ঢাকা, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » সারাদেশ » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

চুয়াডাঙ্গায় 'বন্দুকযুদ্ধে' মাদক ব্যাবসায়ী নিহত

আপডেট : 2019-04-13 11:01:41
চুয়াডাঙ্গায় 'বন্দুকযুদ্ধে' মাদক ব্যাবসায়ী নিহত

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (চুয়াডাঙ্গা) : চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে জেলার শীর্ষ মাদক ব্যাবসায়ী রুহুল আমীন (৪৮) নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার উকতো গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত রুহুল আমীন চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার শান্তিপাড়ার মৃত মফিজ উদ্দীনের ছেলে। বন্দুকযুদ্ধের সময় মাদক কারবারিদের গুলিতে পুলিশের উপ-পরিদর্শকসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি করছে পুলিশ।

থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় যে একদল মাদক কারবারি উকতো গ্রামের মধ্যে দিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদক পাচার করবে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার একটি টহল দল ওই এলাকার একটি বাঁশ বাগানে অবস্থান নেয়।

রাত দুইটার দিকে ৭/৮ জনের মাদক কারবারির একটি দল মাথায় করে বস্তাভর্তি মাদক বহন করছে। এ সময় তাদের চ্যালেঞ্জ করা হলে মাদক কারবারিরা পুলিশের ওপর অতর্কিত গুলি চালায়।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানারভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান বলেন, ১৫ মিনিট গুলি বিনিময়ের এক পর্যায়ে মাদক কারবারিরা পিছু হটে। এ সময় স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় শীর্ষ মাদক কারবারি রুহুল আমীনকে উদ্ধার করা হয়।

পরে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পর ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, দুটি ধারালো হাসুয়া ও এক বস্তা ফেন্সিডিল উদ্ধার হয়েছে।

এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জানান, নিহত রুহুল জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক কারবারি। তার নামে জেলার বিভিন্ন থানায় ১৬টি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/১৩ এপ্রিল, ২০১৯/এ

পাঠকের মতামত: