ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবশেষে পরীর সিদ্ধান্তকে মেনে নিলেন রাজ

  • পোস্ট হয়েছে : ০৩:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • 18

বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই সিনেমার তারকা পরীমনি ও শরিফুল রাজের পথ এখন আলাদা। বিয়ের দুই বছর পূর্ণ না হতেই ভেঙে গেছে এ তারকা দম্পতির সংসার। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছেন পরীমনি।

এ প্রসঙ্গে রাজ সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমি কখনো চাই না, আমাদের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে এত চর্চা হোক। না চাইলেও হয়েছে। সেটা হতে পারে পরীর জনপ্রিয়তার কারণেই। ব্যক্তিগত জীবনের বিষয় নিয়ে বিভ্রান্ত হওয়া বা বিতর্ক তৈরির কোনো সুযোগ নেই। আমাদের সম্পর্ক নিয়ে চূড়ান্ত কোনো জায়গায় আমি আগে কখনোই যাইনি। আগামীতেও যাব না। আমি আসলে পরীর সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়েছি। বাকিটা নিয়ম অনুযায়ী হবে। এখন কেউ অন্য কিছু ভাবলে তার ভাবনা আমি কীভাবে কারেকশন করব?’

এর আগে ডিভোর্স লেটার হাতে পেয়ে লিখিত বক্তব্যে রাজ বলেছিলেন, ‘আমার সাবেকের পাঠানো চিঠি হাতে পেয়েছি। আলহামদুলিল্লাহ তার এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছি। তাকে (পরীমনি) ধন্যবাদ দিতে চাই আমাকে আমার জীবনের সেরা অর্জন রাজ্যকে উপহার দেওয়ার জন্য।রাজ্যের জন্য যা কিছু ভালো বাবা হিসাবে আজীবন তা করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর গোপনে একে অপরকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বিয়ে করেন পরীমনি ও রাজ। তবে খবরটি প্রকাশ্যে আনেন ২০২২ সালের ১০ জানুয়ারি। একই দিন আরও ঘোষণা করেন, সন্তান আসছে তাদের ঘরে। এরপর ২২ জানুয়ারি পারিবারিক আয়োজনে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতাও করেন তারা। গত বছরের ১০ আগস্ট পরীমনির কোলজুড়ে আসে রাজ্য। সন্তান জন্মের বছর খানেকের মাথায় ভেঙে গেল রাজ-পরীর সংসার।

বিজনেসে আওয়ার/২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩/এএইচএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

অবশেষে পরীর সিদ্ধান্তকে মেনে নিলেন রাজ

পোস্ট হয়েছে : ০৩:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই সিনেমার তারকা পরীমনি ও শরিফুল রাজের পথ এখন আলাদা। বিয়ের দুই বছর পূর্ণ না হতেই ভেঙে গেছে এ তারকা দম্পতির সংসার। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছেন পরীমনি।

এ প্রসঙ্গে রাজ সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমি কখনো চাই না, আমাদের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে এত চর্চা হোক। না চাইলেও হয়েছে। সেটা হতে পারে পরীর জনপ্রিয়তার কারণেই। ব্যক্তিগত জীবনের বিষয় নিয়ে বিভ্রান্ত হওয়া বা বিতর্ক তৈরির কোনো সুযোগ নেই। আমাদের সম্পর্ক নিয়ে চূড়ান্ত কোনো জায়গায় আমি আগে কখনোই যাইনি। আগামীতেও যাব না। আমি আসলে পরীর সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়েছি। বাকিটা নিয়ম অনুযায়ী হবে। এখন কেউ অন্য কিছু ভাবলে তার ভাবনা আমি কীভাবে কারেকশন করব?’

এর আগে ডিভোর্স লেটার হাতে পেয়ে লিখিত বক্তব্যে রাজ বলেছিলেন, ‘আমার সাবেকের পাঠানো চিঠি হাতে পেয়েছি। আলহামদুলিল্লাহ তার এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছি। তাকে (পরীমনি) ধন্যবাদ দিতে চাই আমাকে আমার জীবনের সেরা অর্জন রাজ্যকে উপহার দেওয়ার জন্য।রাজ্যের জন্য যা কিছু ভালো বাবা হিসাবে আজীবন তা করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর গোপনে একে অপরকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বিয়ে করেন পরীমনি ও রাজ। তবে খবরটি প্রকাশ্যে আনেন ২০২২ সালের ১০ জানুয়ারি। একই দিন আরও ঘোষণা করেন, সন্তান আসছে তাদের ঘরে। এরপর ২২ জানুয়ারি পারিবারিক আয়োজনে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতাও করেন তারা। গত বছরের ১০ আগস্ট পরীমনির কোলজুড়ে আসে রাজ্য। সন্তান জন্মের বছর খানেকের মাথায় ভেঙে গেল রাজ-পরীর সংসার।

বিজনেসে আওয়ার/২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩/এএইচএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: