বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : দুর্নীতির ধারণা সূচক অনুযায়ী বাংলাদেশের স্কোর অপরিবর্তিত থাকলেও এক ধাপ এগিয়েছে। তালিকায় নিচের দিক থেকে ১৩ থেকে ১৪তম অবস্থানে গেছে বাংলাদেশ। ১০০ নম্বরের মাণদণ্ডে এবার বাংলাদেশের স্কোর ২৬। এর আগে ২০১৮ সালেও একই স্কোর ছিল। তালিকার ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪৬তম

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) মাইডাস সেন্টারে বার্লিনভিত্তিক ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই) কর্তৃক পরিচালিত 'দুর্নীতির ধারণা সূচক (সিপিআই) ২০১৯' প্রকাশ অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সকালে রাজধানীর মাইডাস সেন্টারে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সংস্থার নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান।

সূচক অনুযায়ী ২০১৯ সালে বাংলাদেশের অবস্থান সংক্রান্ত ব্যাখ্যায় টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, সিপিআই ২০১৯ অনুযায়ী, ১০০ এর মধ্যে গড় স্কোর ৪৩। সেই বিবেচনায় বাংলাদেশের স্কোর ২৬ হওয়ায় দুর্নীতির ব্যাপকতা এখনও উদ্বেগজনক। সূচকে কিছুটা উন্নতি হয়েছে, তবে তা সন্তোষজনক নয়।

তিনি বলেন, দুর্নীতির ব্যাপকতা ও গভীরতার কারণে বাংলাদেশ দুর্নীতিগ্রস্ত বা বাংলাদেশের অধিবাসীরা সবাই দুর্নীতি করে এই ধরনের ভুল ব্যাখ্যা প্রদান করা হয়। যদিও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও দারিদ্র্য দূরীকরণসহ সর্বোপরি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের পথে কঠিনতম অন্তরায় দুর্নীতি, তথাপি দেশের আপামর জনগণ দুর্নীতিগ্রস্ত নয়। তারা দুর্নীতির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ও ভুক্তভোগী মাত্র। ক্ষমতাবানদের দুর্নীতি ও তা প্রতিরোধে ব্যর্থতার কারণে দেশ বা জনগণকে কোনোভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত বলা যাবে না।

বিজনেস আওয়ার/২৩ জানুয়ারি, ২০২০/এ