ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যে দুই রোগে করোনায় আক্রান্তের ঝুঁকি মারাত্মক

  • পোস্ট হয়েছে : ০৪:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০
  • 19

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের কোনও ভ্যাকসিন বা টিকা এখনও পর্যন্ত আবিষ্কৃত হয়নি। যাদের ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে, তারা আছেন সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে। এ ছাড়া ৫০ বছরের বেশি বয়সী পুরুষদের করোনার মৃত্যুঝুঁকি বেশি।

অত্যন্ত ছোঁয়াচে এই রোগে মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। যারা দীর্ঘদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিসে ভুগছেন, তাদের জন্য করোনা মারাত্মক হয়ে ওঠার সম্ভাবনা প্রবল। বয়স যদি ৬৫ বছরের বেশি হয় এবং তিনি যদি ধূমপায়ী হন, তা হলে সংক্রমণ মারাত্মক হয়ে জীবনঝুঁকি হতে পারে।

সম্প্রতি একটি গবেষণা সুত্রে জানা গেছে, ৬৯ উত্তীর্ণ পুরুষ যারা ধূমপায়ী এবং অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের রোগী, তাদের নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ও মৃত্যুহার সব থেকে বেশি। এ কারণেই চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা বিশেষ সতর্কতা নেয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন।

আসলে করোনা ভাইরাস অত্যন্ত ছোঁয়াচে, যা হাঁচি, কাশি, লালা ও সর্দির সাহায্যে বাতাসবাহিত হয়ে ছড়িয়ে পড়ে। আক্রান্ত মানুষটির হাঁচি, কাশি, নাক ঝাড়া থেকে। তিনি নাকে মুখে হাত দিয়ে সুস্থ মানুষের সংস্পর্শে এলে অন্যজনের শরীরে এই ভাইরাস দ্রুত বংশ বিস্তার করে। সূত্র:আনন্দবাজার।

বিজনেস আওয়ার/১৩ জুন, ২০২০/এ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

যে দুই রোগে করোনায় আক্রান্তের ঝুঁকি মারাত্মক

পোস্ট হয়েছে : ০৪:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের কোনও ভ্যাকসিন বা টিকা এখনও পর্যন্ত আবিষ্কৃত হয়নি। যাদের ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে, তারা আছেন সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে। এ ছাড়া ৫০ বছরের বেশি বয়সী পুরুষদের করোনার মৃত্যুঝুঁকি বেশি।

অত্যন্ত ছোঁয়াচে এই রোগে মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। যারা দীর্ঘদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিসে ভুগছেন, তাদের জন্য করোনা মারাত্মক হয়ে ওঠার সম্ভাবনা প্রবল। বয়স যদি ৬৫ বছরের বেশি হয় এবং তিনি যদি ধূমপায়ী হন, তা হলে সংক্রমণ মারাত্মক হয়ে জীবনঝুঁকি হতে পারে।

সম্প্রতি একটি গবেষণা সুত্রে জানা গেছে, ৬৯ উত্তীর্ণ পুরুষ যারা ধূমপায়ী এবং অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের রোগী, তাদের নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ও মৃত্যুহার সব থেকে বেশি। এ কারণেই চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা বিশেষ সতর্কতা নেয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন।

আসলে করোনা ভাইরাস অত্যন্ত ছোঁয়াচে, যা হাঁচি, কাশি, লালা ও সর্দির সাহায্যে বাতাসবাহিত হয়ে ছড়িয়ে পড়ে। আক্রান্ত মানুষটির হাঁচি, কাশি, নাক ঝাড়া থেকে। তিনি নাকে মুখে হাত দিয়ে সুস্থ মানুষের সংস্পর্শে এলে অন্যজনের শরীরে এই ভাইরাস দ্রুত বংশ বিস্তার করে। সূত্র:আনন্দবাজার।

বিজনেস আওয়ার/১৩ জুন, ২০২০/এ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: