ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসে নিহত ১৫

  • পোস্ট হয়েছে : ১১:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
  • 32

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসে ১৫ জন নিহত হয়েছেন। বৈরী আবহাওয়ার কারণে শনিবার রাতে দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের পাহাড়ি অঞ্চল তানা তরাজায় ভূমিধসের এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন। কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিবেনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, বৈরী আবহাওয়া ও রাস্তা-ঘাটের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় ঠিকমতো উদ্ধারকাজ চালানো যাচ্ছে না। তবে এরই মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে বিশেষ পদ্ধতিতে ধসে যাওয়া এলাকায় প্রাণে সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা। তানা তরাজা ও এর আশপাশের এলাকায় গত সপ্তাহজুড়ে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে এ ভূমিধস ঘটেছে।

ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় পুলিশ প্রধান গুনার্দি মুন্দু বলেন, শনিবার মধ্যরাতের কিছু সময় আগে গ্রামের একটি ঘরে পারিবারিক আয়োজন চলছিল। এসময় পাহাড় থেকে ধসে আসা কাদামাটিতে গ্রামের কিছু অংশ একদম চাপা পড়ে যায়।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার মুখপাত্র আবদুল মুহারি এক বিবৃতিতে বলেছেন, অতি বৃষ্টির কারণে এই ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। ভূমিধসে তানা তরাজা এলাকার দুটি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ও চারটি ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। দুর্যোগ আক্রান্ত ওই এলাকাটি পাহাড়ি হওয়ার কারণে উদ্ধারকারীদের সেখানে পৌঁছানো কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যেই উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে প্রাণের সন্ধানে বিশেষ পদ্ধতিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

স্থানীয় দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার প্রধান সুলায়মান মাইলা রোববার বার্তা সংস্থা এএফপি এজেন্সিকে জানিয়েছেন, ভূমিধসের ঘটনায় মোট ১৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে ১৫ জনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

বিজনেস আওয়ার/১৫ এপ্রিল/ রহমান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসে নিহত ১৫

পোস্ট হয়েছে : ১১:১১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসে ১৫ জন নিহত হয়েছেন। বৈরী আবহাওয়ার কারণে শনিবার রাতে দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের পাহাড়ি অঞ্চল তানা তরাজায় ভূমিধসের এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন আরো বেশ কয়েকজন। কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিবেনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, বৈরী আবহাওয়া ও রাস্তা-ঘাটের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় ঠিকমতো উদ্ধারকাজ চালানো যাচ্ছে না। তবে এরই মধ্যে ঝুঁকি নিয়ে বিশেষ পদ্ধতিতে ধসে যাওয়া এলাকায় প্রাণে সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা। তানা তরাজা ও এর আশপাশের এলাকায় গত সপ্তাহজুড়ে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে এ ভূমিধস ঘটেছে।

ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় পুলিশ প্রধান গুনার্দি মুন্দু বলেন, শনিবার মধ্যরাতের কিছু সময় আগে গ্রামের একটি ঘরে পারিবারিক আয়োজন চলছিল। এসময় পাহাড় থেকে ধসে আসা কাদামাটিতে গ্রামের কিছু অংশ একদম চাপা পড়ে যায়।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার মুখপাত্র আবদুল মুহারি এক বিবৃতিতে বলেছেন, অতি বৃষ্টির কারণে এই ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। ভূমিধসে তানা তরাজা এলাকার দুটি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ও চারটি ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। দুর্যোগ আক্রান্ত ওই এলাকাটি পাহাড়ি হওয়ার কারণে উদ্ধারকারীদের সেখানে পৌঁছানো কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যেই উদ্ধারকারীরা ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে প্রাণের সন্ধানে বিশেষ পদ্ধতিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

স্থানীয় দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার প্রধান সুলায়মান মাইলা রোববার বার্তা সংস্থা এএফপি এজেন্সিকে জানিয়েছেন, ভূমিধসের ঘটনায় মোট ১৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে ১৫ জনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।

বিজনেস আওয়ার/১৫ এপ্রিল/ রহমান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: