ঢাকা, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » সারাদেশ » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

রংপুরে এরশাদের চতুর্থ জানাজা সম্পন্ন

আপডেট : 2019-07-16 15:17:57
রংপুরে এরশাদের চতুর্থ জানাজা সম্পন্ন

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (রংপুর) : সদ্যপ্রয়াত জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান, জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চতুর্থ জানাজা সম্পন্ন হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুর আড়াইটার দিকে রংপুর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন হাফেজ মাওলানা ইদ্রিস আলী। জানাজায় রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের জাপাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

এর আগে, বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে এরশাদের মরদেহবাহী হেলিকপ্টার রংপুর সেনানিবাসে অবতরণ করে। পরে সেখান থেকে মরদেহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অ্যাম্বুলেন্সে করে মানুষের ভিড় ঢেলে রংপুর কেন্দ্রীয় ইদগাহ মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় রংপুর মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। জানাজা শেষে এরশাদের মরদেহ রংপুরবাসীর শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাখা হবে।

জানাজার আগে বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা, রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, এরশাদ পুত্র স্বাদ প্রমুখ।

এ সময় জিএম কাদের বলেন, রংপুরের মানুষের ভালোবাসায় একজন পেয়ারা থেকে এরশাদ রাষ্ট্রপতি হয়ে উঠেছিলেন। রংপুরের মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত এরশাদ।

এর আগে দুপুর পৌনে ১২টায় এরশাদের মরদেহ বহনকারী হেলিকপ্টার রংপুর সেনানিবাসে এসে পৌঁছায়। প্রিয় নেতাকে শেষবারের মতো দেখতে সকাল থেকেই জানাজা মাঠে উপস্থিত হতে থাকেন দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ।

বিশৃঙ্খলা এড়াতে মোতায়েন করা হয় বিপুল সংখ্যক পুলিশ। মরদেহ আসার পর পরই পুলিশি বেষ্টনী ভেঙে মরদেহের কাছে ছুটতে থাকেন দলীয় নেতাকর্মীরা। উপচে পড়া ভিড়ের মাঝে শুরু হয় ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো।

নিজ দলের নেতাকর্মী ছাড়াও আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন ব‍্যবসায়ী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময় দলীয় নেতাকর্মীরা এরশাদের মরদেহ রংপুরে দাফনের জন্য স্লোগান দিতে থাকেন।

উল্লেখ্য, গত রোববার (১৪ জুলাই) সকালে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন এরশাদ। তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

এদিকে, এরশাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে রংপুর নগরের সব দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়। এছাড়া রংপুরে এরশাদের মরদেহ আনাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে রংপুর পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।

বিজনেস আওয়ার/১৬ জুলাই, ২০১৯/এ

পাঠকের মতামত: