ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

এবার ড্রাগণের চেয়ারম্যানের শেয়ার বিক্রি শেষে মুনাফায় পতন

আপডেট : 2019-05-09 10:39:53
এবার ড্রাগণের চেয়ারম্যানের শেয়ার বিক্রি শেষে মুনাফায় পতন

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ড্রাগণ সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিংয়ের চলতি অর্থবছরের প্রথমার্ধের ব্যবসায় উত্থান দেখিয়ে লাখ লাখ শেয়ার বিক্রি করেছেন কোম্পানির চেয়ারম্যান মোস্তফা কামরুস সোবহান। তবে শেয়ার বিক্রি শেষ হওয়ার পরে কোম্পানিটির ৩য় প্রান্তিকের ব্যবসায় পতন দেখানো হয়েছে। যে কোম্পানির পর্ষদ আইপিও ফান্ড অপব্যবহার করে এরইমধ্যে অসততার প্রমাণ রেখেছেন।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) এক পরিচালক বিজনেস আওয়ারকে বলেন, ড্রাগণ সোয়েটারের এমন চিত্রে এটা স্পষ্ট যে, তারা পরিচালকের শেয়ার বিক্রির নিয়ে কৃত্রিম ব্যবসা দেখিয়েছেন। যখন প্রথমার্ধে মুনাফা বাড়ছিল এবং উদ্যোক্তা পরিচালক শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিচ্ছিলেন, তখনই সন্দেহ হয়েছিল। কারন উদ্যোক্তা পরিচালকেরাই যদি মুনাফা নিতে না চায়, তাহলে সাধারন বিনিয়োগকারীরা কেনো ওই কোম্পানিতে থাকবে? প্রকৃতপক্ষে কোম্পানিটির প্রথমার্ধে কৃত্রিম মুনাফা দেখানো হয়েছিল। যা এখন সমন্বয় করা হচ্ছে।

দেখা গেছে, চলতি অর্থবছরের (২০১৮-১৯) প্রথমার্ধে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) বাড়ে ৩৯ শতাংশ। এই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয় ১.২৯ টাকা। যার পরিমাণ আগের বছরের একই সময়ে হয়েছিল ০.৯৩ টাকা। আর গত ২২ অক্টোবর প্রকাশিত প্রথম প্রান্তিকের ইপিএস বেড়েছিল ৭৬ শতাংশ।

ড্রাগণ সোয়েটারের প্রথম প্রান্তিকের মুনাফায় উল্লম্ফনের তথ্য প্রকাশের পরে কোম্পানিটির চেয়ারম্যান মোস্তফা কামরুস সোবহান শেয়ার বিক্রির ঘোষণা শুরু করেন। যা ২য় প্রান্তিকের উত্থান পর্যন্ত অব্যাহত ছিল। তিনি গত বছরের ১১ নভেম্বর থেকে চলতি বছরের ১২ মার্চের মধ্যে ৫ ধাপে ৯০ লাখ শেয়ার বিক্রি করেছেন। এই শেয়ার বিক্রি শেষে কোম্পানির ৩য় প্রান্তিকের ব্যবসায় পতন হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

এর আগে চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি বিজনেস আওয়ারে ‘ড্রাগণ সোয়েটারের বাড়ছে মুনাফা, উদ্যোক্তা বেচছেন শেয়ার’ শীর্ষক শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছিল।

দেখা গেছে, কোম্পানিটির চেয়ারম্যান মোস্তফা কামরুস সোবহান গত ১১ নভেম্বর ১৫ লাখ বোনাস শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দেন। এরপরে ৫ ডিসেম্বর ২৩ লাখ, ১৫ জানুয়ারি ১৬ লাখ, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২৬ লাখ ও ৬ মার্চ ১০ লাখ শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দেন। যেসব শেয়ার ১২ মার্চের মধ্যে বিক্রি করেন।

এদিকে পরিচালকের শেয়ার বিক্রি শেষে গত ২৮ এপ্রিল ড্রাগণ সোয়েটারের ৩য় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ ১৯) আর্থিক হিসাব প্রকাশ করা হয়েছে। এই সময় কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ০.৩৫ টাকা। যার পরিমাণ আগের অর্থবছরের একইসময়ে হয়েছিল ০.৫৫ টাকা। এ হিসেবে ইপিএস কমেছে ০.২০ টাকা বা ৩৬ শতাংশ।

এর আগে আইপিওতে উত্তোলিত ফান্ড নিয়ে কেলেঙ্কারীর দায়ে ড্রাগণ সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিংয়ের ৬ পরিচালককে ৩০ লাখ টাকা জরিমানা করে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সেই কেলেঙ্কারীর ঘটনা দুর না হতেই রাইট শেয়ার ইস্যুর পাঁয়তারা করছে কোম্পানিটির পর্ষদ।

শেয়ারবাজার থেকে কোম্পানিটি আইপিওতে ৪০ কোটি টাকা সংগ্রহ করে। তবে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ এই ফান্ড ব্যবহারে অনিয়ম করে। যা বিএসইসির বিশেষ নিরীক্ষায় বেরিয়ে আসে। যাতে কমিশনের ৬২৩তম নিয়মিত সভায় কোম্পানিটির ৬ পরিচালককে ৩০ লাখ টাকা জরিমানা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আইপিও কেলেঙ্কারীর পরে গত ২২ মে কোম্পানিটির পর্ষদ ৩টি সাধারণ শেয়ারের বিপরীতে ২টি রাইট শেয়ার ইস্যুর ঘোষণা দিয়েছে। এর মাধ্যমে মাধ্যমে ৮৮ কোটি ১৬ লাখ ৬৬ হাজার ৬৬৬ টাকা উত্তোলন করতে চায়। এ জন্য কোম্পানিটি প্রতিটি শেয়ার ১০ টাকা মূল্যে ৮ কোটি ৮১ লাখ ৬৬ হাজার ৬৬৭টি শেয়ার ইস্যু করবে।

বিজনেস আওয়ার/০৯ মে, ২০১৯/আরএ

পাঠকের মতামত: