ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬
sristymultimedia.com

প্রচ্ছদ » শেয়ারবাজার » বিস্তারিত


ss-steel-businesshour24

Runner-businesshour24

কোম্পানিকে শোকজ নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার বিরূপ আচরণ

আপডেট : 2019-09-16 20:06:00
কোম্পানিকে শোকজ নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার বিরূপ আচরণ

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক:শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর দরবৃদ্ধি নিয়ে প্রাথমিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা ঢাকা স্টক একচেঞ্জের (ডিএসই) শোকজ নিয়ে বিরূপ আচরণের অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি বেশ কিছু কোম্পানির দরবৃদ্ধি নিয়ে তথ্য বিশ্লেষণ করে এমন চিত্র ফুটে উঠেছে। এই বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএসইর পক্ষ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে জানা গেছে, গত দুই মাসে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি দর বেড়েছে মুন্নু স্টাফলার্সের। এই সময়ে কোম্পানিটির ৬৪১ টাকা থেকে ২১০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। কিন্তু কোম্পানিটিকে ডিএসইর পক্ষ থেকে মাত্র গত মাসের ২০ তারিখে মাত্র একবার শোকজ করা হয়েছে। এক প্রকার ঘুমেই ছিল ডিএসইর কর্তৃপক্ষ ও সার্ভিলেন্স। একইকথা খাটে মুন্নু সিরামিকের ক্ষেত্রে। মুন্নু সিরামিকের দর ১১৫ টাকা থেকে ২৪০ টাকা হয়েছে। এই কোম্পানির দরবৃদ্ধি নিয়েও ডিএসই দেখে না দেখার ভান করেছে।

গত আগস্ট মাসে স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক নামের কোম্পানির আংশিক উৎপাদন বন্ধের খবর দেওয়া হয়। এরপরও তিন মাসে ১৫০ টাকার কোম্পানির দর এখন ৪৭১.১০ টাকা। কিন্তু ডিএসইর সার্ভিলেন্স এখনও নিশ্চুপ রয়েছে। আলহাজ্ব টেক্সটাইল, স্টাইল ক্রাফট, ওয়াটা কেমিক্যালের মতো কোম্পানির শেয়ারদর আকাশচুম্বী কিন্তু কার চোখে কিছু পড়ছে না।

অভিযোগ রয়েছে, ডিএসইর কর্তৃপক্ষ ও সার্ভিলেন্স অনেক কিছুই দেখে না দেখার ভান করে থাকে। কোন গোষ্টিকে তারা বেশি সুবিধা দিয়ে থাকে।

আব্দুর রাজ্জাক নামের এক বিনিয়োগকারী বলেন, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের মতো বন্ধ কোম্পানির শেয়ার দর এখন ৪৭১.১০ টাকা। কিন্তু রাষ্ট্রায়ত্ব কোম্পানি ন্যাশনাল টিউবের দর একটু বাড়লেই নানা প্রশ্ন উঠছে। এতে বোঝা যায় নিয়ন্ত্রক সংস্থা সবক্ষেত্রে নিরপেক্ষ নয়।

বিজনেস আওয়ার/১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এস

পাঠকের মতামত: