ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শূকরের কিডনি ও হার্ট পাম্প প্রতিস্থাপন করা প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু

  • পোস্ট হয়েছে : ০৫:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪
  • 33

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: শরীরে জেন এডিটেড শূকরের কিডনি ও মেকানিক্যাল হার্ট পাম্প প্রতিস্থাপন করা প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। রোববার (৭ জুলাই) লিসা পিসানো নামের এই নারীর মৃত্যু হয়। এনওয়াইইউ ল্যাগন হেল্থ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এখানেই তার অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল।

জানা গেছে, গত ১২ এপ্রিল তার শরীরে অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়। কিন্তু সীমিত রক্ত প্রবাহের করণে সে প্রক্রিয়া ব্যর্থ হয়। এরপর ২৯ মে তার শরীর থেকে নতুন অঙ্গ সরিয়ে ফেলা হয়।

এনওয়াইইউ ল্যাগন ট্র্যান্সপ্ল্যান্ট ইন্সটিটিউটের পরিচালক ডা. রবার্ট মোন্টগোমারি এক বিবৃতিতে বলেছেন, পিসানো ছিলেন একজন সাহসী ও উদার মনের মানুষ।

অঙ্গ প্রতিস্থাপনের পর এক সংবাদ সম্মেলনে পিসানো বলেছিলেন, এই অঙ্গ প্রতিস্থাপন যদি আমার শরীরে কাজ না করে, তাহলে এটি পরবর্তী কারো জন্য ব্যবহার হতে পারে।

তিনি বলেছিলেন, অন্তত কেউ একজন এই অঙ্গ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে সুবিধা পাবে।

মোন্টগোমারি মঙ্গলবার বলেছেন, মেডিসিন, সার্জারি ও অন্যপ্রাণীর অঙ্গ প্রতিস্থাপনের ক্ষেত্রে লিসার অবদান অস্বীকার করা যাবে না। লিসা আমাদের এমন একটি ভবিষৎ উপলদ্ধির কাছে নিয়ে গেছেন যেখানে একজনকে বাঁচানোর জন্য অন্য আরেকজনকে মরতে হবে না।

অর্গান প্রকিউরমেন্ট অ্যান্ড ট্রান্সপ্লান্টেশন নেটওয়ার্কের তথ্য অনুযায়ী, প্রতি আট মিনিটে অন্য একজন ব্যক্তি অঙ্গ প্রতিস্থাপনের জন্য অপেক্ষমান তালিকায় যুক্ত হন এবং এই তালিকা থেকে প্রতিদিন ১৭ জন মানুষ মারা যান।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, অঙ্গদাতাদের যে ঘাটতি রয়েছে তা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে অন্যান্য প্রাণী।

ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রিশনের অনুমোদন নিয়ে মার্কিন চিকিৎসকরা বিরল ঘটনার ক্ষেত্রে এ ধরনের প্রতিস্থাপন কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন।

সূত্র: সিএনএন

বিজনেস আওয়ার/ ১০ জুলাই /হাসান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

শূকরের কিডনি ও হার্ট পাম্প প্রতিস্থাপন করা প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু

পোস্ট হয়েছে : ০৫:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: শরীরে জেন এডিটেড শূকরের কিডনি ও মেকানিক্যাল হার্ট পাম্প প্রতিস্থাপন করা প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। রোববার (৭ জুলাই) লিসা পিসানো নামের এই নারীর মৃত্যু হয়। এনওয়াইইউ ল্যাগন হেল্থ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এখানেই তার অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল।

জানা গেছে, গত ১২ এপ্রিল তার শরীরে অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়। কিন্তু সীমিত রক্ত প্রবাহের করণে সে প্রক্রিয়া ব্যর্থ হয়। এরপর ২৯ মে তার শরীর থেকে নতুন অঙ্গ সরিয়ে ফেলা হয়।

এনওয়াইইউ ল্যাগন ট্র্যান্সপ্ল্যান্ট ইন্সটিটিউটের পরিচালক ডা. রবার্ট মোন্টগোমারি এক বিবৃতিতে বলেছেন, পিসানো ছিলেন একজন সাহসী ও উদার মনের মানুষ।

অঙ্গ প্রতিস্থাপনের পর এক সংবাদ সম্মেলনে পিসানো বলেছিলেন, এই অঙ্গ প্রতিস্থাপন যদি আমার শরীরে কাজ না করে, তাহলে এটি পরবর্তী কারো জন্য ব্যবহার হতে পারে।

তিনি বলেছিলেন, অন্তত কেউ একজন এই অঙ্গ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে সুবিধা পাবে।

মোন্টগোমারি মঙ্গলবার বলেছেন, মেডিসিন, সার্জারি ও অন্যপ্রাণীর অঙ্গ প্রতিস্থাপনের ক্ষেত্রে লিসার অবদান অস্বীকার করা যাবে না। লিসা আমাদের এমন একটি ভবিষৎ উপলদ্ধির কাছে নিয়ে গেছেন যেখানে একজনকে বাঁচানোর জন্য অন্য আরেকজনকে মরতে হবে না।

অর্গান প্রকিউরমেন্ট অ্যান্ড ট্রান্সপ্লান্টেশন নেটওয়ার্কের তথ্য অনুযায়ী, প্রতি আট মিনিটে অন্য একজন ব্যক্তি অঙ্গ প্রতিস্থাপনের জন্য অপেক্ষমান তালিকায় যুক্ত হন এবং এই তালিকা থেকে প্রতিদিন ১৭ জন মানুষ মারা যান।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, অঙ্গদাতাদের যে ঘাটতি রয়েছে তা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে অন্যান্য প্রাণী।

ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রিশনের অনুমোদন নিয়ে মার্কিন চিকিৎসকরা বিরল ঘটনার ক্ষেত্রে এ ধরনের প্রতিস্থাপন কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকেন।

সূত্র: সিএনএন

বিজনেস আওয়ার/ ১০ জুলাই /হাসান

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: