ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্ধারিত দরের চেয়েও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে ডলার

  • পোস্ট হয়েছে : ০৯:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩
  • 16

বিজনেস আওয়ার ডেস্কঃ দেশে বেশ কিছুদিন ধরে চলছে ডলার সংকট। এ অবস্থায় খোলাবাজারে বিক্রেতারা ইচ্ছে মতো বেশি দামে ক্রয় করছেন ডলার। ফলে ডলারের দাম কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত দরের চেয়ে ১৫ টাকা বেশি দামেও খোলাবাজারে বিক্রি হচ্ছে ডলার। এমন অবস্থায় বিদেশি এ মুদ্রাটির দাম নিয়ন্ত্রণে মানি চেঞ্জার অ্যাসোসিয়েশনকে বাজার মনিটরিংয়ের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে মানি চেঞ্জার অ্যাসোসিয়েশনের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে সংগঠনটিকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে বৈঠকে অংশ নেন ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্টের নির্বাহী পরিচালক সারোয়ার হোসেন।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে মানি চেঞ্জার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হেলাল শিকদার বলেন, গতকাল কয়েকজন বেশি দামে ডলার বিক্রি করেছে, এমন অভিযোগ ছিল। বাংলাদেশ ব্যাংক এখন আমাদের মনিটরিং করতে বলেছে।

তিনি জানান, কেন্দ্রীয় বাংক মানি এক্সচেঞ্জ হাউজগুলোকে ডলার বিক্রি করতে বলেছে ১১৫ টাকা ৫০ পয়সায়। কেউ যেন এর থেকে বেশি দামে ডলার বিক্রি না করে সেটি খেয়াল রাখতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

হেলাল শিকদার বলেন, ১২০ টাকা বা ১২২ টাকায় যারা ডলার কিনছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক তাদের ধরতে বলেছে। আর অনলাইনে যারা বেশি দরে ডলার বেচাকেনা করছে তাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংক ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে। এটা হলে তো ভালোই হবে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স, বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলার অ্যাসোসিয়েশন (বাফেদা) প্রবাসী আয়ের দাম প্রণোদনাসহ সর্বোচ্চ ১১৬ টাকা নির্ধারণ করে দেয়। এরপরই খোলাবাজারে মার্কিন ডলার ১২৮ টাকা দরে লেনদেনের রেকর্ড করে৷ এমন অবস্থায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে ডলারের বাজার নিয়ন্ত্রণে হস্তক্ষেপ চায় এবিবি। এরপর গত দুইদিনে খোলাবাজারে ডলারের দাম কিছুটা কমেছে। গতকাল (রোববার) মার্কিন মুদ্রাটি লেনদেন হয়েছিল ১২৩ টাকা দরে।

বিজনেস আওয়ার/এএইচএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

নির্ধারিত দরের চেয়েও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে ডলার

পোস্ট হয়েছে : ০৯:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩

বিজনেস আওয়ার ডেস্কঃ দেশে বেশ কিছুদিন ধরে চলছে ডলার সংকট। এ অবস্থায় খোলাবাজারে বিক্রেতারা ইচ্ছে মতো বেশি দামে ক্রয় করছেন ডলার। ফলে ডলারের দাম কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্ধারিত দরের চেয়ে ১৫ টাকা বেশি দামেও খোলাবাজারে বিক্রি হচ্ছে ডলার। এমন অবস্থায় বিদেশি এ মুদ্রাটির দাম নিয়ন্ত্রণে মানি চেঞ্জার অ্যাসোসিয়েশনকে বাজার মনিটরিংয়ের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে মানি চেঞ্জার অ্যাসোসিয়েশনের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে সংগঠনটিকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে বৈঠকে অংশ নেন ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্টের নির্বাহী পরিচালক সারোয়ার হোসেন।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে মানি চেঞ্জার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হেলাল শিকদার বলেন, গতকাল কয়েকজন বেশি দামে ডলার বিক্রি করেছে, এমন অভিযোগ ছিল। বাংলাদেশ ব্যাংক এখন আমাদের মনিটরিং করতে বলেছে।

তিনি জানান, কেন্দ্রীয় বাংক মানি এক্সচেঞ্জ হাউজগুলোকে ডলার বিক্রি করতে বলেছে ১১৫ টাকা ৫০ পয়সায়। কেউ যেন এর থেকে বেশি দামে ডলার বিক্রি না করে সেটি খেয়াল রাখতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

হেলাল শিকদার বলেন, ১২০ টাকা বা ১২২ টাকায় যারা ডলার কিনছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক তাদের ধরতে বলেছে। আর অনলাইনে যারা বেশি দরে ডলার বেচাকেনা করছে তাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংক ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে। এটা হলে তো ভালোই হবে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স, বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলার অ্যাসোসিয়েশন (বাফেদা) প্রবাসী আয়ের দাম প্রণোদনাসহ সর্বোচ্চ ১১৬ টাকা নির্ধারণ করে দেয়। এরপরই খোলাবাজারে মার্কিন ডলার ১২৮ টাকা দরে লেনদেনের রেকর্ড করে৷ এমন অবস্থায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে ডলারের বাজার নিয়ন্ত্রণে হস্তক্ষেপ চায় এবিবি। এরপর গত দুইদিনে খোলাবাজারে ডলারের দাম কিছুটা কমেছে। গতকাল (রোববার) মার্কিন মুদ্রাটি লেনদেন হয়েছিল ১২৩ টাকা দরে।

বিজনেস আওয়ার/এএইচএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: