ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » রাজনীতি » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

ডাকসু নির্বাচন বাতিলের দাবি বামজোটের

আপডেট : 2019-03-12 13:07:02
ডাকসু নির্বাচন বাতিলের দাবি বামজোটের

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন বাতিল ও পুনঃতফসিলের দাবি জানিয়ে টিএসসিতে (ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র) অবস্থান নিয়েছেন বামজোট সমর্থিত বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) বেলা ১১টা থেকে তারা টিএসসিতে অবস্থান নেন। এসময় ‘জালিয়াতির নির্বাচন মানি না, মানবো না’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন তারা। শতাধিক শিক্ষার্থী আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন।

প্রহসনের নির্বাচন মানি না, মানবো না, মানবতার ফেরিওয়ালা নির্বাচনে দিচ্ছে তালা, জালিয়াতির নির্বাচন বাতিল করতে হবে, দিয়েছি তো রক্ত, আরও দেবো রক্ত, প্ল্যাকার্ড ফেস্টুনে লেখা এমন নানা স্লোগান হাতে নিয়ে শিক্ষার্থীরা অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন।

ডাকসু নির্বাচনে ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী বলেন, আমাদের কর্মসূচি চলছে। আমরা ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়েছি। আমরা নির্বাচন বাতিল করে পুনঃতফসিল চাই।

ডাকসু'র নবনির্বাচিত ভিপি নূরুল হক নুরের সঙ্গে কথা হয়েছে কিনা, জানতে চাইলে তিনি বলেন, হ্যাঁ, ওরা আমাদের সঙ্গেই আছে। ওদের কোটা আন্দোলনের ছেলেরা আমাদের কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসছে।

আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া পরিসংখ্যান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রুদ্র রায় জানান, অবিলম্বে প্রহসনের নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় নির্বাচন দিতে হবে। জালিয়াতির নির্বাচন মানি না- এ দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নেমেছে।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাস পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। অবিলম্বে দাবি মানা না হলে আন্দোলনের মাত্রা তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠবে। এ লক্ষ্যে বিকেলে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচির ঘোষণা করা হবে।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে সহসভাপতি (ভিপি) পদে ১১০৬২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন কোটা আন্দোলনের নেতা নুরুল হক নুর। সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে ১০৪৮৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

সোমবার দিবাগত রাতে এ ফল ঘোষণা করেন ভিসি ড. মো. আখতারুজ্জামান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমেদ, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক সামাদ, চিফ রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক এস এম মাহফুজুর রহমান প্রমুখ।

নির্বাচনে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা অনুসারে ডাকসুর ২৫টি পদের বিপরীতে ২২৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এর মধ্যে সহসভাপতি (ভিপি) পদে ২১ জন, সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে ১৪ এবং সহসাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ১৩ জন।

এছাড়া স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক পদে ১১ জন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে ৯ জন, কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক পদে ৯ জন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে ১১ জন, সাহিত্য সম্পাদক পদে ৮ জন, সংস্কৃতি সম্পাদক পদে ১২ জন, ক্রীড়া সম্পাদক পদে ১১ জন, ছাত্র পরিবহন সম্পাদক পদে ১০ জন ও সমাজসেবা সম্পাদক পদে ১৪ জন। এর বাইরে ১৩টি সদস্য পদের বিপরীতে ৮৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

বিজনেস আওয়ার/১২ মার্চ, ২০১৯/এমএএস

পাঠকের মতামত: