ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » অর্থনীতি » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

ডলারের দাম ফের বাড়লো

আপডেট : 2019-04-29 20:01:45
ডলারের দাম ফের বাড়লো

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : রপ্তানির চেয়ে আমদানি বেশি হওয়ায় বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর কাছে নিয়মিত ডলার বিক্রি করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। চলতি অর্থবছরের প্রথমদিন থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত দুই বিলিয়নের বেশি ডলার বিক্রি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকটি।

আমদানি ব্যয় পরিশোধ করতে চাহিদা বাড়ায় ডলারের দামের বিপরীতে টাকার মানের আরও এক ধাপ অবনতি হয়েছে সোমবার (২৯ এপ্রিল)।

আন্তঃব্যাংক লেনদেনে ২০ দিন পর টাকার বিপরীতে ডলারের দাম ১০ পয়সা বেড়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ২৯ এপ্রিল আন্তঃব্যাংক বৈদেশিক মুদ্রার বাজারদর ছিল ৮৪ দশমিক ৪৫ টাকা। আগের দিন রোববার ছিল ৮৪ দশমিক ৩৫ টাকা।

চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত টাকার বিপরীতে আন্তঃব্যাংক লেনদেনে বৈদেশিক মুদ্রা ডলারের দাম বেড়েছেন শূন্য দশমিক ৫৫ টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, আমদানি ব্যয় মেটাতে ডলারের দাম ১০ পয়সা বাড়লেও ভোক্তা পর্যায়ে টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বেড়েছে শূন্য দশমিক শূন্য ৮ টাকা।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) ভোক্তা পর্যায়ে ব্যাংকগুলো ৮৪ দশমিক ৪৮ টাকায় ডলার বিক্রি করছে। আগের দিন রোববার বিক্রি করেছে ৮৪ দশমিক ৪০ টাকায়। বিল পরিশোধের চেয়ে ভোক্তা পর্যায়ে শূন্য দশমিক ২ পয়সা কম রয়েছে ডলারের দাম।

এদিকে বৈদেশিক মুদ্রা বাজার স্থিতিশীল রাখতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর কাছে বাংলাদেশ ব্যাংক গত সপ্তাহে ৮৭ মিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে। তার আগের সপ্তাহে বিক্রি করেছিল ৫৫ মিলিয়ন ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়মিত ব্যাংকগুলোর আমদানি ব্যয় পরিশোধ করার জন্য সহায়তা করে যাচ্ছে। আমদানির মধ্যে উল্লেখযোগ্য রয়েছে তেল, মবিল, সার, তরলীকৃত গ্যাস ও শিল্প মেশিনারি।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সবশেষ প্রতিবেদন মতে, ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম দিন ১ জুলাই থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশ ব্যাংক বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর কাছে ২ দশমিক শূন্য ৮ বিলিয়ন ডলার বিক্রি করেছে।

এ বিষয়ে অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) চেয়ারম্যান ও ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মাহবুবুর রহমান বলেন, আমদানির তুলনায় রপ্তানি না বাড়লে ভবিষ্যতে ডলারর দাম আরও বাড়তে পারে। আমদানির সঙ্গে নতুন নতুন পণ্য রপ্তানি বাড়াতেও নজর দেওয়া উচিত।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলেন, দেশের ব্যাংকগুলোর বৈদেশিক মুদ্রার সরবরাহ স্থিতিশীল রাখতে নিয়মিত বৈদেশিক মুদ্রা (ডলার) সরবরাহ করে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, ডলারের বাজার স্থিতিশীল রাখতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর চাহিদা অনুযায়ী ডলার বিক্রি করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

তিনি আরও বলেন, আমদানির সঙ্গে রপ্তানি বাড়াতে উৎসাহিত করতে সরকার নতুন নতুন পণ্যে নগদ সহায়তাও ঘোষণা করছে। রপ্তানি বেড়ে গেলে তখন হয়তো ডলারের দাম আবার আগের জায়গায় ফিরে আসবে।

বিজনেস আওয়ার/২৯ এপ্রিল, ২০১৯/আরএইচ

পাঠকের মতামত: