1. [email protected] : Anissuzzaman : Anissuzzaman
  2. [email protected] : anjuman : anjuman
  3. [email protected] : Admin : Admin
  4. [email protected] : mujahid : mujahid
  5. [email protected] : Nayan Babu : Nayan Babu
  6. [email protected] : Rajowan : Rajowan
বাস মালিকদের শাস্তি না হওয়ার কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে: কাজী ফিরোজ
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৫ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
বাংলা বাংলা English English

বাস মালিকদের শাস্তি না হওয়ার কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে: কাজী ফিরোজ

  • পোস্ট হয়েছে : মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩
kazi firoz

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : দুর্ঘটনার জন্য দায়ি বাসের মালিকদের শাস্তি না হওয়ার কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিরোধীদল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে আলোচনার সুযোগ নিয়ে তিনি (কাজী ফিরোজ) সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা মেয়ের মারা যাওয়ার বিষয়টি তুলে ধরার পাশাপাশি সড়ক দুঘটনা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় অসংখ্য মানুষ মারা যাচ্ছে। একটি মানুষ মারা যাওয়া মানে একটি পরিবার ধ্বংস হয়ে যায়। কিন্তু একজন বাসের ড্রাইভারের লাইসেন্স আছে কিনা, ফিটনেস আছে কিনা, এসব দেখার কেউ নেই। যদি দেখা হতো তাহলে হয়তো দুর্ঘটনা কিছুটা হলেও এড়ানো যেত।

তিনি (কাজী ফিরোজ) বলেন, দুর্ঘটনার জন্য দায়ি বাস মালিকদের শাস্তি হয় না। এসব বাসের মালিক কারা? মালিকরা হচ্ছে, আমাদের কিছু পুলিশ অফিসার, রাজনৈতিক ব্যক্তি ও আমাদের সঙ্গে বসে আছে জাপার চিফ হুইপ রাঙা সাহেব, উনি ভালভাবে বলতে পারবেন এসব বাসের মালিক কারা। এ কারণে দুর্ঘটনা ঘটলে এসব বাসের কিছু হয় না। আর এসব বাসের ড্রাইভারদের কোন লাইসেন্স নেই, খালাসীদের কোন ট্রেনিং নেই। সিগনাল বোঝে না, বাস ডানে যাবে না বামে যাবে, তা কেউ বুঝতে পারে না।

কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, দেশে গত বছর সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ হাজার মানুষ মারা গেছে। আর ১৪ হাজার মানুষ আহত হয়েছে। এদের পরিবারের দায়িত্ব কি রাষ্ট্র নেবে?

তিনি বলেন, এখন থেকে ডিসিদের দায়িত্ব দিতে হবে, তাদের বলতে হবে, আপনার জেলায় কতগুলো বাস আছে, ট্রাক আছে, অন্য গাড়ি আছে। তাদের ফিটনেস আছে কিনা দেখতে হবে? ড্রাইভারদের লাইসেন্স আছে কিনা তা দেখার দায়িত্ব দিতে হবে। স্মার্ট বাংলাদেশ কিভাবে বাস্তবায়ন সম্ভব হবে এমন প্রশ্ন তোলেন কাজী ফিরোজ রশীদ।

তিনি বলেন, এই যে অবস্থা, আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের কথা বলছি, আমাদের পাশ্ববর্তী দেশে কি এসব হচ্ছে, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়ায় কি আছে? দেশে মহাসড়কে ভটভটি, পটপটি, মটর সাইকেল, ট্যাম্পু কত কিছু যে এক সঙ্গে চলে তা ভাবা যায় না।

বিজনেস আওয়ার/২৪ জানুয়ারি, ২০২৩/এস এম

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
এ বিভাগের আরো সংবাদ

ঋণের প্রভিশনিং কমলো ১ শতাংশ

  • ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • মূলধন বাড়লেও লেনদেনে ভাটা

  • ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • লুজারের শীর্ষে প্রগতি লাইফ

  • ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩