ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কলকাতায় সাকিব–লিটন

  • পোস্ট হয়েছে : ০৪:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০২৩
  • 12

স্পোর্টস ডেস্ক : আসন্ন আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলার কথা রয়েছে টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উইকেটকিপার লিটন দাসের। যদিও বাংলাদেশের সিরিজ নিয়ে ব্যস্ততা থাকায় এখনো ছাড়পত্র মেলেনি, তবে টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই তাদের খেলার ব্যাপারে আশাবাদী ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ও তাদের সমর্থকরা। কদিন আগে কলকাতা কোচ জানিয়েছিলেন নিয়মিত যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। দেশটির মিডিয়া যেন আরও এক কাঠি সরেষ। হিন্দুস্থান টাইমসের মতে, কলকাতার পুরনো রোগের ‘ডাক্তার’ হবেন লিটন। তাছাড়া জি টুয়েন্টি ফোরও কম যায় না। কেকেআরের পুরনো খেলোয়াড় সাকিবকে তারা আখ্যা দিয়েছে দলের ‘অক্সিজেন’ হিসেবে।

কলকাতার নিয়মিত অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার ইনজুরিতে পড়ার পর নতুন অধিনায়ক হিসেবে বার বার ওঠে আসছিল সাকিব-লিটনের নাম। যদিও শুরুর কয়েকটি ম্যাচে তাদের খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকায় শেষ পর্যন্ত সেটি হয়নি আর।

হঠাৎ বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের এত প্রশংসার কারণ তাদের সাম্প্রতিক ফর্ম। সাকিব ও লিটন দুজনেই আছেন ফর্মের তুঙ্গে। সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে ঘরের মাটিতে টানা পাঁচ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে এই ফরম্যাটের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করেছে টিম টাইগার্স। দলীয় ফর্ম ছাড়াও ব্যাট ও বল হাতে দারুণ ফর্মে টাইগার এ অলরাউন্ডার। সর্বশেষ আইরিশদের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাঁচ উইকেট শিকার করে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক এখন সাকিব। উইকেট শিকারের দিক থেকে তিনি পেছনে ফেলেছেন কিউই পেসার টিম সাউদিকে।

অন্যদিকে, ব্যাট হাতে স্বপ্নের মতো সময় কাটছে লিটন দাসের। প্রতি ম্যাচেই রান পাচ্ছেন। তুলোধুনো করছেন প্রতিপক্ষ বোলারদের। সাকিবের সেরা উইকেটটেকার হওয়ার দিনে আশরাফুলকে ছাড়িয়ে বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্রুততম ফিফটির (১৮ বল) রেকর্ড গড়েছেন উইকেটকিপার এই ব্যাটার। এছাড়া টি-টোয়েন্টির পাওয়ার-প্লেতে সেরা স্ট্রাইকরেটও এখন লিটনের দখলে। ৬৪টি ইনিংসে এই বাংলাদেশি তারকার স্ট্রাইক রেট ১৪২.৫৭। তার পরের অবস্থানে আছেন প্রোটিয়া ব্যাটার কুইন্টন ডি’কক ও আফগানিস্তানের মুহম্মদ শাহজাদ।

সাকিবকে কেকেআরের অক্সিজেন আখ্যা দিয়ে জি টুয়েন্টি ফোরের প্রতিবেদনে বলা হয়, দু’বারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন কেকেআর বাড়তি অক্সিজেন পেয়ে গেল মাঠে নামার আগে। আগামী ১ এপ্রিল তারা পাঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে মোহালিতে আইপিএল সিক্সটিনের অভিযান শুরু করছে। আর তার আগেই দলের দেড় কোটি মূল্যের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান বিশ্বরেকর্ড করে ফেললেন। সাউদিকে পেছনে ফেলে তিনি হয়ে গেছেন আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

টাইগার ওপেনার লিটন দাসকে কেকেআর স্বল্পমূল্যে পেয়েছে দাবি করে হিন্দুস্থান টাইমস বলছে, ২০২২ সালের আইপিএলের পাওয়ার প্লে-তে কেকেআরের যে ‘রোগ’ দেখা গিয়েছিল, তা সারানোর দাওয়াই আছে ‘ডাক্তার’ লিটনের কাছে। পরিসংখ্যান বলছে, পুরুষদের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে পাওয়ার প্লে-তে সবচেয়ে দ্রুত রান করেছেন লিটন। যার ফলে মনে করা হচ্ছে মাত্র ৫০ লাখ টাকায় কী কেকেআর সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়কে পেয়ে গেছে?

তবে যাদের নিয়ে ভারতীয় মিডিয়ার এত উচ্ছ্বাস সেই সাকিব-লিটন কবে যোগ দিচ্ছেন আইপিএলে, সেই নিশ্চয়তা এখনও মেলেনি। কেননা চলমান আয়ারল্যান্ড সিরিজের পরই তাদেরকে ছুটি দিতে চেয়েছিল বিসিবি। যদিও সম্প্রতি গুঞ্জন ছড়িয়েছে, ইতোমধ্যে বিসিবি নিজেদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। আইপিএলের শুরু থেকেই খেলতে পারবে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। সেই গুঞ্জন কতটা সত্যি এখন সেটিই দেখার বিষয়!

বিজনেস আওয়ার/৩০ মার্চ, ২০২৩/এস এম

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

কলকাতায় সাকিব–লিটন

পোস্ট হয়েছে : ০৪:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০২৩

স্পোর্টস ডেস্ক : আসন্ন আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলার কথা রয়েছে টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উইকেটকিপার লিটন দাসের। যদিও বাংলাদেশের সিরিজ নিয়ে ব্যস্ততা থাকায় এখনো ছাড়পত্র মেলেনি, তবে টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই তাদের খেলার ব্যাপারে আশাবাদী ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ও তাদের সমর্থকরা। কদিন আগে কলকাতা কোচ জানিয়েছিলেন নিয়মিত যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। দেশটির মিডিয়া যেন আরও এক কাঠি সরেষ। হিন্দুস্থান টাইমসের মতে, কলকাতার পুরনো রোগের ‘ডাক্তার’ হবেন লিটন। তাছাড়া জি টুয়েন্টি ফোরও কম যায় না। কেকেআরের পুরনো খেলোয়াড় সাকিবকে তারা আখ্যা দিয়েছে দলের ‘অক্সিজেন’ হিসেবে।

কলকাতার নিয়মিত অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার ইনজুরিতে পড়ার পর নতুন অধিনায়ক হিসেবে বার বার ওঠে আসছিল সাকিব-লিটনের নাম। যদিও শুরুর কয়েকটি ম্যাচে তাদের খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকায় শেষ পর্যন্ত সেটি হয়নি আর।

হঠাৎ বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের এত প্রশংসার কারণ তাদের সাম্প্রতিক ফর্ম। সাকিব ও লিটন দুজনেই আছেন ফর্মের তুঙ্গে। সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে ঘরের মাটিতে টানা পাঁচ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে এই ফরম্যাটের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে হোয়াইটওয়াশ করেছে টিম টাইগার্স। দলীয় ফর্ম ছাড়াও ব্যাট ও বল হাতে দারুণ ফর্মে টাইগার এ অলরাউন্ডার। সর্বশেষ আইরিশদের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে পাঁচ উইকেট শিকার করে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক এখন সাকিব। উইকেট শিকারের দিক থেকে তিনি পেছনে ফেলেছেন কিউই পেসার টিম সাউদিকে।

অন্যদিকে, ব্যাট হাতে স্বপ্নের মতো সময় কাটছে লিটন দাসের। প্রতি ম্যাচেই রান পাচ্ছেন। তুলোধুনো করছেন প্রতিপক্ষ বোলারদের। সাকিবের সেরা উইকেটটেকার হওয়ার দিনে আশরাফুলকে ছাড়িয়ে বাংলাদেশের ইতিহাসে দ্রুততম ফিফটির (১৮ বল) রেকর্ড গড়েছেন উইকেটকিপার এই ব্যাটার। এছাড়া টি-টোয়েন্টির পাওয়ার-প্লেতে সেরা স্ট্রাইকরেটও এখন লিটনের দখলে। ৬৪টি ইনিংসে এই বাংলাদেশি তারকার স্ট্রাইক রেট ১৪২.৫৭। তার পরের অবস্থানে আছেন প্রোটিয়া ব্যাটার কুইন্টন ডি’কক ও আফগানিস্তানের মুহম্মদ শাহজাদ।

সাকিবকে কেকেআরের অক্সিজেন আখ্যা দিয়ে জি টুয়েন্টি ফোরের প্রতিবেদনে বলা হয়, দু’বারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন কেকেআর বাড়তি অক্সিজেন পেয়ে গেল মাঠে নামার আগে। আগামী ১ এপ্রিল তারা পাঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে মোহালিতে আইপিএল সিক্সটিনের অভিযান শুরু করছে। আর তার আগেই দলের দেড় কোটি মূল্যের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান বিশ্বরেকর্ড করে ফেললেন। সাউদিকে পেছনে ফেলে তিনি হয়ে গেছেন আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি।

টাইগার ওপেনার লিটন দাসকে কেকেআর স্বল্পমূল্যে পেয়েছে দাবি করে হিন্দুস্থান টাইমস বলছে, ২০২২ সালের আইপিএলের পাওয়ার প্লে-তে কেকেআরের যে ‘রোগ’ দেখা গিয়েছিল, তা সারানোর দাওয়াই আছে ‘ডাক্তার’ লিটনের কাছে। পরিসংখ্যান বলছে, পুরুষদের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে পাওয়ার প্লে-তে সবচেয়ে দ্রুত রান করেছেন লিটন। যার ফলে মনে করা হচ্ছে মাত্র ৫০ লাখ টাকায় কী কেকেআর সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়কে পেয়ে গেছে?

তবে যাদের নিয়ে ভারতীয় মিডিয়ার এত উচ্ছ্বাস সেই সাকিব-লিটন কবে যোগ দিচ্ছেন আইপিএলে, সেই নিশ্চয়তা এখনও মেলেনি। কেননা চলমান আয়ারল্যান্ড সিরিজের পরই তাদেরকে ছুটি দিতে চেয়েছিল বিসিবি। যদিও সম্প্রতি গুঞ্জন ছড়িয়েছে, ইতোমধ্যে বিসিবি নিজেদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। আইপিএলের শুরু থেকেই খেলতে পারবে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। সেই গুঞ্জন কতটা সত্যি এখন সেটিই দেখার বিষয়!

বিজনেস আওয়ার/৩০ মার্চ, ২০২৩/এস এম

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: