ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

লেনদেনে শীর্ষে উঠে এসেছে ওষুধ খাত

আপডেট : 2019-08-03 10:30:38
লেনদেনে শীর্ষে উঠে এসেছে ওষুধ খাত

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : বিদায়ী সপ্তাহে (২৮ জুলাই-০১ আগস্ট) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ২ হাজার ২০২ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৪৫৫ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানিগুলোর। বিদায়ী সপ্তাহে এই খাতের কোম্পানিগুলোর টাকার পরিমাণে মোট লেনদেনের ১৪ শতাংশ হয়েছে। এর মাধ্যমে ওষুধ ও রসায়ন খাত সাপ্তাহিক লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে।লংকাবাংলা সিকিউরিটিজসূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বিদায়ী সপ্তাহে খাতের কোম্পানিগুলোর ২৯৭ কোটি ৯৩ লাখ বা মোট লেনদেনের ১৪ শতাংশ হয়েছে। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেনের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে প্রকৌশল খাত। এই খাতের কোম্পানিগুলোর ২৩২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা বা মোট লেনদেনের ১১ শতাংশ হয়েছে। তবে আগের সপ্তাহে প্রথম স্থানে থাকা বীমা খাত বিদায়ী সপ্তাহে তৃতীয় স্থানে নেমে এসেছে। সপ্তাহজুড়ে এই খাতের কোম্পানিগুলোর ২২৮ কোটি ৫২ লাখ টাকা বা মোট লেনদেনের ১০ শতাংশ হয়েছে।

অন্য খাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৯ শতাংশ লেনদেন হয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের কোম্পানিগুলোর। খাতের কোম্পানিগুলোর ১৮৮ কোটি ৫৯ লাখ ৫০ হাজার টাকার; ৮ শতাংশ করে লেনদেন হয়েছে বস্ত্র, মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও বিবিধ খাতের কোম্পানিগুলোর। এই তিন খাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে বস্ত্র খাতের কোম্পানিগুলোর ১৮১ কোটি ৯ লাখ ৫০ হাজার টাকার, মিউচ্যুয়াল ফান্ডে খাতে ১৮০ কোটি ৬ লাখ টাকার ও বিবিধ খাতের কোম্পানিগুলোর ১৭১ কোটি ৬৬ লাখ টাকার; ব্যাংক ও ট্যানারি খাতের কোম্পানিগুলোর ৬ শতাংশ করে। এই দুই খাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে ব্যাংক খাতে ১৩০ কোটি ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকার ও ট্যানারি খাতে ১৩২ কোটি ২৯ লাখ ৫০ হাজার টাকার; তথ্যপ্রযুক্তি, খাদ্য ও সিরামিক খাতের কোম্পানিগুলোর ৪ শতাংশ করে লেনদেন হয়েছে। অর্থাৎ তথ্যপ্রযুক্তি খাতের কোম্পানিগুলোর ৭৬ কোটি ৩৩ লাখ টাকার, খাদ্য খাতে ৭৫ কোটি ২৫ লাখ টাকার ও সিরামিক খাতের কোম্পানিগুলোর ৮৪ কোটি ৭৮ লাখ টাকার; টেলিযোগাযোয় ও অব্যাকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ২ শতাংশ করে লেনদেন হয়েছে। এই দুই খাতের কোম্পানিগুলোর মধ্যে টেলিযোগাযোগ খাতে ৫১ কোটি ৬৪ লাখ ৫০ হাজার টাকার ও অব্যাকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ৩৯ কোটি ১১ লাখ টাকার এবং সিমেন্ট, ভ্রমণ-অবকাশ ও সেবা খাতের কোম্পানিগুলোর মোট লেনদেনের ১ শতাংশ করে হয়েছে। এই তিন খাতের মধ্যে সিমেন্ট খাতে ১৯ কোটি ১৯ লাখ ৫০ হাজার টাকার, ভ্রমণ-অবকাশ খাতে ২৪ কোটি ৯১ লাখ ৫০ হাজার টাকার ও সেবা খাতের কোম্পানিগুলোর সপ্তাহজুড়ে ১৭ কোটি ৫০ লাখ ৫০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

তবে সপ্তাহজুড়ে পেপার ও জুট খাতের কোম্পানিগুলোর লেনদেন শূন্য শতাংশ হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/০৩ আগস্ট, ২০১৯/আরআই/এস

পাঠকের মতামত: