ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা: খাবারের গন্ধ না পেলে যা করবেন

  • পোস্ট হয়েছে : ০৪:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুন ২০২০
  • 17

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে, তাতে করে এটি কোথায় গিয়ে থামবে তা বুঝতে পারছেন না গবেষকরাও। এমন অবস্থায় অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেরেও যাচ্ছে, হয়তো তার টেস্টই করা হয়নি। তেমন কোনো উপসর্গ না হওয়ায় তারা ডাক্তারের পরামর্শও নেন না। এমন আক্রান্তের সংখ্যা কিন্তু কম নয়।

যেহেতু এই রোগটা ছোঁয়াচে, এজন্য এদের মাধ্যমে করোনা আরও দ্রুত ছড়াতে পারে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। করোনা আক্রান্তের খুব সহজ উপসর্গ হচ্ছে খাবারের ঘ্রাণ না পাওয়া। জাপানের আইচি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ও চিকিৎসক ডা. শরীফ মহিউদ্দিন বলেন, এই ঘ্রাণ না পাওয়াকে বলা হয় অ্যানোসমিয়া।

বলা হয়, ঘ্রাণেই অর্ধেক ভোজন। খাবারের গন্ধই আমাদের খাবার খাওয়ার আগ্রহ বাড়িয়ে দেয়। এই ঘ্রাণ শক্তি ফিরে পেতে সাহায্য করে ‌প্রকৃতিতে এমন চারটি উপাদান রয়েছে। এগুলো হচ্ছে গোলাপ, ইউক্যালিপটাস, লবঙ্গ,ও লেবুর ফুলের গন্ধ। এগুলোর ঘ্রাণ নিলে দ্রুত খাবারের গন্ধ বুঝতে পারবেন।

এই ফুলগুলো না পাওয়া গেলে গন্ধ নিতে পারেন এগুলোর নির্যাস অ্যাসেন্সিয়াল অয়েলের। আর তাও যদি সম্ভব না হয় তবে লেবু ও গোলাপ ফুলের গন্ধযুক্ত সাবানও কাজে দেবে। আর এই ঘ্রাণশক্তি এক সপ্তাহ থেকে দুই মাসের মধ্যেই ফিরে আসে। এর জন্য আলাদা করে ওষুধ খাওয়ার প্রয়োজন নেই।

করোনার প্রাথমিক উপসর্গ এটি। যদি কারো খাবারের বা অন্য কিছুর ঘ্রাণ পেতে সমস্যা হয়, প্রথমেই নিজেকে আলাদা রাখতে হবে। যেন করোনা হলে অন্যদের মধ্যে না ছড়ায়। আর অবহেলা না করে করোনা পজিটিভ কিনা টেস্ট করিয়ে নিয়ে চিকিৎসকের অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে।

বিজনেস আওয়ার/২০ জুন, ২০২০/এ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

করোনা: খাবারের গন্ধ না পেলে যা করবেন

পোস্ট হয়েছে : ০৪:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুন ২০২০

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে, তাতে করে এটি কোথায় গিয়ে থামবে তা বুঝতে পারছেন না গবেষকরাও। এমন অবস্থায় অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেরেও যাচ্ছে, হয়তো তার টেস্টই করা হয়নি। তেমন কোনো উপসর্গ না হওয়ায় তারা ডাক্তারের পরামর্শও নেন না। এমন আক্রান্তের সংখ্যা কিন্তু কম নয়।

যেহেতু এই রোগটা ছোঁয়াচে, এজন্য এদের মাধ্যমে করোনা আরও দ্রুত ছড়াতে পারে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। করোনা আক্রান্তের খুব সহজ উপসর্গ হচ্ছে খাবারের ঘ্রাণ না পাওয়া। জাপানের আইচি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ও চিকিৎসক ডা. শরীফ মহিউদ্দিন বলেন, এই ঘ্রাণ না পাওয়াকে বলা হয় অ্যানোসমিয়া।

বলা হয়, ঘ্রাণেই অর্ধেক ভোজন। খাবারের গন্ধই আমাদের খাবার খাওয়ার আগ্রহ বাড়িয়ে দেয়। এই ঘ্রাণ শক্তি ফিরে পেতে সাহায্য করে ‌প্রকৃতিতে এমন চারটি উপাদান রয়েছে। এগুলো হচ্ছে গোলাপ, ইউক্যালিপটাস, লবঙ্গ,ও লেবুর ফুলের গন্ধ। এগুলোর ঘ্রাণ নিলে দ্রুত খাবারের গন্ধ বুঝতে পারবেন।

এই ফুলগুলো না পাওয়া গেলে গন্ধ নিতে পারেন এগুলোর নির্যাস অ্যাসেন্সিয়াল অয়েলের। আর তাও যদি সম্ভব না হয় তবে লেবু ও গোলাপ ফুলের গন্ধযুক্ত সাবানও কাজে দেবে। আর এই ঘ্রাণশক্তি এক সপ্তাহ থেকে দুই মাসের মধ্যেই ফিরে আসে। এর জন্য আলাদা করে ওষুধ খাওয়ার প্রয়োজন নেই।

করোনার প্রাথমিক উপসর্গ এটি। যদি কারো খাবারের বা অন্য কিছুর ঘ্রাণ পেতে সমস্যা হয়, প্রথমেই নিজেকে আলাদা রাখতে হবে। যেন করোনা হলে অন্যদের মধ্যে না ছড়ায়। আর অবহেলা না করে করোনা পজিটিভ কিনা টেস্ট করিয়ে নিয়ে চিকিৎসকের অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে।

বিজনেস আওয়ার/২০ জুন, ২০২০/এ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: