ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » জাতীয় » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

রাজধানীতে মা ও দুই সন্তানের লাশ উদ্ধার, লাশের পাশে চিরকুট

'আমাদের মৃত্যুর জন্য ভাগ্য আর স্বজনদের অবহেলা দায়ী'

আপডেট : 2019-05-13 09:20:23
'আমাদের মৃত্যুর জন্য ভাগ্য আর স্বজনদের অবহেলা দায়ী'

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : রাজধানীর উত্তরখানের মৈনারটেক এলাকার একটি বাসার দরজা ভেঙে মা ও দুই সন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই ঘর থেকে একটি চিরকুটও উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন জাহানারা খাতুন মুক্তা (৪৭), তাঁর ছেলে মুহিব হাসান রশি (২৮) ও শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়ে তাসফিয়া সুলতানা মীম (২০)। তাদের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার জগন্নাথপুরে।

এ ব্যাপারে উত্তরখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন বলেন, লাশ তিনটির পাশে একটি টেবিলে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। সেই চিরকুটে লেখা আছে, 'আমাদের মৃত্যুর জন্য আমাদের ভাগ্য এবং আমাদের আত্মীয়-স্বজনের অবহেলা দায়ী।'

চিরকুটে তাদের সম্পত্তি দান করে দেওয়ার কথাও লেখা আছে উল্লেখ করে ওসি আরো বলেন, মে মাসের শুরুর দিকে মা তাদের সন্তানদের নিয়ে এই বাসায় উঠেছিলেন। তাদের আত্মীয়দের খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

খবর পেয়ে এলাকার একটি ঘরের দরজা ভেঙে ভেতর থেকে তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। বাসার ভেতরে খাটের ওপর থেকে মা ও মেয়ের লাশ এবং ছেলের লাশ ফ্লোরে পড়া অবস্থা থেকে উদ্ধার করা হয়। তিনটি লাশই কিছুটা ফুলে ছিল।

ফুলে যাওয়ার কারণে তাদের শরীরে কোনো আঘাত বা অন্য কিছু বোঝা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে বলে জানান উত্তরখান থানার ওসি। আর এটি আত্মহত্যা নাকি অন্য কোনো ঘটনা তাও খতিয়ে দেখা

উত্তরা বিভাগের এডিসি এএসএম হাফিজুর রহমান রিয়েল বলেন, মৃত্যুর কারণ তদন্ত সাপেক্ষ বলা সম্ভব হবে। ঘর ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। দরজা ও জানালাও ভাঙা দেখা যায়নি। তাই মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট জানতে ময়না তদন্ত করতে হবে।

দ্বিতীয় রোজায় ওই তিনজন বাসাটি ভাড়া নিয়েছিলেন। গত কয়েকদিন আগে ৪০তম বিসিএস পরীক্ষায়ও অংশ নেয় মুহিব হাসান রশ্মি। সুরতহাল শেষে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/১৩ মে, ২০১৯/এ

পাঠকের মতামত: