ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

আসামে ১৯ লাখ মানুষের আবেদন শুনতে বিচার বিভাগীয় ব্যবস্থার দাবি

আপডেট : 2019-09-13 16:32:44
আসামে ১৯ লাখ মানুষের আবেদন শুনতে বিচার বিভাগীয় ব্যবস্থার দাবি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের আসামে নাগরিক পঞ্জিকা থেকে বাদ পড়া ১৯ লাখ মানুষের আবেদন শোনার জন্য বিচার বিভাগীয় ব্যবস্থার দাবি জানিয়েছে দেশটির বাম দলগুলো। নিজেদের সাম্প্রদায়িক স্বার্থ হাসিল করতে বিজেপি এনআরসির চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ করা হয়। এদিকে, তালিকা থেকে নাম বাদ পড়লেও কাউকে 'বিদেশি' ঘোষণা করা হয়নি বলে দাবি দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের।

আসামের গোয়ালপাড়া জেলায় এগিয়ে চলছে জাতীয় নাগরিক পঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়াদের জন্য শরণার্থী শিবির তৈরির কাজ। শিবিরটি আকারে সাতটি ফুটবল মাঠের সমান। এর নির্মাণে যারা কাজ করছেন তাদেরও কয়েকজনের নাম নেই চূড়ান্ত তালিকায়।

তালিকা থেকে বাদ পড়া একজন বলেন, নিজেকে নাগরিক প্রমাণ করতে না পারলে আমাকেও এখানে থাকতে হবে। আমার ছোট বাচ্চাটার কি হবে জানি না।

এদিকে, যত দিন যাচ্ছে ততই উদ্বেগ বাড়ছে এনআরসিতে নাম না থাকা মানুষদের।

এনআরসি থেকে বাদ পড়া একজন উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, এই আসামেই আমাদের আদি নিবাস, আমিই যদি তালিকায় না থাকি, তাহলে কে থাকবে?

আরেকজন বলেন, বংশ পরম্পরায় আমরা এখানে আছি, কিন্তু এখন তারা বলছে আমরা এদেশের নাগরিক না।

এখনো আবেদনের সুযোগ আছে বলে জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার বলেন, তালিকায় যাদের নাম নেই তাদের সবার আবেদনের অধিকার রয়েছে। তারা এখনো দেশহীন হয়ে পড়েনি। এমনকি তাদেরকে বহিরাগত হিসেবে ঘোষণাও দেয়া হয়নি।

এদিকে, এনআরসিতে বাদ যাওয়া মানুষদের জন্য শরণার্থী শিবির তৈরির প্রতিবাদ জানিয়েছে সিপিএমের নেতৃত্বে পাঁচ বাম দল। এক বিবৃতিতে তারা এই পরিকল্পনা বাতিল করে বিচারবিভাগীয় ব্যবস্থায় এনআরসির আবেদন করার দাবি জানিয়েছেন।

শুরু থেকেই আসামে এনআরসির প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেস। প্রতিটি নাগরিককে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে দলটি। এরই ধারাবাহিকতায় রাজ্যজুড়ে মানুষকে সচেতন করতে শুক্রবার মাঠে নেমেছে কংগ্রেস।

বিজনেস আওয়ার/১৩ সেপ্টেম্বর,২০১৯/ আরআই

পাঠকের মতামত: