ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এফডিআরের লক্ষ্যে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের আইপিওতে আবেদন শুরু

  • পোস্ট হয়েছে : ১২:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০
  • 22

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : তারল্য সংকটের শেয়ারবাজার থেকে এফডিআরের লক্ষ্যে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে আজ (১৪ জুন)। যা চলবে ১৮ জুন পর্যন্ত।

চলমান তারল্য সংকটের মধ্যেই অযৌক্তিক কারনে শেয়ারবাজার থেকে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স ২৬ কোটি ৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা সংগ্রহ করবে। যে কোম্পানির শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তিতে উপকার নেই। বরং তারল্য সংকটের সৃষ্টি করবে। বিনিয়োগকারীরা নিজেরাই যেখানে বিনিয়োগ করতে পারে, সেখানে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে বড় অংশ ব্যাংকে এফডিআর করবে।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে উত্তোলনযোগ্য টাকার ১৯ কোটি ৩৬ লাখ ৩২ হাজার টাকা বা ৭৪.২৫ শতাংশ এফডিআর করবে। ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা আইপিওতে ব্যয় হবে। অথচ এই কোম্পানির হাতেই ৫৪ কোটি ১২ লাখ টাকা নগদ রয়েছে। এরমধ্যে ৪৯ কোটি ৪৯ লাখ টাকা এফডিআর, ব্যাংক হিসাবে ৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা, ব্রোকারেজ হাউজে নগদ ১ কোটি ১৪ লাখ টাকা ও কোম্পানিতে নগদ ২১ লাখ টাকা রয়েছে।

এছাড়া কোম্পানিটি ক্যাপিটাল মার্কেটে বিনিয়োগ করবে ৫ কোটি ২১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা। এরমধ্যে সরকারি ট্রেজারি বন্ডে বিনিয়োগ করবে ২ কোটি টাকা। আর মিউচ্যুয়াল ফান্ডে ১ কোটি টাকা ও ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানিতে ২ কোটি ২১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা বিনিয়োগ করবে।

এর আগে কোম্পানিটির আইপিওতে গত ১৩ এপ্রিল আবেদন গ্রহণ শুরু করার জন্য নির্ধারন করা হয়েছিল। তবে করোনাভাইরাস ইস্যুতে দেশের শেয়ারবাজার ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকার কারনে আবেদন গ্রহণ শুরু করা সম্ভব হয়নি।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৭১৯তম সভায় কোম্পানিটিকে আইপিওর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, আইআইডিএফসি ক্যাপিটাল এবং বিএলআই ক্যাপিটাল লিমিটেড।

উল্লেখ্য, ইলেকট্রনিক সাবস্ক্রিপশন সিস্টেমে (ইএসএস) কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে অংশগ্রহনে ইচ্ছুক প্রত্যেক যোগ্য বিনিয়োগকারীকে ইএসএস শুরুর পূর্বের ৫ম কার্যদিবস শেষে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজে কমপক্ষে ১ কোটি টাকা বিনিয়োগ থাকতে হবে।

বিজনেস আওয়ার/১৩ জুন, ২০২০/পিএস

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

এফডিআরের লক্ষ্যে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের আইপিওতে আবেদন শুরু

পোস্ট হয়েছে : ১২:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : তারল্য সংকটের শেয়ারবাজার থেকে এফডিআরের লক্ষ্যে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে আজ (১৪ জুন)। যা চলবে ১৮ জুন পর্যন্ত।

চলমান তারল্য সংকটের মধ্যেই অযৌক্তিক কারনে শেয়ারবাজার থেকে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স ২৬ কোটি ৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা সংগ্রহ করবে। যে কোম্পানির শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তিতে উপকার নেই। বরং তারল্য সংকটের সৃষ্টি করবে। বিনিয়োগকারীরা নিজেরাই যেখানে বিনিয়োগ করতে পারে, সেখানে এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে বড় অংশ ব্যাংকে এফডিআর করবে।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে উত্তোলনযোগ্য টাকার ১৯ কোটি ৩৬ লাখ ৩২ হাজার টাকা বা ৭৪.২৫ শতাংশ এফডিআর করবে। ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা আইপিওতে ব্যয় হবে। অথচ এই কোম্পানির হাতেই ৫৪ কোটি ১২ লাখ টাকা নগদ রয়েছে। এরমধ্যে ৪৯ কোটি ৪৯ লাখ টাকা এফডিআর, ব্যাংক হিসাবে ৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা, ব্রোকারেজ হাউজে নগদ ১ কোটি ১৪ লাখ টাকা ও কোম্পানিতে নগদ ২১ লাখ টাকা রয়েছে।

এছাড়া কোম্পানিটি ক্যাপিটাল মার্কেটে বিনিয়োগ করবে ৫ কোটি ২১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা। এরমধ্যে সরকারি ট্রেজারি বন্ডে বিনিয়োগ করবে ২ কোটি টাকা। আর মিউচ্যুয়াল ফান্ডে ১ কোটি টাকা ও ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানিতে ২ কোটি ২১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা বিনিয়োগ করবে।

এর আগে কোম্পানিটির আইপিওতে গত ১৩ এপ্রিল আবেদন গ্রহণ শুরু করার জন্য নির্ধারন করা হয়েছিল। তবে করোনাভাইরাস ইস্যুতে দেশের শেয়ারবাজার ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকার কারনে আবেদন গ্রহণ শুরু করা সম্ভব হয়নি।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৭১৯তম সভায় কোম্পানিটিকে আইপিওর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে এএএ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, আইআইডিএফসি ক্যাপিটাল এবং বিএলআই ক্যাপিটাল লিমিটেড।

উল্লেখ্য, ইলেকট্রনিক সাবস্ক্রিপশন সিস্টেমে (ইএসএস) কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে অংশগ্রহনে ইচ্ছুক প্রত্যেক যোগ্য বিনিয়োগকারীকে ইএসএস শুরুর পূর্বের ৫ম কার্যদিবস শেষে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজে কমপক্ষে ১ কোটি টাকা বিনিয়োগ থাকতে হবে।

বিজনেস আওয়ার/১৩ জুন, ২০২০/পিএস

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: