1. [email protected] : Asim : Asim
  2. [email protected] : anis : anis
  3. [email protected] : Admin : Admin
  4. [email protected] : Polash : Polash
  5. [email protected] : Rajowan : Rajowan
  6. [email protected] : Riyad : Riyad
বিএসইসি গঠনের পরে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর ৭৭টি অভিহিত মূল্যের নিচে, বর্তমান কমিশনের ২২টি
শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০৯:০৯ অপরাহ্ন

বিএসইসি গঠনের পরে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর ৭৭টি অভিহিত মূল্যের নিচে, বর্তমান কমিশনের ২২টি

রেজোয়ান আহমেদ
  • পোস্ট হয়েছে : রবিবার, ১০ মে, ২০২০
Bsec-tower-Businesshour24.com

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) গঠনের ২৭ বছরে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৭৭টি অভিহিত মূল্যের নিচে অবস্থান করছে। এরমধ্যে বর্তমান কমিশনের ৯ বছরে তালিকাভুক্ত হয়েছে এমন কোম্পানির সংখ্যা ২২টি। আর বাকি ৫৫ কোম্পানি পূর্বের ১৮ বছরের।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিএসইসি ১৯৯৩ সালে গঠনের পরে শেয়ারবাজারে ২৮৪ কোম্পানি তালিকাভুক্ত হয়েছে (তালিকাচ্যুত ব্যতিত)। এরমধ্যে ৭৭টি বা ২৭.১১ শতাংশ কোম্পানি অভিহিত মূল্যের নিচে অবস্থান করছে। এই ৭৭ কোম্পানির মধ্যে বর্তমান কমিশনের সময়কালীন তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানির সংখ্যা ২২টি বা ৭.৭৫ শতাংশ। আর পূর্বের ১৮ বছরের ৫৫টি বা ১৯.৩৭ শতাংশ।

অভিহিত মূল্যের নিচে থাকা কোম্পানিগুলোর মধ্যে কমিশন গঠনের প্রথম ৯ বছরে তালিকাভুক্ত হওয়া ৩২ কোম্পানি রয়েছে। এছাড়া দ্বিতীয় ৯ বছরে ২৩টি এবং বর্তমান কমিশনের ২২টি এই তালিকায় রয়েছে।

এদিকে শেয়ারবাজারে কমিশন গঠনের পরে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে ২৮৪টি এখন শেয়ারবাজারে রয়েছে। তবে গত বছরের রহিমা ফুড ও মডার্ণ ডাইংসহ এ পর্যন্ত শেয়ারবাজারের ইতিহাসে যোগ্যতার অভাবে ৩৮টি কোম্পানি তালিকাচ্যুত বা শেয়ারবাজার থেকে বিতাড়িত করা হয়েছে। এরমধ্যে কমিশন গঠনের প্রথম ১৮ বছরে রহিমা ফুডসহ তালিকাভুক্ত হওয়া কিছু কোম্পানি রয়েছে। যেগুলোর এখন আর কোন হদিস নেই। যেগুলোর অভিহিত মূল্যের নিচে তো দূরের কথা, কোন মূল্যই নেই।

১৯৯৩ সালে বিএসইসি গঠন হওয়ার পরে তালিকাভুক্ত থাকা ২৮৪ কোম্পানির মধ্যে ওভার দ্য কাউন্টার মার্কেটে (ওটিসি) চলে গেছে ৩৫টি। এরমধ্যে প্রথম ৯ বছরে তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানিগুলোর ৩৩টি ও দ্বিতীয় ৯ বছরে তালিকাভুক্ত হওয়া ২টি এই মার্কেটে রয়েছে। যেসব কোম্পানির অস্তিত্ব প্রায় বিলীন। ওই কোম্পানিগুলোর মধ্যে ২৬টি অভিহিত মূল্যের নিচে অবস্থান করছে।

এদিকে কমিশন গঠনের প্রথম ১৮ বছরের ৩৫ কোম্পানি ওটিসি ক্যাটাগরিতে যাওযার সঙ্গে সঙ্গে ২৭টি ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে পতিত হয়েছে। এই ২৭টির মধ্যে কমিশন গঠন হওয়ার প্রথম ৯ বছরের ১৫টি ও দ্বিতীয় ৯ বছরের ১২টি রয়েছে। এছাড়া বর্তমান কমিশনের ১১টি এই ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে রয়েছে।

নিম্নে কমিশন গঠন হওয়ার প্রথম ১৮ বছরে তালিকাভুক্ত হয়ে অভিহিত মূল্যের নিচে চলে আসা কোম্পানিগুলোর চিত্র তুলে ধরা হল-

কোম্পানির নামবাজার দর (টাকা)
এক্সেলিসিওর সুজ১.৩২
মডার্ণ সিমেন্ট১.৪০
বিডি লাগেজ১.৪০
ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ১.৪০
বিডি জিপার১.৭
মেঘনা শার্ম্প কালচার১.৮৫
রাসপিট ইনকরপোরেশন বিডি১.৯০
বায়োনিক সী ফুড
বাংলাদেশ ডাইং২.২৩
বিআইএফসি২.৬০
কেয়া কসমেটিকস২.৬০
চিক টেক্স২.৭০
পিপলস লিজিং
ম্যাক এন্টারপ্রাইজ৩.০৫
ঢাকা ডাইং৩.১০
বেক্সিমকো সিনথেটিক্স৩.২০
গাছিহাটা অ্যাকুয়া কালচার৩.৩৫
এম. হোসাইন গার্মেন্টস৩.৪০
ডেল্টা স্পিনার্স৩.৫০
রাসপিট ডাটা ম্যানেজমেন্ট৩.৫০
জার্মান বাংলা জেভি ফুড৩.৬০
আরএন স্পিনিং৩.৭০
মোনা ফুড
ফাঁস ফাইন্যান্স৪.১০
ইন্টারন্যাশনাল লিজিং৪.২০
আল-আমিন কেমিক্যাল৪.২০
ইউনিয়ন ক্যাপিটাল৪.৮০
প্রিমিয়ার লিজিং৪.৯০
ওয়ান্ডারল্যান্ড টয়েজ
ম্যাকসন্স স্পিনিং৫.১০
ফার্স্ট ফাইন্যান্স৫.১০
এপেক্স ওয়েভিং৫.২০
ডায়নামিক টেক্সটাইল৫.২৩
গোল্ডেন সন৫.৭০
ড্যান্ডি ডাইং৫.৮০
পারফিউম কেমিক্যাল৫.৯০
প্রাইম ফাইন্যান্স
আজাদি প্রিন্টার্স৬.০
মিতা টেক্সটাইল৬.০
বাংলাদেশ ইলেকট্রিসিটি৬.১৫
আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং৬.৫০
ফু-ওয়াং সিরামিক৬.৭০
বেঙ্গল ফাইন সিরামিকস৬.৭
মিথুন নিটিং৬.৮০
অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ৭.৮০
বিডি ফাইন্যান্স৭.৯০
শাইনপুকুর সিরামিকস
মেট্রো স্পিনিং৮.৫০
ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক৮.৮০
স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক৮.৮০
মেঘনা পেট৯.২০
ওয়ান ব্যাংক৯.৪০
শ্রী পুর টেক্সটাইল৯.৫০
মাইডাস ফাইন্যান্সিং৯.৬০
এক্সিম ব্যাংক৯.৬০

বর্তমান কমিশনের আইপিওর মধ্যে অভিহিত মূল্যের নিচে নেমে আসা কোম্পানিগুলো হচ্ছে-

কোম্পানির নামবাজার দর (টাকা)
সিঅ্যান্ডএ টেক্সটাইল১.৭০
ফেমিলিটেক্স বিডি১.৮০
তুং হাই নিটিং অ্যান্ড ডাইং
জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশন২.২০
ফারইস্ট ফাইন্যান্স২.৪০
এ্যাপোলো ইস্পাত২.৯০
জাহিনটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ৩.৬০
খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ৬.২০
জাহিন স্পিনিং৬.৩০
রিং সাইন৬.৪০
অলিম্পিক এক্সেসরিজ৬.৮০
নূরানি ডাইং অ্যান্ড সোয়েটার৭.৭০
মোজাফ্ফর হোসাইন স্পিনিং৭.৮০
রিজেন্ট টেক্সটাইল মিলস৭.৮০
ইভিন্স টেক্সটাইল৮.২০
প্যাসিফিক ডেনিমস৮.৫০
ন্যাশনাল ফিড মিল৮.৮০
ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডাইং৮.৮০
কাট্টালি টেক্সটাইল৯.৩০
ড্রাগণ সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং৯.৫০
এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ৯.৫০
ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ৯.৯০

উল্লেখ্য, এখনো ওটিসি মার্কেটের অনেক কোম্পানির অভিহিত মূল্য ১০০ টাকা রয়েছে। সেসব কোম্পানির মধ্যে যেগুলো ১০০ টাকা বা অভিহিত মূল্যের নিচে, সেগুলোকে ১০ টাকা বিবেচনায় হিসাব করে দেখানো হয়েছে। যেমন শার্ম্প কালচারের অভিহিত মূল্য ১০০ টাকা এবং বাজার দর আছে ১৮.৫০ টাকা। এই শেয়ারটিকে ১০ টাকার অন্যসব শেয়ারের সঙ্গে বিবেচনার সুবিধার্থে ১০ টাকা অভিহিত মূল্য বিবেচনায় বাজার দর ১.৮৫ টাকা দেখানো হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/১০ মে, ২০২০/আরএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের আরো সংবাদ