাবে বা অন্য কোনভাবে এরচেয়ে বেশি সুবিধা পাওয়া যায়।

গত ৮-১০ বছরে হাতে গোনা কয়েকটি ছাড়া ভালো কোনো কোম্পানি শেয়ারবাজারে আসেনি উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেয়ারবাজারকে উন্নত করতে হলে ভালো কোম্পানির প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য। সুতরাং ভালো কোম্পানিকে আকৃষ্ট করতে কোম্পানিগুলোর আইপিও মূল্য নির্ধারণে বিএসইসিকে সজাগ থাকতে হবে।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এম খায়রুল হোসেন। এছাড়া প্রধান বক্তা হিসেবে বিএসইসির সাবেক চেয়ারম্যান এবি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে বিএসইসির সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী ও প্যানেল আলোচক হিসেবে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সাবেক সভাপতি মো: ছায়েদুর রহমান ও ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্ট ফোরামের সভাপতি হাসান ঈমাম রুবেল উপস্থিত ছিলেন। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জিটিভি’র প্রধান প্রতিবেদক রাজু আহমেদ। আর অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিজনেস আওয়ার টোয়েন্টিফোর ডটকমের উপদেষ্টা ও ওমেরাফুয়েলসের সিইও আক্তার হোসেন সান্নামাত।

বিজনেস আওয়ার/ ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/পিএস

আরো পড়ুন...

**শর্ত পরিপালন হলেই দ্রুত আইপিও অনুমোদন

**‘আলোচনার মাধ্যমে ভালো কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে আনতে হবে’

**'শক্তিশালী শেয়ারবাজার গঠনে ভাল কোম্পানি আনতে হবে'

**'বাংলাদেশ ব্যাংকের শেয়ারবাজারবান্ধব আচরন জরুরী'

**শেয়ারবাজারকে মূলধনের প্রধান উৎস হিসেবে গড়ে তুলতে হবে’

**‘দীর্ঘমেয়াদী পুঁজি শেয়ারবাজার থেকে নেয়া উচিত’

পাঠকের মতামত: