ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে

  • পোস্ট হয়েছে : ০৯:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪
  • 101

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: ইউক্রেনের স্থলবাহিনীর কমান্ডার ওলেকসান্দর পাভলিউক বলেছেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে তাঁদের ২৬ মাস ধরে চলা লড়াই একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, আগামী দুই মাসের মধ্যে এ গুরুত্বপূর্ণ ধাপ শুরু হবে। গতকাল শুক্রবার প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেছেন। ইউক্রেনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অস্ত্র সরবরাহে দেরি হওয়াকে রাশিয়া যখন সুযোগ হিসেবে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে, তখনই এমন মন্তব্য করলেন পাভলিউক।

দ্য ইকোনমিস্ট সাময়িকীকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পাভলিউক বলেন, ‘রাশিয়া জানে যে আমরা এক বা দুই মাসের মধ্যে যদি যথেষ্ট অস্ত্র পেয়ে যাই, তবে পরিস্থিতি তাদের প্রতিকূলে চলে যাবে।’

কয়েক মাস ধরে ইউক্রেনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র সরবরাহের গতি ধীর হয়ে আছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রস্তাবিত একটি সহায়তা প্যাকেজও কংগ্রেসে অনুমোদন না পাওয়ায় আটকে ছিল। গত মাসে সহায়তা প্যাকেজটি অনুমোদন পেয়েছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শুক্রবার বলেছেন, ভবিষ্যতে ইউক্রেনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্রের সরবরাহ যথাসময়ে হওয়া প্রয়োজন।

দ্য ইকোনমিস্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পাভলিউক বলেছেন, তিনি মনে করেন ইউক্রেনের আরও বেশি আকাশ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম প্রয়োজন। এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের কাঙ্ক্ষিত সরবরাহ পেলে তাঁদের অস্ত্রভান্ডার সমৃদ্ধ হবে।

পাভলিউক আরও মনে করেন, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে উপযোগী পদক্ষেপ নির্ধারণ করার আগে রাশিয়া দেশটির (ইউক্রেনের) সক্ষমতা পরীক্ষা করছে।

পাভলিউকের সাক্ষাৎকারটি উত্তর-পূর্ব খারকিভ অঞ্চলে শুক্রবার রাশিয়ার হামলার আগে।

বিজনেস আওয়ার/১১ মে/ হাসান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে

পোস্ট হয়েছে : ০৯:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: ইউক্রেনের স্থলবাহিনীর কমান্ডার ওলেকসান্দর পাভলিউক বলেছেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে তাঁদের ২৬ মাস ধরে চলা লড়াই একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, আগামী দুই মাসের মধ্যে এ গুরুত্বপূর্ণ ধাপ শুরু হবে। গতকাল শুক্রবার প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেছেন। ইউক্রেনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অস্ত্র সরবরাহে দেরি হওয়াকে রাশিয়া যখন সুযোগ হিসেবে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে, তখনই এমন মন্তব্য করলেন পাভলিউক।

দ্য ইকোনমিস্ট সাময়িকীকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পাভলিউক বলেন, ‘রাশিয়া জানে যে আমরা এক বা দুই মাসের মধ্যে যদি যথেষ্ট অস্ত্র পেয়ে যাই, তবে পরিস্থিতি তাদের প্রতিকূলে চলে যাবে।’

কয়েক মাস ধরে ইউক্রেনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র সরবরাহের গতি ধীর হয়ে আছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রস্তাবিত একটি সহায়তা প্যাকেজও কংগ্রেসে অনুমোদন না পাওয়ায় আটকে ছিল। গত মাসে সহায়তা প্যাকেজটি অনুমোদন পেয়েছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি শুক্রবার বলেছেন, ভবিষ্যতে ইউক্রেনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্রের সরবরাহ যথাসময়ে হওয়া প্রয়োজন।

দ্য ইকোনমিস্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পাভলিউক বলেছেন, তিনি মনে করেন ইউক্রেনের আরও বেশি আকাশ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম প্রয়োজন। এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের কাঙ্ক্ষিত সরবরাহ পেলে তাঁদের অস্ত্রভান্ডার সমৃদ্ধ হবে।

পাভলিউক আরও মনে করেন, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে উপযোগী পদক্ষেপ নির্ধারণ করার আগে রাশিয়া দেশটির (ইউক্রেনের) সক্ষমতা পরীক্ষা করছে।

পাভলিউকের সাক্ষাৎকারটি উত্তর-পূর্ব খারকিভ অঞ্চলে শুক্রবার রাশিয়ার হামলার আগে।

বিজনেস আওয়ার/১১ মে/ হাসান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: