ঢাকা, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » খেলা » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

বার্সার ঘরেই লা লিগা শিরোপা

আপডেট : 2019-04-28 08:25:09
বার্সার ঘরেই লা লিগা শিরোপা

স্পোর্টস ডেস্ক : লা লিগায় ৩ ম্যাচে বাকি থাকতেই নিজেদের ২৬তম শিরোপা জিতে নিয়েছে বার্সেলোনা। শনিবার রাতে নু ক্যাম্পে লিওনেল মেসির এক মাত্র গোলে লেভান্তেকে হারিয়ে লিগের মুকুটটি তুলে নিলো কাতালান দলটি।

নিজেদের মাঠে প্রথমার্ধ গোল শূন্য ড্রতে শেষ হয়। বিরতির পর বদলি হিসেবে নেমেই বাজিমাত করেন মেসি। ৬২তম মিনিটে আরতুরো ভিদালের বাড়ানো বল পেয়ে লেভান্তের দুই ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে গোল তুলে নেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

এ নিয়ে ক্লাব ক্যারিয়ারের ৫৯৮ তম গোল তুলে নিলেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি। লেভান্তের বিপক্ষের এই গোলটি চলতি মৌসুমে স্প্যানিশ লিগে ৩২ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের ৩৪ তম গোল।

ক্যাম্প ন্যুয়ে খেলার শুরু থেকেই লেভান্তেকে চেপে ধরেছিল বার্সা। দ্বিতীয় মিনিটেই উসমান দেম্বেলে ও আর্তুরো ভিদালের বানিয়ে দেওয়া বলে জোর শট নিয়েছিলেন লুইস সুয়ারেজ। কিন্তু পা বাড়িয়ে সেই শট ঠেকিয়ে দেন লেভান্তে গোলরক্ষক এইতর।

মিনিট তিনেক পরে সফরকারীদের তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে ডি-বক্সের একদম সামনে থেকে শট নিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ফিলিপ্পে কৌতিনহো। কিন্তু এবারও এইতর বাধা হয়ে দাঁড়ান। প্রথমার্ধের শেষ দিকে কৌতিনহোর নেওয়া ফ্রি-কিক গোলবারে লেগে ফিরে আসে।

ম্যাচ জিততে মরিয়া বার্সা দ্বিতীয়ার্ধের একদম শুরুতেই কৌতিনহোকে তুলে নিয়ে মেসিকে নামিয়ে দেন। স্বাগতিকদের মনে স্বস্তি ফেরাতে বেশি সময় নেননি অধিনায়ক। ৬২তম মিনিটে লেভান্তের ডিফেন্সে ঢুকে পড়েন দেম্বেলে, কিন্তু তিনি আর সুয়ারেজ মিলে গোলমুখে প্রবেশ করতে পারছিলেন না।

কিন্তু এমন সাজানো আক্রমণ তো বৃথা যেতে দেওয়া যায় না। উপায়ন্তর না দেখে বল পেয়েই মেসির পায়ে ঠেলে দেন ভিদাল। বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ক্ষিপ্র গতির নিচু শটে জালে জড়িয়ে দেন মেসি।

১-০ গোলে এগিয়ে থাকা বার্সা অনেকটা নিশ্চিত হয়েই হয়ত কিছুটা গা ছেড়ে দিয়েছিল। এই সুযোগে বার্সার রক্ষণে বেশ চাপ তৈরি করেছিল সফরকারীরা। একবার তো অল্পের জন্য প্রায়শ্চিত্ত করার হাত থেকে বেঁচে গেছেন মেসিরা।

সফরকারী দলের বার্ধি ৮৯তম মিনিটে গোলমুখে দুর্দান্ত এক শট নিয়েছিলেন, কিন্তু বারে লেগে বল বার্সা গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগানের হাতে জমা হলে ঘাম দিয়ে যেন জ্বর ছাড়ে বার্সা সমর্থকদের। এরপর শেষ বাঁশি বাজতেই তুমুল করতালি আর শিরোপা জয়ের উৎসবে মাতে পুরো ক্যাম্প ন্যু।

এই জয়ের পর ৩৫ ম্যাচ শেষে মেসি নেতৃত্বাধীন দলটির মোট পয়েন্ট ৮৩। সমান সংখ্যক ম্যাচ খেলে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৭৪। এক ম্যাচ খেলে রিয়াল মাদ্রিদ ৬৫ পয়েন্ট তুলতে সক্ষম হয়েছে। অ্যাথলেটিকো ও রিয়াল রয়েছে যথাক্রমে দুই ও তিন নম্বর অবস্থানে।

বিজনেস আওয়ার/২৮ এপ্রিল, ২০১৯/এ

পাঠকের মতামত: