ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

একই পরিবারের ৫ জনের প্রাণ গেলো ফরিদপুরের দুর্ঘটনাই

  • পোস্ট হয়েছে : ০১:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪
  • 25

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক: ফরিদপুরে বাস ও পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৩ জনের মধ্যে পাঁচজন একই পরিবারের।

মঙ্গলবার(১৬ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে শহরতলীর কানাইপুর ইউনিয়নের দিকনগর তেঁতুলতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

একই পরিবারের নিহত পাঁচজন হলেন ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার বেজিডাঙ্গা গ্রামের রফিক মোল্লা (৩৫), তার স্ত্রী সুমি বেগম (২৩), দুই ছেলে রুহান মোল্লা (৬), হাবিব মোল্লা (৩) ও মা (৬৩)।
নিহত রফিক ঢাকায় একটি সরকারি অফিসে লিফটম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ঈদের ছুটি শেষে করে তিনি মা, স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে পিকআপযোগে ঢাকায় যাচ্ছিলেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে মাগুরাগামী ইউনিক পরিবহনের সঙ্গে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থেকে আসা একটি পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে ১১ জন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজন ও পরে একজন মারা যান। এর ভেতর একজনের নাম মর্জিনা বেগম।

হাইওয়ে মাদারীপুর রিজিওনের পুলিশ সুপার শাহিনুল আলম খান জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। পাঁচ জনের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিস্তারিত তথ্য পরবর্তীতে জানানো যাবে।

মা-স্ত্রী-দুই ছেলে নিয়ে ঢাকা ফিরছিলেন রফিক, পথে গেলো ৫ জনের প্রাণ

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) কামরুল আহসান তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। একইসঙ্গে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা এবং আহতদের প্রত্যেককে তিন লাখ টাকা করে সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে।

বিজনেস আওয়ার/১৬ এপ্রিল/ রহমান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

একই পরিবারের ৫ জনের প্রাণ গেলো ফরিদপুরের দুর্ঘটনাই

পোস্ট হয়েছে : ০১:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক: ফরিদপুরে বাস ও পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৩ জনের মধ্যে পাঁচজন একই পরিবারের।

মঙ্গলবার(১৬ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে শহরতলীর কানাইপুর ইউনিয়নের দিকনগর তেঁতুলতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

একই পরিবারের নিহত পাঁচজন হলেন ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার বেজিডাঙ্গা গ্রামের রফিক মোল্লা (৩৫), তার স্ত্রী সুমি বেগম (২৩), দুই ছেলে রুহান মোল্লা (৬), হাবিব মোল্লা (৩) ও মা (৬৩)।
নিহত রফিক ঢাকায় একটি সরকারি অফিসে লিফটম্যান হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ঈদের ছুটি শেষে করে তিনি মা, স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে পিকআপযোগে ঢাকায় যাচ্ছিলেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে মাগুরাগামী ইউনিক পরিবহনের সঙ্গে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থেকে আসা একটি পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে ১১ জন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজন ও পরে একজন মারা যান। এর ভেতর একজনের নাম মর্জিনা বেগম।

হাইওয়ে মাদারীপুর রিজিওনের পুলিশ সুপার শাহিনুল আলম খান জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। পাঁচ জনের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিস্তারিত তথ্য পরবর্তীতে জানানো যাবে।

মা-স্ত্রী-দুই ছেলে নিয়ে ঢাকা ফিরছিলেন রফিক, পথে গেলো ৫ জনের প্রাণ

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) কামরুল আহসান তালুকদার বলেন, এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। একইসঙ্গে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা এবং আহতদের প্রত্যেককে তিন লাখ টাকা করে সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে।

বিজনেস আওয়ার/১৬ এপ্রিল/ রহমান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: