ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভিডিও কনফারেন্সে শপথ নেবেন ১৮ বিচারপতি

  • পোস্ট হয়েছে : ১২:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মে ২০২০
  • 18

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া ১৮ জন বিচারকের শপথ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পড়াবেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। শনিবার (৩০ মে) বিকেল ৩টায় এই শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠিত হবে। এ কারণে পূর্ব নির্ধারিত ফুল কোর্ট সভা বতিল করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৯ মে) সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো.আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে সুপ্রিম কোর্টসহ দেশের সব আদালতে সাধারণ ছুটির মেয়াদের শেষের দিন শনিবার বিকেল ৩টায় ভিডিও কনফারেন্সে ফুল কোর্ট (সব বিচারপতিদের অংশগ্রহণে সভা) সভা ডেকেছিলেন প্রধান বিচারপতি। ২৮ মে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এর মধ্যে ২৯ মে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের ১৮ জন অতিরিক্ত বিচারককে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে পরামর্শক্রমে স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। শুক্রবার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এ নিয়োগ শপথ নেয়ার তারিখ থেকে কার্যকর হবে। এর আগে ২০১৮ সালের ৩০ মে তাদের অতিরিক্ত বিচারক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি। পরের দিন অর্থাৎ ৩১ মে বিকেলে সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে তারা শপথ নেন। নিয়মানুযায়ী এর দুই বছর পরে গতকাল ২৯ মে তারা স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ পেলেন।

হাইকোর্টের ১৮ বিচারক হলেন- বিচারপতি মো. আবু আহমেদ জমাদার, বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিন, বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান, বিচারপতি ফাতেমা নজীব, বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লা, বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান, বিচারপতি মো. আতোয়ার রহমান, বিচারপতি খিজির হায়াত, বিচারপতি শশাঙ্ক শেখর সরকার, বিচারপতি মোহাম্মদ আলী, বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীম, বিচারপতি মো. রিয়াজ উদ্দিন খান, বিচারপতি মো. খায়রুল আলম, বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামান, বিচারপতি আহমেদ সোহেল, বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীর, বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামান ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলম।

বিজনেস আওয়ার/৩০ মে, ২০২০/কমা

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

ভিডিও কনফারেন্সে শপথ নেবেন ১৮ বিচারপতি

পোস্ট হয়েছে : ১২:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মে ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া ১৮ জন বিচারকের শপথ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পড়াবেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। শনিবার (৩০ মে) বিকেল ৩টায় এই শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠিত হবে। এ কারণে পূর্ব নির্ধারিত ফুল কোর্ট সভা বতিল করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৯ মে) সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো.আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে সুপ্রিম কোর্টসহ দেশের সব আদালতে সাধারণ ছুটির মেয়াদের শেষের দিন শনিবার বিকেল ৩টায় ভিডিও কনফারেন্সে ফুল কোর্ট (সব বিচারপতিদের অংশগ্রহণে সভা) সভা ডেকেছিলেন প্রধান বিচারপতি। ২৮ মে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এর মধ্যে ২৯ মে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের ১৮ জন অতিরিক্ত বিচারককে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে পরামর্শক্রমে স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। শুক্রবার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এ নিয়োগ শপথ নেয়ার তারিখ থেকে কার্যকর হবে। এর আগে ২০১৮ সালের ৩০ মে তাদের অতিরিক্ত বিচারক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি। পরের দিন অর্থাৎ ৩১ মে বিকেলে সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে তারা শপথ নেন। নিয়মানুযায়ী এর দুই বছর পরে গতকাল ২৯ মে তারা স্থায়ী বিচারক হিসেবে নিয়োগ পেলেন।

হাইকোর্টের ১৮ বিচারক হলেন- বিচারপতি মো. আবু আহমেদ জমাদার, বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মোবিন, বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান, বিচারপতি ফাতেমা নজীব, বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লা, বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান, বিচারপতি মো. আতোয়ার রহমান, বিচারপতি খিজির হায়াত, বিচারপতি শশাঙ্ক শেখর সরকার, বিচারপতি মোহাম্মদ আলী, বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীম, বিচারপতি মো. রিয়াজ উদ্দিন খান, বিচারপতি মো. খায়রুল আলম, বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামান, বিচারপতি আহমেদ সোহেল, বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীর, বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামান ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলম।

বিজনেস আওয়ার/৩০ মে, ২০২০/কমা

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: