ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

১৭ কোম্পানির শেয়ার নিয়ে সংশয়ে বিনিয়োগকারীরা

আপডেট : 2019-09-02 16:28:42
১৭ কোম্পানির শেয়ার নিয়ে সংশয়ে বিনিয়োগকারীরা

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক:গত দুই বছরে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়েছে ২১ কোম্পানি। এর মধ্যে উচ্চ দরে শেয়ার কিনে ১৭ কোম্পানির বিনিয়োগকারীরা এখন মহাবিপাকে রয়েছেন। উচ্চ দরে শেয়ার কেনায় তাদের মূলধন এখন অর্ধেকেরও নিচে নেমে গেছে। এসব কোম্পানির বিনিয়োগকারীরা এখন লভ্যাংশের দিকে তাকিয়ে আছেন। যদি কোম্পানিগুলো ভালো লভ্যাংশ দেয়, তাহলে শেয়ারগুলোর দর হয়তো বাড়তে পারে এবং কিছুটা হলেও তারা ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার সুযোগ পাবেন।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত দুই বছরে যে ২১টি কোম্পানি পুঁজিবাজারে এসেছে, সেগুলোর মধ্যে ১০টি কোম্পানি লেনদেন শুরুর সময় বিনিয়োগকারীদের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা করেছিল। লভ্যাংশ ঘোষণার মধ্যে ছিল বসুন্ধরা পেপার, এমএল ডাইং, কুইনসাউথ টেক্সটাইল, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, ইন্ট্রাকো সিএনজি, এসকে ট্রীম, এডভেন্ট ফার্মা, আমান কটন ফাইব্রার্স, কাট্টলী টেক্সটাইল ও ইন্দো-বাংলা ফার্মা।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে লভ্যাংশ দিয়েছিল বসুন্ধরা পেপার ২০ শতাংশ (ক্যাশ), এমএল ডাইং ২০ শতাংশ (স্টক), কুইনসাউথ টেক্সটাইল ১৭ শতাংশ (১০ শতাংশ স্টক ও ৭ শতাংশ ক্যাশ), ভিএফএস থ্রেড ডাইং ১৬ শতাংশ (১০ শতাংশ স্টক ও ৬ শতাংশ ক্যাশ), এডভেন্ট ফার্মা ১২ শতাংশ (১০ শতাংশ স্টক ও ২ শতাংশ ক্যাশ), এস কে ট্রীম ১২ শতাংশ (১০ শতাংশ স্টক ও ২ শতাংশ ক্যাশ), আমান কটন ১০ শতাংশ (ক্যাশ), ইন্ট্রাকো সিএনজি ১০ শতাংশ (৫ শতাংশ ক্যাশ ও ৫ শতাংশ স্টক), কাট্টলী টেক্সটাইল ১০ শতাংশ (স্টক) এবং ইন্দো-বাংলা ফার্মা ১০ শতাংশ (স্টক)।

লভ্যাংশ ঘোষণাকে কেন্দ্র করে সে সময় কোম্পানিগুলোর শেয়ার দরে অনেক তেজিভাব দেখা দেয়। লাভের আশায় বিনিয়োগকারীরা উচ্চ দরে এসব কোম্পানির শেয়ার কিনলেও লাভের পরিবর্তে এখন গলার ফাঁস হয়ে আটকে আছে। কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর এখন অর্ধেকে কিংবা তারও নিচে নেমে গেছে। অন্যদিকে, সম্প্রতি বাজারে আসা রানার অটো, এস্কয়ার নিট, সি পার্ল হোটেল এবং কপারটেকের বিনিয়োগকারীরাও প্রায় সবাই লোকসানে রয়েছেন। তবে তাদের চেয়ে বেশি লোকসানে রয়েছে লভ্যাংশ না দেয়া অবশিষ্ট ৭ কোম্পানির বিনিয়োগকারীরা।

আর্থিক প্রতিবেদনে দেখা যায়, বড় ক্ষতিতে থাকা ১৭ কোম্পানির মধ্যে লভ্যাংশ ও মুনাফায় এগিয়ে আছে ভিএফএস থ্রেড ডাইং, এডভেন্ট ফার্মা ও এসকে ট্রীম। কোম্পানি ৩টি গতবছরও ভালো লভ্যাংশ দিয়েছে। এবছরও ভালো মুনাফায় রয়েছে। আশা করা যায় এবছরও কোম্পানিগুলো গত বছরের মতো হয়তো ভালো লভ্যাংশ দিতে পারবে।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে শেয়ারপ্রতি মুনাফার দিক থেকে রয়েছে: এসকে ট্রীম ২.০৫ টাকা, আমান কটন ১.৯৪ টাকা, ভিএফএস থ্রেড ডাইং ১.৮১ টাকা, এডভেন্ট ফার্মা ১.৭৮ টাকা, জেনেক্স ইনফোসিস ১.৭৩ টাকা, এসএস স্টিল ১.৬৩ টাকা, বসুন্ধরা পেপার ১.৫৪ টাকা, নিউ লাইন ১.৪৭ টাকা, কাট্টলী টেক্সটাইল ১.৪৪ টাকা, কুইনসাইথ টেক্সটাইল ১.২৬ টাকা, সিলকো ফার্মা ১.২২ টাকা, ইন্দো-বাংলা ফার্মা ১.০৩ টাকা, এমএল ডাইং ১ টাকা, সিলভা ফার্মা ০.৯৭ টাকা এবং ইন্ট্রাকো সিএনজি ০.৭৫ টাকা।

অন্যদিকে, সম্প্রতি বাজারে আসা কোম্পানিগুলোর মধ্যে রানার অটোর শেয়ারপ্রতি মুনাফা রয়েছে ৩.৭২ টাকা, এস্কয়ার নিটের ২.৭৭ টাকা, সি পার্ল হোটেলের ০.৬১ টাকা এবং কপারটেকের ০.৫৮ টাকা।

ক্ষতিতে থাকা কোম্পানিগুলোর শেয়ারপ্রতি মুনাফা ও ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য ঘোষিত লভ্যাংশ নিচে তুলে ধরা হলো:

ক্রমিক

কোম্পানি

জানুয়ারি-মার্চ ২০১৮

জানুয়ারি-মার্চ ২০১৯

লভ্যাংশ

এসকে ট্রীম

০.৫৬

২.০৫

২ ক্যাশ+১০ স্টক

আমান কটন

১.৯৭

১.৯৪

১০ক্যাশ

ভিএফএস ডাইং

১.৩২

১.৮১

৬ ক্যাশ+১০ স্টক

এডভেন্ট ফার্মা

০.৮৭

১.৭৮

২ ক্যাশ+১০ স্টক

জেনেক্স ইন

১.৪২

১.৭৩

---

এসএস স্টিল

১.০৩

১.৬১

---

বসুন্ধরা পেপার

১.৮৫

১.৫৪

২০ক্যাশ

নিউ লাইন

১.৩৯

১.৪৭

---

কাট্টলী

০.৮১

১.৪৪

১০ স্টক

১০

কুইনসাউথ

০.৯১

১.২৬

৭ ক্যাশ+১০ স্টক

১১

সিলকো ফার্মা

১.২২

১.২২

---

১২

ইন্দো-বাংলা

১.০২

১.০৩

১০ স্টক

১৩

এমএল ডাইং

০.৯০

১.০০

২০ স্টক

১৪

কপারটেক

১.৬২

০.৮৭

---

১৫

সিলভা ফার্মা

০.৭৭

০.৯৭

---

১৬

ইন্ট্রাকো সিএনজি

০.৬৬

০.৭৫

৫ ক্যাশ+৫ স্টক

১৭

সি পার্ল

০.৬৭

০.৬১

---

বিজনেস আওয়ার/এসএম

পাঠকের মতামত: