1. [email protected] : Asim : Asim
  2. [email protected] : anis : anis
  3. [email protected] : Admin : Admin
  4. [email protected] : Nayan Babu : Nayan Babu
  5. [email protected] : Polash : Polash
  6. [email protected] : Rajowan : Rajowan
  7. [email protected] : Riyad : Riyad
  8. [email protected] : sattar miazi : sattar miazi
ক্রিকেটকে বিদায় বলেলেন উমর গুল
শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

ক্রিকেটকে বিদায় বলেলেন উমর গুল

  • পোস্ট হয়েছে : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক: সবধরনের ক্রিকেটকে বিদায় বলেদিয়েছেন পাকিস্তানি পেসার উমর গুল। শুক্রবার পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে সাউদার্ন পাঞ্জাবের কাছে নক আউট পর্বে বেলুচিস্তান হারার পর উমর গুল অবসরের ঘোষণা দেন।

২০০৩ সালের এপ্রিলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় গুলের। একই বছরের আগস্টে করাচিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেকও হয়ে যায় তার। টেস্টে ৪৭ ম্যাচ খেলে ৩৪.০৬ গড়ে ১৬৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি। ১৩০ ওয়ানডেতে ২৯.৩৪ গড়ে তার ঝুলিতে আছে ১৭৯টি উইকেট।

বোলিংয়ে গুলের সবচেয়ে বড় অস্ত্র ছিল ইয়র্কার। তার পারফেক্ট ইয়র্কার ব্যাটসম্যানদের জন্য রীতিমত দুঃস্বপ্নের কারণ ছিল। এজন্য টি-টোয়েন্টিতে তার গুরুত্ব ছিল অনেক বেশি। এই ফরম্যাটে তার সাফল্যও বেশি। জাতীয় দলের জার্সিতে ৬০ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ১৬.৯৭ গড়ে তার উইকেটসংখ্যা ৮৫টি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম দুই আসরে পাকিস্তানের সাফল্যের পেছনে অন্যতম অনুঘটক ছিলেন গুল। ২০০৭-এর আসরে রানার্সআপ হওয়া পাকিস্তান পরের আসরেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। ২০০৭ সালের আসরে ১৩ উইকেট নিয়ে বোলারদের তালিকায় শীর্ষে ছিলেন গুল। দুই বছর পর সমান উইকেট নিয়ে একই কীর্তির পুনরাবৃত্তি করেন তিনি। ধারাবাহিকতার এমন উদাহরণ সত্যিই বিরল।

শুধু তাই না, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তার অবিশ্বাস্য ফাস্ট বোলিংয়ের স্মৃতি ক্রিকেটভক্তদের মনে বহুদিন টিকে থাকবে। ওই ম্যাচে ৩ ওভার বল করে মাত্র ৬ রানে ৫ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন এই ডানহাতি। ২০১৫ বিশ্বকাপে উপেক্ষিত হওয়ার পরও পাকিস্তান ওয়ানডে দলে ফেরার লড়াই চালিয়ে গিয়েছিলেন গুল। সর্বশেষ ২০১৬ সালে সর্বশেষ পাকিস্তানের জার্সিতে খেলতে দেখা গেছে তাকে

বিজনেস আওয়ার/১৭ অক্টোবর, ২০২০/এ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
এ বিভাগের আরো সংবাদ