ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিল্পী সমিতির ভোট দিতে এসে যা বললেন অনন্ত জলিল

  • পোস্ট হয়েছে : ০৭:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪
  • 34

বিনোদন ডেস্ক: ঢালিউড অঙ্গনে অনন্ত জলিলকে কম-বেশি সবাই পছন্দ করেন। অভিনয়ের বাইরেও তারকাদের নিয়ে যে কোনো উদ্যেগে, কর্মকাণ্ডে পাশে থাকেন তিনি। যে কারণে অনন্তের ডাকে ছুটে আসেন সহশিল্পীরা।

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট দিতে এসে শিল্পী সমিতির থেকে সিনেমা চলচ্চিত্র নির্মাণে কথা জানিয়ে অনন্ত জলিল বললেন, ‘নির্বাচনের পর যারা জয়ী হবেন তাদের সবার সঙ্গে বসে আলোচনা করব।

সামনে শিল্পী সমিতির নির্বাচন করবেন কি না জানান চাইলে অনন্ত জলিল বলেন, আমি এতো বড় মানুষ না। আমি চাই সিনেমা কিভাবে উন্নয়ন করা যায়। সেই ব্যাপারে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করতে চাই।

এ সময় অন্তত জলিলের সঙ্গে ছিলেন অভিনেত্রী বর্ষা, নির্মাতা মো.ইকবাল। এবারে দ্বি-বার্ষিক মেয়াদের এ নির্বাচনের মেয়াদ ২০২৪ থেকে ২০২৬। ২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির এ নির্বাচনে ৬ জন স্বতন্ত্রসহ ২টি প্যানেল থেকে ৪৮ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। একটি মিশা-ডিপজল পরিষদ, অন্যটি কলি-নিপুণ পরিষদ।

এর মধ্যে সভাপতি পদে লড়ছেন এক সময়ের জনপ্রিয় নায়ক মাহমুদ কলি ও দাপুটে খল-অভিনেতা মিশা সওদাগর। আর সাধারণ সম্পাদক পদে গেলো আসরের মতো এবারও প্রার্থী হয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। তার বিপরীতে দাঁড়িয়েছেন অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

বিজনেস আওয়ার/১৯ এপ্রিল/ এ এইচ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

শিল্পী সমিতির ভোট দিতে এসে যা বললেন অনন্ত জলিল

পোস্ট হয়েছে : ০৭:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

বিনোদন ডেস্ক: ঢালিউড অঙ্গনে অনন্ত জলিলকে কম-বেশি সবাই পছন্দ করেন। অভিনয়ের বাইরেও তারকাদের নিয়ে যে কোনো উদ্যেগে, কর্মকাণ্ডে পাশে থাকেন তিনি। যে কারণে অনন্তের ডাকে ছুটে আসেন সহশিল্পীরা।

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট দিতে এসে শিল্পী সমিতির থেকে সিনেমা চলচ্চিত্র নির্মাণে কথা জানিয়ে অনন্ত জলিল বললেন, ‘নির্বাচনের পর যারা জয়ী হবেন তাদের সবার সঙ্গে বসে আলোচনা করব।

সামনে শিল্পী সমিতির নির্বাচন করবেন কি না জানান চাইলে অনন্ত জলিল বলেন, আমি এতো বড় মানুষ না। আমি চাই সিনেমা কিভাবে উন্নয়ন করা যায়। সেই ব্যাপারে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করতে চাই।

এ সময় অন্তত জলিলের সঙ্গে ছিলেন অভিনেত্রী বর্ষা, নির্মাতা মো.ইকবাল। এবারে দ্বি-বার্ষিক মেয়াদের এ নির্বাচনের মেয়াদ ২০২৪ থেকে ২০২৬। ২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির এ নির্বাচনে ৬ জন স্বতন্ত্রসহ ২টি প্যানেল থেকে ৪৮ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। একটি মিশা-ডিপজল পরিষদ, অন্যটি কলি-নিপুণ পরিষদ।

এর মধ্যে সভাপতি পদে লড়ছেন এক সময়ের জনপ্রিয় নায়ক মাহমুদ কলি ও দাপুটে খল-অভিনেতা মিশা সওদাগর। আর সাধারণ সম্পাদক পদে গেলো আসরের মতো এবারও প্রার্থী হয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। তার বিপরীতে দাঁড়িয়েছেন অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

বিজনেস আওয়ার/১৯ এপ্রিল/ এ এইচ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: