ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » খেলা » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

কোহলির ক্ষমতা কমাল বিসিসিআই

আপডেট : 2019-07-18 12:08:44
কোহলির ক্ষমতা কমাল বিসিসিআই

স্পোর্টস ডেস্ক : কাপ্তান কোহলির অপছন্দের তালিকায় পড়ে চাকরি ছাড়তে হয় ভারতীয় দলের তৎকালীন কোচ অনিল কুম্বলেকে৷ তাঁর জায়গায় কোচ নির্বাচিত হন রবি শাস্ত্রী।

আর রবি শাস্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার সময়ও কোচ বাছাই নিয়ে নাটক জারি থাকে৷ বীরেন্দ্র সেহওয়াগকে আবেদন করতে বলেও বিসিসিআই কর্তারা বীরুর হাতে নিয়োগপত্র তুলে দিতে পারেননি৷

কোহলির পছন্দের পাত্র শাস্ত্রীই শেষমেশ বাজিমাৎ করেন৷ পরে রাহুল দ্রাবিড় ও জাহির খানকে সাপোর্ট স্টাফ হিসাবে দলে নিতে অস্বীকার করেন হেড কোচ শাস্ত্রী৷ যা নিয়েও বিতর্ক হয় বিস্তর৷

অতীত থেকে শিক্ষা নিয়ে ভারতীয় বোর্ড এবার কোচ বাছাই ঘিরে বেশ কয়েকটা কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ যার মধ্যে অন্যতম হল কোচ নির্বাচনে ক্যাপ্টেনের মতামতকে গুরুত্ব না দেওয়া৷

শাস্ত্রীর ভারতীয় দলের কোচ হওয়ার পিছনে কোহলির সক্রিয় হাত ছিল৷ মূলত কোহলি চেয়েছিলেন বলেই শাস্ত্রী দায়িত্ব পেয়ে যান৷

তবে এবার আর কোচ নির্বাচনে ক্যাপ্টেন কোহলির মতামত গুরুত্ব পাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয় বোর্ডের তরফ থেকে৷

শচীন, সৌরভ ও লক্ষ্মণ ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটি থেকে সরে এসেছেন৷ পরবর্তীতে কপিল দেবের নেতৃত্বে অ্যাড হক কমিটির কাঁধে ভারতের মহিলা দলের কোচ নির্বাচনের দায়িত্ব পড়ে৷

এবার স্বার্থের সংঘাতের প্রশ্ন থাকলেও কপিলরাই বেছে নিতে পারেন কোহলিদের নতুন কোচ৷ এক্ষেত্রে কপিলের মতো ব্যক্তিত্ব নিজের কাজের জন্য বিরাটের মতামত নিতে রাজি হবেন না বলেই ধারণা ক্রিকেটমহলের৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড কর্তা জানান, কপিলদের হাতেই কোচ নির্বাচনের দায়িত্ব পড়তে চলেছে এবং তাদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হিসাবে গণ্য হবে৷ কোচ বাছাইয়ে এবার ক্যাপ্টেনের কোনও ভূমিকা থাকছে না৷

অর্থাৎ, বিরাটের ডানা ছেঁটে দিল বিসিসিআই৷ শাস্ত্রীকে নিয়ে অসন্তোষের বাতাবরণ ভারতীয় ক্রিকেটমহলের একাংশে স্পষ্ট৷ ফলে বিরাটের ভোটে তাঁর চুক্তি বাড়িয়ে নেওয়ার সম্ভাবনা ছিল বিস্তর৷

এর আগে সাপোর্ট স্টাফ নির্বাচনে হেড কোচের যে কোনও ভূমিকা থাকবে না, সে বিষয়টিও স্পষ্ট করে দিয়েছে বোর্ড৷ বিসিসিআই চাইছে ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং কোচ বেছে নিক জাতীয় নির্বাচক কমিটি৷

বিজনেস আওয়ার/১৮ জুলাই, ২০১৯/এ

পাঠকের মতামত: