1. [email protected] : Asim : Asim
  2. [email protected] : anis : anis
  3. [email protected] : Admin : Admin
  4. [email protected] : Nayan Babu : Nayan Babu
  5. [email protected] : Polash : Polash
  6. [email protected] : Rajowan : Rajowan
  7. [email protected] : Riyad : Riyad
  8. [email protected] : sattar miazi : sattar miazi
চাল আমদানিতে এলসি খোলার সময়সীমা বাড়ল
রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৫:৪৫ অপরাহ্ন

চাল আমদানিতে এলসি খোলার সময়সীমা বাড়ল

  • পোস্ট হয়েছে : শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : বেসরকারি ভাবে চাল আমদানির জন্য বরাদ্দপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান কর্তৃক লেটার অব ক্রেডিট (এলসি) খোলার সময়সীমা ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়িয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। এর আগে লাগামহীন চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নেয়।

এ প্রসঙ্গে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, বেসরকারি পর্যায়ে চাল আমদানির শর্তে বরাদ্দপত্র ইস্যুর সাত দিনের মধ্যে ঋণপত্র (এলসি) খোলার নিয়ম ছিলো। সেটা এখন ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত করা হলো। সময় বাড়ানোর কারণ হলো যাতে আমদানিকারকরা তাড়াহুড়া না করে আস্তে ধীরে চাল আমদানি করতে পারে।

খাদ্য মন্ত্রণালয় সর্বশেষ ১৭ জানুয়ারি ৬৩টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ৯১ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছিলো। এ পর্যন্ত পাঁচ দফায় বেসরকারিভাবে মোট ৮ লাখ ৭৩ হাজার ৫০০ টন চাল আমদানির অনুমতি দিলো সরকার।

চাল আমদানির শর্তে বলা হয়েছে, বরাদ্দপত্র ইস্যুর সাত দিনের মধ্যে ঋণপত্র (এলসি) খুলতে হবে। এ সংক্রান্ত তথ্য খাদ্য মন্ত্রণালয়কে তাৎক্ষণিক ই-মেইলে জানাতে হবে। ব্যবসায়ীদের মধ্যে যারা এক থেকে পাঁচ হাজার টন বরাদ্দ পেয়েছেন, তাদের এলসি খোলার ১০ দিনের মধ্যে ৫০ শতাংশ এবং ২০ দিনের মধ্যে বাকি চাল বাজারজাত করতে হবে।

এছাড়া যেসব প্রতিষ্ঠান পাঁচ হাজার থেকে ১০ হাজার টন পর্যন্ত বরাদ্দ পেয়েছে, তাদের এলসি খোলার ১৫ দিনের মধ্যে ৫০ শতাংশ এবং ৩০ দিনের মধ্যে বাকি ৫০ শতাংশ চাল এনে বাজারজাত করতে হবে বলে শর্ত দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। বরাদ্দের অতিরিক্ত আইপি (ইমপোর্ট পারমিট) ইস্যু করা যাবে না বলেও শর্ত দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে গত ৩ জানুয়ারি ১০ প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ পাঁচ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। এরপর ৪ জানুয়ারি আরও ১৯ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে দুই লাখ ২৫ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দেওয়া হয়।

অন্যদিকে গত ৬ জানুয়ারি ৪৯টি প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ ৭৪ হাজার ৫০০ টন এবং ১০ জানুয়ারি ৬৪টি প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ ৭১ হাজার ৫০০ টন চাল আমদানির অনুমতি দেওয়া হয়। এছাড়া গত ১৩ জানুয়ারি ৪৩ প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৬ হাজার ৫০০ টন চাল আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। সর্বশেষ ১৭ জানুয়ারি আরও ৬৩ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে ৯১ হাজার টন চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/২৩ জানুয়ারি, ২০২১/এ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
এ বিভাগের আরো সংবাদ
lanka-bangla-ibroker-businesshour24