ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » জাতীয় » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

তিতাসের মৃত্যুতে যুগ্ম সচিবের দায় নেই: তদন্ত প্রতিবেদন

আপডেট : 2019-09-05 22:21:31
তিতাসের মৃত্যুতে যুগ্ম সচিবের দায় নেই: তদন্ত প্রতিবেদন

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ ভিআইপি সুবিধার নামে ফেরি পারাপার প্রায় তিন ঘণ্টা আটকে রাখার কারণে মাঝনদীতে স্কুলছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় যুগ্ম সচিব মো. আব্দুস সবুর মন্ডলকে দায়ী করার কোনো ‘যৌক্তিক কারণ’ নেই। ঘটনা তদন্তে গঠিত সরকারের উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি এমনটি জানিয়েছে। একইসঙ্গে মাদারীপুর জেলার ডিসিরও কোনো দায় খুঁজে পায়নি তদন্ত কমিটি।

এম্বুলেন্সে রোগী থাকার পরও ফেরি ছাড়তে বিলম্ব করার জন্য বরং মুন্সিগঞ্জের কাঠালবাড়ি ফেরি ঘাটের তিন কর্মকর্তাকে দায়ী করা যেতে পারে বলেও তদন্ত কমিটি তার প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে। এই তিন কর্মকর্তা হলেন, ঘাটের ম্যানেজার মো. সালাম হোসেন, ব্যবস্থাপনা সহকারী মো. খোকন মিয়া ও উচ্চমান সহকারী মো. ফিরোজ আলম।

তিতাসের মৃত্যুর পর একটি রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে অতিরিক্তি সচিবের নীচে নন এমন একজনকে প্রধান করে ঘটনাটি তদন্তে কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। এর পরই মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব মো. রেজাউল হাসানকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি করে সরকার। হাইকোর্টে পেশ করার জন্য কমিটি প্রধান আজ তার প্রতিবেদন এটর্নি জেনারেলের অফিসে জমা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, আব্দুস সবুর মণ্ডলের অপেক্ষায় কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে ফেরি ছাড়তে বিলম্ব হওয়ায় গত ২৫ জুলাই অসুস্থ তিতাস ঘোষ (১৩) এম্বুলেন্সেই মারা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্ধারিত সময়ের দুই ঘণ্টা দেরিতে ফেরি ছাড়ার কারণে তিতাসের মৃত্যু হওয়ার কারণে তিনজন দায় এড়াতে পারে না।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, যুগ্ম সচিব আব্দুস সবুর মণ্ডল জানতেন না যে, ফেরিঘাটে মুমূর্ষু রোগী আছে। কোনো ব্যক্তি বিশেষের জন্য কোনোভাবেই ফেরি দেরি করে ছাড়া যাবে না বলে প্রতিবেদনে সুপারিশ করা হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/৫ সেপ্টেম্বর,২০১৯/ আরআই

পাঠকের মতামত: