ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » অর্থনীতি » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

'ভোক্তারা সচেতন হলে প্রতারণা কমে যাবে'

আপডেট : 2019-03-10 15:10:51
'ভোক্তারা সচেতন হলে প্রতারণা কমে যাবে'

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ভোক্তা অধিকার আইনের সুফল পেতে শুরু করেছে ভোক্তারা। অধিদফতরের নানা ধরনের কর্মকাণ্ডে ভোক্তারা এখন সচেতন হচ্ছে। তারা যে কোনো পণ্য বা সেবা কিনে ঠকলে অধিদফতরে অভিযোগ করছেন। তারা সেগুলো তদন্ত করে ব্যবস্থা নিচ্ছেন। সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে জরিমানা করছেন।

এতে ভোক্তা যেমন ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে, তেমনি কোম্পানিও ভোক্তার অধিকারের ব্যাপারে সচেতন হচ্ছে। বললেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম লস্কর।

তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার পরিষদ, ক্রেতাদের কেনা পণ্যের মান, মেয়াদোত্তীর্ণ কিনা, পণ্যের দাম, পণ্যের ওজন, পণ্য কিনে ক্রেতা কোনোভাবে ঠকছে কিনা সেসব বিষয়ে ক্রেতাদের অধিকার সংরক্ষণে কাজ করে। এসব কোনো কারণে ভোক্তা ক্ষতিগ্রস্ত হলে প্রতিকার করতেই তারা কাজ করে।

কোনো অসাধু ব্যবসায়ী যাতে ভোক্তার কাছ থেকে পণ্যের অধিক মূল্য নিয়ে না ঠকাতে পারে বা পচা-ভেজাল না বিক্রি করতে পারে এ জন্য অধিদফতরের পক্ষ থেকে সপ্তাহের ৫ দিন দুটি করে সারা দেশে ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

এতে নানা ধরনের অসাধু ব্যবসায়ীরা অনিয়ম কারসাজি করে ধরা পড়ছে। পরে তাদের ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯-এর বিভিন্ন ধারার আওতায় এনে শাস্তি দেয়া হচ্ছে। এর সুফল পাচ্ছে ভোক্তারা।

এ ছাড়া ভোক্তারা কোনো ধরনের অনিয়ম পেলে অধিদফতরে অভিযোগ করছে। পরে ওই অভিযোগ আমলে নিয়ে শুনানি করা হচ্ছে। যার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয় তার দোষ প্রমাণ পেলেই তাকে ভোক্তা আইনে শাস্তি দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, অধিদফতরের পক্ষ থেকে আমরা ভোক্তার অধিকার অক্ষুণ্ণ রাখতে সর্বপরি কাজ করে যাচ্ছি। আর ভোক্তা আইন আরও কার্যকর করতে ভোক্তা অধিকার আইন ২০১৮-এর খসড়া চূড়ান্ত করে মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। যা চূড়ান্ত হলে ভোক্তার অধিকার আরও ভালোভাবে অক্ষুণ্ণ রাখা সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, পণ্য কিনে বা সেবা নিয়ে প্রতারিত হলেই কষ্ট করে হলেও ভোক্তা অধিকার অধিদফতরকে জানাতে হবে। অভিযোগ করলেই আমারা দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি। এভাবে ব্যবস্থা নেয়া হতে থাকলে পণ্যের উৎপাদন, বিক্রেতা ও সেবাদাতারা সজাগ হবে। তখন প্রতারণার ঘটনাও কমে আসবে।

বিজনেস আওয়ার/১০ মার্চ, ২০১৯/এমএএস

পাঠকের মতামত: