বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : দেশে করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দিনদিন বেড়েই চলেছে। প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আজও ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়ছেন আরও ৩৬৬ জন। সুস্থ হয়েছেন আরও ৬৯২ জন। ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে মৃত একই থাকলেও বেড়েছে শনাক্ত রোগী ও সুস্থতার সংখ্যা।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ জনসহ দেশে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে আট হাজার ৩৫৬ জনে। মৃত সাতজনের মধ্যে চারজন পুরুষ ও তিনজন নারী। এদের মধ্যে সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৪ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত সাতজনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে পাঁচজন, রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগে একজন করে দু’জন রয়েছেন। এদের মধ্যে সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরে ঊর্ধ্বে চারজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে দু’জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

করোনা ভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘন্টায় সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২১৪ টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এসময় নমুনা করা সংগ্রহ হয়েছে ১১ হাজার ৫১টি। আগের নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ১০৩টি। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩৬৬ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৪৩ হাজার ৭১৭ জনে।

সোমবারের বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৬৯২ জন। দেশে এ পর্যন্ত করোনা থেকে মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৯২ হাজার ৫৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৫০ শতাংশ।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও এখন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। প্রথম আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার ঠিক ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম কোন রোগীর মৃত্যু হয়। এর মধ্যে গত বছরের ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ।

বিজনেস আওয়ার/২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১/এ