বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ আদালতের সংবাদ প্রকাশে গণমাধ্যমকে আরও সতর্ক থাকতে বলেছেন হাইকোর্ট। এ সময় আদালত বলেন, সাংবাদিকদের প্রতি আমাদের অনেক শ্রদ্ধা। সাংবাদিকরা উচ্চ মর্যাদার অধিকারী। রাষ্ট্র ও সমাজের মুখপাত্র হিসেবে সাংবাদিকদের কাছে আরও দায়িত্বশীলতা প্রত্যাশা করি।

একটি রিটের নিষ্পত্তি করে বুধবার (৭ আগস্ট) হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলী সমন্বয়ে গঠিত অবকাশকালীন দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী একরামুল হক টুটুল।

আইনজীবী একরামুল হক টুটুল বলেন, ‘একজন বিচারপতির প্রটোকল নিয়ে কিছু অনলাইন প্রতিবেদন করেছিল। প্রতিবেদনগুলো চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হলে আদালত এই আদেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি আদালত বলেছেন, প্রটোকল নিয়ে সংবাদ প্রকাশে গণমাধ্যমকে আরও সতর্ক হতে হবে।’

গত বুধবার (৩১ জুলাই) মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ির এক নম্বর ফেরিঘাটে যুগ্ম সচিবের জন্য তিন ঘণ্টা ফেরি দাঁড়িয়ে থাকলে স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে ক্ষতিপূরণ চেয়ে করা রিটে হাইকোর্ট বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ ভিআইপি নয়, বাকিরা সবাই রাষ্ট্রের কর্মচারী।’

এরপর হাইকোর্টের একজন বিচারপতি প্রটোকল চাইলে গত ২ আগস্ট একটি অনলাইনে ‘রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ ভিআইপি নয়, আদেশের পর ভিআইপি প্রটোকল চাইলেন বিচারপতি’, বেসরকারি এক টেলিভিশন চ্যানেলে ‘ডিসির কাছে ভিআইপি প্রটোকল চাইলেন বিচারপতি’, অপর এক অনলাইনে‘হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার পরও ভিআইপি প্রটোকল চাইলেন বিচারপতি’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এ ছাড়া বরিশালের স্থানীয় দুটি অনলাইন পত্রিকায় এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এসব পত্রিকার প্রতিবেদন সংযুক্ত করে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের প্রটোকল নিয়ে প্রতিবেদন তৈরিতে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা রিটে চ্যালেঞ্জ করে আজ বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আইনজীবী মো. শাহিনুর রহমান রিট আবেদনটি করেন। রিটে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রেস কাউন্সিলের সচিবকে বিবাদী করা হয়।

বিজনেস আওয়ার/৭ আগস্ট,২০১৯/আরআই