1. [email protected] : Anissuzzaman : Anissuzzaman
  2. [email protected] : anjuman : anjuman
  3. [email protected] : Admin : Admin
  4. [email protected] : Nayan Babu : Nayan Babu
  5. [email protected] : Polash : Polash
  6. [email protected] : Shahin Alam : Shahin Alam
২১৫ কোম্পানির ৮৫৬৫ কোটি টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা
শুক্রবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন

২১৫ কোম্পানির ৮৫৬৫ কোটি টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা

ইব্রাহিম হোসাইন (রেজোয়ান)
  • পোস্ট হয়েছে : বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২
print sharing button

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত জুন ক্লোজিং কোম্পানিগুলোর পরিচালনা পর্ষদ ২০২১-২২ অর্থবছরের ব্যবসায় ৮ হাজার ৫৬৫ কোটি টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। গত ১ জুলাই থেকে ০৫ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত কোম্পানিগুলোর পরিচালনা পর্ষদ সভায় এই ঘোষণা করা হয়েছে। যা বার্ষিক সাধারন সভায় (এজিএম) স্ব স্ব কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিক্রমে প্রদান করা হবে। কিন্তু এই লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের ব্যাংক হিসাবে দেওয়ার কারনে তা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের আসার সম্ভাবনা খুবই কম থাকে। এ কারনে কমিশন নগদ লভ্যাংশ ব্যাংকের পরিবর্তে বিও হিসাবে পাঠানোর চিন্তা-ভাবনা করছে।

কোম্পানিগুলোর পর্ষদের ঘোষিত লভ্যাংশ অনুমোদনের জন্য প্রায় সব কোম্পানির এজিএম ডিসেম্বরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। এরপরে জানুয়ারির মধ্যে শেয়ারহোল্ডারদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে তা পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

এই ব্যাংক হিসাবে নগদ লভ্যাংশ পাঠানোর কারনে তা আর শেয়ারবাজারে ফিরে আসে না বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। কারন হিসেবে তারা বলেন, ব্যাংকে হিসাবে লভ্যাংশ চলে গেলে সেটা আবার ব্রোকারেজ হাউজে জমা দিতে ঝামেলা মনে করাটা স্বাভাবিক। এছাড়া অলসতা করেও অনেক ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বিওতে দিতে চাইবে না। এছাড়া আমাদের শেয়ারবাজারে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী বেশি এবং তারা লভ্যাংশও পায় ছোট আকারের। যে কারনে তারা ওই স্বল্প লভ্যাংশ তুলে বিওতে জমা দেওয়াটাকে পরিশ্রমের তুলনায় ফলপ্রসু মনে করে না। এ কারনে নগদ লভ্যাংশ বিনিয়োগে আসে না বললেই চলে।

এই পরিস্থিতিতে নগদ লভ্যাংশকে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগে আনার জন্য ব্যাংক হিসাবের পরিবর্তে বিও হিসাবে দিতে হবে। এতে করে হাজার হাজার কোটি টাকার তারল্য বাড়বে। যা বর্তমান সময়ে করতে পারলে শেয়ারবাজারের জন্য খুবই সহায়ক হবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বিজনেস আওয়ারকে বলেন, নগদ লভ্যাংশ ব্যাংকের পরিবর্তে বিও হিসাবে পাঠানোর বিষয়টি কমিশন গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করবে। এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।  

২০২১-২২ অর্থবছরের ব্যবসায় সাড়ে ৮ হাজার কোটি টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষনার পেছনে কারন হিসেবে রয়েছে নতুন কমিশনের সক্রিয় ভূমিকা ও বাজেটে কমপক্ষে বোনাস শেয়ারের সমপরিমাণ নগদ লভ্যাংশ প্রদান বাধ্যবাধকতা অন্যতম কারন। অন্যথায় পুরো বোনাস শেয়ারের উপরে অতিরিক্ত ১০ শতাংশ করারোপের শাস্তির যেমন বিধান রয়েছে, একইভাবে অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের নেতৃত্বাধীন কমিশনের জেরার মুখে পড়তে হয়।

বর্তমান কমিশনের অধীনে ব্যবসা সম্প্রসারণ ছাড়া বোনাস শেয়ার দেওয়া প্রায় অসম্ভব। এই বোনাস শেয়ার দিতে গেলে কমিশনের অনুমোদনের প্রয়োজন পড়ে। এছাড়া লভ্যাংশ না দেওয়া বা নামমাত্র দেওয়া কোম্পানিগুলোকে ব্যাখ্যার জন্য কমিশনে তলব করা হয়। যে কারনে সঙ্গত কারনেই কমে এসেছে বোনাস শেয়ার।

দেখা গেছে, গত ১ জুলাই থেকে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে জুন ক্লোজিং, কয়েকটি অন্তর্বর্তীকালীন ও দু-একটি ২১ সালের ডিসেম্বর ক্লোজিং বীমা কোম্পানি লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ পর্যন্ত ২১৫ কোম্পানির পর্ষদ ৮ হাজার ৫৬৪ কোটি ৭৪ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। তবে জুন ক্লোজিং কোম্পানিগুলোর জন্য নির্দিষ্ট সময় গত ৩১ অক্টোবর শেষ হয়ে গেলেও কয়েকটি কোম্পানি এখনো লভ্যাংশ সংক্রান্ত সভা সম্পন্ন করেনি।

কোম্পানিগুলোর এই বড় নগদ লভ্যাংশ শেয়ারবাজারে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে সহায়ক হবে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। এই নগদ লভ্যাংশে লেনদেনে কিছুটা ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

এর আগে চলতি বছরে ডিসেম্বর ক্লোজিং কোম্পানিগুলোর লভ্যাংশ সভা করা (জানুয়ারি-মে ২০২২) ৯০ কোম্পনির মধ্যে ৮২ কোম্পানির পর্ষদ অন্তর্বর্তীসহ ৯ হাজার ৩০১ কোটি ৭২ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করে।

অপরদিকে আগের বছরে জুন ক্লোজিং কোম্পানিগুলোর মধ্যে (১ জুলাই-২৬ নভেম্বর ২০২১) পর্যন্ত সময়ে ২১৩ কোম্পানির পর্ষদ ৮ হাজার ৫৯৫ কোটি ৮ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করে।

এ বছর শেয়ারহোল্ডারদেরকে জুন ক্লোজিং কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি নগদ লভ্যাংশ দেবে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি। এ কোম্পানিটি ২০২১-২২ অর্থবছরের ব্যবসায় শেয়ারহোল্ডারদেরকে ১৭০ শতাংশ হারে অর্থাৎ প্রতিটি শেয়ারে ১৭ টাকা করে মোট ৯৮৫ কোটি ৪৮ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ দেবে।

এরপরের অবস্থানে রয়েছে স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস। এ কোম্পানিটি ২০২১-২২ অর্থবছরের ব্যবসায় শেয়ারহোল্ডারদেরকে ১০০ শতাংশ হারে অর্থাৎ প্রতিটি শেয়ারে ১০ টাকা করে মোট ৮৮৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ দেবে।

তবে জুন ক্লোজিং ও অন্তর্বর্তীকালীন বিবেচনায় সর্বোচ্চ নগদ লভ্যাংশ দেবে গ্রামীনফোন। এ কোম্পানিটি অন্তর্বর্তীকালীন হিসেবে ১২৫ শতাংশ হারে অর্থাৎ প্রতিটি শেয়ারে ১২.৫০ টাকা করে মোট ১ হাজার ৬৮৭ কোটি ৮৮ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ দেবে। বহূজাতিক এ কোম্পানির পর্ষদ ৬ মাসের (জানুয়ারি-জুন ২২) ব্যবসায় এই লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

এ বছর সবচেয়ে কম নগদ লভ্যাংশ দেবে লিবরা ইনফিউশনস। এ কোম্পানি থেকে শুধুমাত্র সাধারন শেয়ারহোল্ডারদেরকে ৫% হারে ৫ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ দেবে। এরপরের অবস্থানে থাকা এসএমই মার্কেটের ইউসুফ ফ্লাওয়ার থেকে ১০% হারে ৬ লাখ টাকা এবং হিমাদ্রি থেকে ১০% হারে ৮ লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ দেবে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক শাকিল রিজভী বিজনেস আওয়ারকে বলেন, বর্তমান কমিশনের শক্ত অবস্থানের কারনে এই বিশাল নগদ লভ্যাংশের খবর শুনতে পেলাম। যে নগদ লভ্যাংশ বাজারের জন্য খুবই ইতিবাচক খবর। এর ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে পারলে, আগামিতে বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থা আরও বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া কোম্পানিগুলোর নগদ লভ্যাংশে বাজারে গতি তরান্বিত করবে বলে মনে করেন তিনি।

নিম্নে গত ১ জুলাই থেকে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করা কোম্পানিগুলোর তথ্য তুলে ধরা হল-

* শুধুমাত্র সাধারন শেয়ারহোল্ডারদের জন্য

** অন্তর্বর্তীকালীন লভ্যাংশ

*** চূড়ান্ত লভ্যাংশ

**** সাধারন শেয়ারহোল্ডারদের থেকে উদ্যোক্তা/পরিচালকরা কম নেবে

কোম্পানির নামলভ্যাংশের হারনগদ লভ্যাংশের পরিমাণ (কোটি টাকায়)
ইউনাইটেড পাওয়ার১৭০%৯৮৫.৪৮
স্কয়ার ফার্মা১০০%৮৮৬.৪৫
বেক্সিমকো৩০%২৬২.৯০
সামিট পাওয়ার২০%২১৩.৫৮
মেঘনা পেট্রোলিয়াম১৫০%১৬২.৩২
বেক্সিমকো ফার্মা৩৫%১৫৬.১৪
রেনাটা১৪০%১৫০.০৭
যমুনা অয়েল১২০%১৩২.৫১
পদ্মা অয়েল১২৫%১২২.৭৯
বিএসআরএম স্টিল৩০%১১২.৭৯
বিএসআরএম লিমিটেড৩৫%১০৪.৫০
তিতাস গ্যাস১০%৯৮.৯২
অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ৪৫%৮৯.৯৭
সাবমেরিন কেবল৪৬%৭৫.৮৬
স্কয়ার টেক্সটাইল৩৫%৬৯.০৪
একমি ল্যাব৩০%৬৩.৪৮
মতিন স্পিনিং৫০%৪৮.৭৫
ফার্স্ট বাংলাদেশ ফিক্সড ফান্ড৬%৪৬.৫৭
ইউনিক হোটেল১৫%৪৪.১৬
আইসিবি৫%৪০.২৯
ডেসকো১০%৩৯.৭৬
সাইফ পাওয়ারটেক১০%৩৭.৯৩
বিকন ফার্মা১৬%৩৬.৯৬
এসিআই৫০%৩৬.২৯
সামিট অ্যালায়েন্স১৫%৩৫.৫৩
বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন২০%৩০.৫১
শাহজিবাজার পাওয়ার১৬%২৮.৭১
গ্রামীণ ওয়ান : স্কীম ২১৫%২৭.৩৬
ইবিএল এনআরবি ফান্ড১১%২৪.৬৭
পপুলার লাইফ৪০%২৪.১৭
জিপিএইচ ইস্পাত৫.৫%২৪.০২
ম্যাকসন্স স্পিনিং১০%২৩.৮২
বারাকা পাওয়ার১০%২৩.৫৫
ওরিয়ন ফার্মা১০%২৩.৪০
এম.এল ডাইং১০%২৩.২৪
ফারইস্ট নিটিং১০%২১.৮৭
ট্রাস্ট ব্যাংক ফার্স্ট ফান্ড৭%২১.২৫
ফার্স্ট জনতা ব্যাংক ফান্ড৭%২০.২৯
পপুলার লাইফ ফার্স্ট ফান্ড৭%২০.৯৪
পিএইচপি ফার্স্ট ফান্ড৭%১৯.৭৩
মালেক স্পিনিং১০%১৯.৩৬
এনার্জিপ্যাক পাওয়ার১০%১৯.০১
ইবনে সিনা৬০%১৮.৭৫
ইস্টার্ন হাউজিং২০%১৮.৬৭
এলআর গ্লোবাল এমএফ ১৬%১৮.৬৬
বসুন্ধরা পেপার১০%১৭.৩৮
বারাকা পতেঙ্গা১০%১৭.৩০
এবি ব্যাংক ফার্স্ট ফান্ড৭%১৬.৭৪
সায়হাম কটন১১%১৬.৩৭
প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল১০%১৬.২৮
ফরচুন সুজ১০%১৬.২৫
বিবিএস কেবলস৮%১৬.১৩
জেএমআই হসপিটাল১২.৫০%১৫.৬৬
মীর আক্তার১২.৫০%১৫.১০
ক্রাউন সিমেন্ট১০%১৪.৮৫
লুব-রেফ বাংলাদেশ১০%১৪.৫২
শাশা ডেনিমস১০%১৪.১০
হা-ওয়েল টেক্সটাইল২৫%১৪
আরগন ডেনিমস১০%১৩.৮৯
সোনালি পেপার৪০%১৩.১৮
সন্ধানি লাইফ১২%১৩.১৬
আইএফআইসি ফার্স্ট ফান্ড৭%১২.৭৫
ইফাদ অটোজ৫%১২.৬৪
নাভানা ফার্মা১১%১১.৮২
এসিআই ফরমূলেশনস২৫%১১.৮১
কেডিএস এক্সেসরিজ১৬%১১.৩৯
রানার অটোমোবাইলস১০%১১.৩৫
এসইএমএল গ্রোথ ফান্ড১৫%১০.৯৪
সায়হাম টেক্স১২%১০.৮৭
গ্রীন ডেল্টা ফান্ড৭%১০.৫০
লাভেলো১২%১০.২০
এক্সিম ব্যাংক ফার্স্ট ফান্ড৭%১০.০৩
ইবিএল ফার্স্ট ফান্ড৬.৫০%৯.৪১
তমিজ উদ্দিন টেক্সটাইল৩০%৯.০২
আইসিবি এএমসিএল অগ্রনি৯%৮.৮৩
কুইন সাউথ টেক্সটাইল৬%৮.৬৪
ডিবিএইচ ফার্স্ট ফান্ড৭%৮.৪০
আইটি কনসালটেন্টস৬%৭.৭২
ন্যাশনাল পলিমার১০.৫%৭.৬৬
নাহি অ্যালুমিনিয়াম১০%৬.৮৪
একমি পেস্টিসাইডস৫%৬.৭৫
সালভো কেমিক্যাল১০%৬.৫০
এডিএন টেলিকম১০%৬.৪৭
সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ৮%৬.৩৭
মোজাফ্ফর হোসাইন৬%৬.০৬
রিল্যায়েন্স ১১০%৬.০৫
সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স১৫%৬.০১
এসইএমএল শরীয়াহ ফান্ড৬%
মেঘনা লাইফ১৫%৫.৭৮
বিডিকম১০%৫.৭১
বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমস৩.৫%৫.৭০
রূপালি লাইফ১৮%৫.৪০
সিএপিএম আইবিবিএল৮%৫.৩৫
ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি৫%৫.২২
কোহিনুর কেমিক্যাল২০%৫.১১
আইসিবি এএমসিএল ৩য়৫%
আইসিবি এএমসিএল সোনালি৫%
প্রাইম ব্যাংক ফার্স্ট আইসিবি৫%
এস.আলম কোল্ড রোল্ড৫%৪.৯২
ইনডেক্স এগ্রো১০%৪.৭৩
কৃষিবিদ সীড১৫%৪.৫০
শাইনপুকুর সিরামিকস৩%৪.৪১
ড্রাগণ সোয়েটার২%৪.২২
সিএপিএম বিডিবিএল ওয়ান৮%৪.০১
আইএফআইএল ইসলামিক ফান্ড৪%
জিএসপি ফাইন্যান্স২.৫%৩.৯৩
কনফিডেন্স সিমেন্ট৫%৩.৯১
আরডি ফুড৫%৩.৮০
আইসিবি এমপ্লয়ীজ৫%৩.৭৫
আমরা টেকনোলজিস৬%৩.৬৬
ইভিন্স টেক্সটাইল২%৩.৬৬
এপেক্স ফুটওয়্যার৩৫%৩.৫৪
আনোয়ার গ্যালভানাইজিং২০%৩.৩৫
অগ্নি সিস্টেমস৪.৫০%৩.২৭
এশিয়ান টাইগার সন্ধানি ফান্ড৫%৩.০৯
জিবিবি পাওয়ার৩%৩.০৫
আইসিবি এএমসিএল ২য় ফান্ড৬%৩.০০
ফনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট ফান্ড৫%৩.০০
আরামিট৫০%৩.০০
পেনিনসুলা২.৫০%২.৯৭
আমরা নেটওয়ার্ক৫%২.৯৫
এএমসিএল প্রাণ৩২%২.৫৬
এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি৫%২.৫০
ড্যাফোডিল কম্পিউটারস৫%২.৫০
স্টার অ্যাডহেসিভ১২.৫০%২.৫০
রংপুর ফাউন্ড্রি লি:২৩%২.৩০
তসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজ৩%২.০৪
ওরিয়ন ইনফিউশনস১০%২.০৪
সিনোবাংলা১০%
বিডি ল্যাম্পস২০%১.৮৭
মেট্রো স্পিনিং৩%১.৮৫
এপেক্স ট্যানারি১০%১.৫২
মেঘনা সিমেন্ট৫%১.৪৩
নিয়ালকো৫%১.৪৩
এইচআর টেক্সটাইল৫%১.৩৩
মেঘনা ইন্স্যুরেন্স৩%১.২০
ইন্দোবাংলা ফার্মা১%১.১৬
এপেক্স ফুডস২০%১.১৪
রহিম টেক্সটাইল১০%০.৯৫
মনোস্পুল পেপার১০%০.৯৪
শমরিতা হসপিটাল৫%০.৯৪
পেপার প্রসেসিং৮%০.৮৪
প্রাইম টেক্সটাইল২%০.৭৬
আল-হাজ্ব টেক্সটাইল৩%০.৬৭
সাফকো স্পিনিং২%০.৬৬
ইস্টার্ন কেবলস২%০.৫৩
ন্যাশনাল টি৭.৫%০.৫০
ইস্টার্ন লুব্রিকেন্ট৪০%০.৪৮
ইনফরমেশন সার্ভিসেস৩%০.৩৩
সোনারগাঁও টেক্সটাইল১%০.২৬
এমবি ফার্মা১০%০.২৪
বঙ্গজ৩%০.২৩
ঢাকা ডাইং০.২৫%০.২২
ফাইন ফুডস১.৫%০.২১
ফার্মা এইউ৫০%০.১৬
হিমাদ্রি১০%০.০৮
ইউসুফ ফ্লাওয়ার১০%০.০৬
*পাওয়ার গ্রীড১০%১৭.৮২
*ডরিন পাওয়ার১৮%৯.৭২
*সী পার্ল১৫%৯.৬৩
*জেনেক্স ইনফোসিস১১%৮.৫৩
*এসোসিয়েট অক্সিজেন১০%৭.৬১
*শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ১০%৭.৪৭
*এস্কয়ার নিট১০%৭.১৫
*ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং১০%৬.৮১
*আমান কটন১০%৫.০৮
*আমান ফিড১০%৪.৮১
*ইজেনারেশন১০%৪.৬৭
*বিডি পেইন্টস১০%৪.২৪
*মাস্টার ফিড১০%৪.১০
*ওরিজা অ্যাগ্রো১১%৩.৭৬
*আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং২%৩.৬২
*আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ১২%৩.৫৪
*আফতাব অটো৫%৩.৫২
*মামুন অ্যাগ্রো১০%৩.৫০
*সিলকো ফার্মা৫%৩.১৮
*গোল্ডেন হার্ভেস্ট২%৩.০০
*আছিয়া সী ফুডস১০%২.৫৯
*সিলভা ফার্মা৩% (১.৫% আইসিবি)২.৪২
*মোস্তফা মেটাল৭%২.৩৫
*এসকে ট্রিমস৪%২.৩৩
*হামিদ ফেব্রিকস৫%২.২১
*বেঙ্গল উইন্ডসোর৫%২.১৪
*নাভানা সিএনজি৫%২.০৭
*দেশবন্ধু পলিমার৫%২.০৪
*মুন্নু সিরামিকস১০%১.৯৫
*ফু-ওয়াং সিরামিকস২%১.৯১
*কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ৪%১.৭৬
*ডমিনেজ স্টিল২%১.৪৩
*এডভেন্ট ফার্মা২%১.৩০
*প্যাসিফিক ডেনিমস১%১.২৮
*বিডি থাই ফুড৩%১.২৪
*মুন্নু ফেব্রিক্স১%০.৬৮
*ন্যাশনাল ফিড মিল১%০.৬৫
*রহিমা ফুড৫%০.৫৫
*একটিভ ফাইন কেমিক্যাল০.২৫%০.৫৩
*গ্লোবাল হেভী কেমিক্যাল২%০.৪৫
*এএফসি অ্যাগ্রো০.৫০%০.৪০
*বীচ হ্যাচারি১.৫০%০.৪০
*জেমিনি সী১০%০.৩১
*মুন্নু অ্যাগ্রো১৫%০.২৬
*স্টাইলক্রাফট২%০.১৭
*জিকিউ বলপেন২.৫%০.১৩
*বিডি অটোকারস৪%০.১২
*হাক্কানি পাল্প১%০.১০
*লিবরা ইনফিউশন৫%০.০৫
**গ্রামীণফোন১২৫%১৬৮৭.৮৮
**বিএটিবিসি১০০%৫৪০
**লাফার্জহোলসিম৩৩%৩৮৩.২৫
**ম্যারিকো বাংলাদেশ৩০০%৯৪.৫০
**বাটা সু২৬০%৩৫.৫৭
***সোনালি লাইফ১৩% (চূড়ান্ত)৬.১৮
****ওয়ালটন হাই-টেক২৫০% (উ/প ১৫০%)৪৫৭.৩২
****খুলনা পাওয়ার১০% (উ/প ৮%)৩৩.০৮
****ওয়াটা কেমিক্যাল২০% (উ/প ১০%)
মোট ৮৫৬৪.৭৪ কোটি টাকা

বিজনেস আওয়ার/০৭ ডিসেম্বর, ২০২২/আরএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন

এ বিভাগের আরো সংবাদ