ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ন্যাশনাল ব্যাংকের পতনে পুরো ব্যাংকিং খাতের মুনাফায় ধস

  • পোস্ট হয়েছে : ০৯:২২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩
  • 14

আগের বছরের তুলনায় ২০২২ সালের ব্যবসায়ও শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত অধিকাংশ ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছ। তারপরেও পুরো ব্যাংকিং খাতের মোট মুনাফায় ধস নেমেছে। যার পেছনে একমাত্র কারন হিসেবে রয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের রেকর্ড লোকসান। ব্যাংকটি যে পরিমাণ লোকসান করেছে, তার সমান ১০-১৫টি ব্যাংকও মুনাফা করতে পারেনি।

ব্যাংকগুলোর ২০২২ সালের সমন্বিত (সাবসিডিয়ারিসহ) আর্থিক হিসাব থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

তালিকাভুক্ত ৩৫ ব্যাংকের ২০২১ সালের ব্যবসায় ৮ হাজার ৫৩৯ কোটি ৫৭ লাখ টাকার নিট মুনাফা হয়েছিল। যা কমে ২০২২ সালে হয়েছে ৫ হাজার ৯৯৮ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। অর্থাৎ তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফা কমেছে ২ হাজার ৫৪০ কোটি ৮১ লাখ টাকার বা ৩০ শতাংশ।

মুনাফায় এই ধসের পেছনে রয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের রেকর্ড লোকসান। ব্যাকংটির আগের বছর ৩৮ কোটি ১৬ লাখ টাকার নিট মুনাফা হলেও ২০২২ সালের ব্যবসায় লোকসান হয়েছে ৩ হাজার ২৬১ কোটি ৬০ লাখ টাকার। যার পেছনে রয়েছে বেপোরোয়া ঋণ।

ব্যাংকগুলোর ২০২২ সালে ৫ হাজার ৯৯৮ কোটি ৭৬ লাখ টাকা মুনাফা হলেও এরমধ্য থেকে শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে নগদ লভ্যাংশ হিসেবে বিতরন করা হবে ২ হাজার ৭০০ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এ হিসেবে মুনাফার ৪৫.০২ শতাংশ বিতরন করা হবে। বাকি ৩ হাজার ২৯৮ কোটি ৩৮ লাখ টাকা বা ৫৪.৯৮ শতাংশ ব্যাংকেই থেকে যাবে। যার একটি অংশ বোনাস শেয়ারের জন্য পরিশোধিত মূলধনে ও বাকি অংশ সংরক্ষিত আয়ে (রিটেইন আর্নিংস) যোগ হবে।

দেখা গেছে, তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৬১৬ কোটি ৬৩ লাখ টাকা মুনাফা করে শীর্ষে উঠে এসেছে ইসলামী ব্যাংক। এরপরে ৬০১ কোটি ৬৩ লাখ টাকা নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। তৃতীয় সর্বোচ্চ ৫৬৬ কোটি ৩৪ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের।

নিম্নে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফার তথ্য তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নামনিট মুনাফা-২০২২ (কোটি টাকায়)নিট মুনাফা-২০২১ (কোটি টাকায়)
ইসলামী ব্যাংক৬১৬.৬৩৪৮০.৭৬
ব্র্যাক ব্যাংক৬০১.৬৩৫৪৬.৪৬
ডাচ-বাংলা ব্যাংক৫৬৬.৩৪৫৫৬.১১
পূবালি ব্যাংক৫৬৪.৫৩৪৩৫.১৮
ইস্টার্ন ব্যাংক৫১১.৮৭৪৮০.০২
সিটি ব্যাংক৪৭৭.৮৪৫৪৯.৪২
প্রাইম ব্যাংক৩৯৯.৭০৩২৪.৯৬
প্রিমিয়ার ব্যাংক৩৯২.৪০৩২৮.০৯
এক্সিম ব্যাংক৩৭২.০২২১৫.৬৬
শাহজালাল ব্যাংক৩৫৭.৬৬২৫৯.১৫
আইএফআইসি ব্যাংক৩৪৪.৬৮২৫৪.১২
ইউসিবি৩৩০.৪৭২৪৫.১৭
ব্যাংক এশিয়া৩০৪.৫৯২৭২.৮৩
ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক২৯৩.৯৩৩৩৪.৪২
ট্রাস্ট ব্যাংক২৯১.৯০২৬৭.৫৪
উত্তরা ব্যাংক২৭০.৩৭২২১.৯৮
এনসিসি ব্যাংক২৬৪.৩৯২৫০.৪৭
মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক২৩৬.৮৪২৯৭.৩২
মার্কেন্টাইল ব্যাংক২৩৫.৪২৩৫৭.৯৩
আল-আরাফাহ ব্যাংক২০৭.৬৬২০৮.৭৬
স্যোসাল ইসলামী ব্যাংক২০৬.৮৩১৭৫.০২
এনআরবিসি ব্যাংক১৯৩.৪৮২২৬.৩৫
সাউথইস্ট ব্যাংক১৭৫.৫৮১৭৮.৪৩
ঢাকা ব্যাংক১৬৭.১৩২১৩.৬৫
ইউনিয়ন ব্যাংক১৬২.৭০৮৭.২৪
যমুনা ব্যাংক১৫৮.৮৪২৫১.২৫
ওয়ান ব্যাংক১৫৫.৯৪৮৪.৪১
স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক১১২.৫৮৭৯.১৭
গ্লোবাল ব্যাংক৯৬.৩২১৩১.৯৪
এবি ব্যাংক৭১.৪৬৭১.৬৮
সাউথবাংলা ব্যাংক৫৯.৩৪৫৩.৯৯
মিডল্যান্ড ব্যাংক৫৬.২০৫১.৪০
রূপালি ব্যাংক২৮.৩৫৫০.০১
আইসিবি ইসলামীক ব্যাংক(২৫.২৬)(৩৯.৪৮)
ন্যাশনাল ব্যাংক(৩২৬১.৬০)৩৮.১৬
মোট৫৯৯৮.৭৬ কোটি টাকা৮৫৩৯.৫৭ কোটি টাকা

২০২২ সালে ন্যাশনাল ব্যাংকের পাশাপাশি আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লোকসান করেছে। ব্যাংকটির ২৫ কোটি ২৬ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। এরপরে সবচেয়ে কম মুনাফা হয়েছে রূপালি ব্যাংকের। ওই বছরে ব্যাংকটির ২৮ কোটি ৩৫ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে। আর দ্বিতীয় সর্বনিম্ন ৫৬ কোটি ২০ লাখ টাকা মিডল্যান্ড ব্যাংকের ও তৃতীয় সর্বনিম্ন ৫৯ কোটি ৩৪ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে সাউথবাংলা ব্যাংকের।

বিজনেস আওয়ার/২২ মে, ২০২৩/আরএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান:
ট্যাগ :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার মেইলে তথ্য জমা করুন

ন্যাশনাল ব্যাংকের পতনে পুরো ব্যাংকিং খাতের মুনাফায় ধস

পোস্ট হয়েছে : ০৯:২২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩

আগের বছরের তুলনায় ২০২২ সালের ব্যবসায়ও শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত অধিকাংশ ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছ। তারপরেও পুরো ব্যাংকিং খাতের মোট মুনাফায় ধস নেমেছে। যার পেছনে একমাত্র কারন হিসেবে রয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের রেকর্ড লোকসান। ব্যাংকটি যে পরিমাণ লোকসান করেছে, তার সমান ১০-১৫টি ব্যাংকও মুনাফা করতে পারেনি।

ব্যাংকগুলোর ২০২২ সালের সমন্বিত (সাবসিডিয়ারিসহ) আর্থিক হিসাব থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

তালিকাভুক্ত ৩৫ ব্যাংকের ২০২১ সালের ব্যবসায় ৮ হাজার ৫৩৯ কোটি ৫৭ লাখ টাকার নিট মুনাফা হয়েছিল। যা কমে ২০২২ সালে হয়েছে ৫ হাজার ৯৯৮ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। অর্থাৎ তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফা কমেছে ২ হাজার ৫৪০ কোটি ৮১ লাখ টাকার বা ৩০ শতাংশ।

মুনাফায় এই ধসের পেছনে রয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের রেকর্ড লোকসান। ব্যাকংটির আগের বছর ৩৮ কোটি ১৬ লাখ টাকার নিট মুনাফা হলেও ২০২২ সালের ব্যবসায় লোকসান হয়েছে ৩ হাজার ২৬১ কোটি ৬০ লাখ টাকার। যার পেছনে রয়েছে বেপোরোয়া ঋণ।

ব্যাংকগুলোর ২০২২ সালে ৫ হাজার ৯৯৮ কোটি ৭৬ লাখ টাকা মুনাফা হলেও এরমধ্য থেকে শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে নগদ লভ্যাংশ হিসেবে বিতরন করা হবে ২ হাজার ৭০০ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এ হিসেবে মুনাফার ৪৫.০২ শতাংশ বিতরন করা হবে। বাকি ৩ হাজার ২৯৮ কোটি ৩৮ লাখ টাকা বা ৫৪.৯৮ শতাংশ ব্যাংকেই থেকে যাবে। যার একটি অংশ বোনাস শেয়ারের জন্য পরিশোধিত মূলধনে ও বাকি অংশ সংরক্ষিত আয়ে (রিটেইন আর্নিংস) যোগ হবে।

দেখা গেছে, তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৬১৬ কোটি ৬৩ লাখ টাকা মুনাফা করে শীর্ষে উঠে এসেছে ইসলামী ব্যাংক। এরপরে ৬০১ কোটি ৬৩ লাখ টাকা নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। তৃতীয় সর্বোচ্চ ৫৬৬ কোটি ৩৪ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের।

নিম্নে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফার তথ্য তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নামনিট মুনাফা-২০২২ (কোটি টাকায়)নিট মুনাফা-২০২১ (কোটি টাকায়)
ইসলামী ব্যাংক৬১৬.৬৩৪৮০.৭৬
ব্র্যাক ব্যাংক৬০১.৬৩৫৪৬.৪৬
ডাচ-বাংলা ব্যাংক৫৬৬.৩৪৫৫৬.১১
পূবালি ব্যাংক৫৬৪.৫৩৪৩৫.১৮
ইস্টার্ন ব্যাংক৫১১.৮৭৪৮০.০২
সিটি ব্যাংক৪৭৭.৮৪৫৪৯.৪২
প্রাইম ব্যাংক৩৯৯.৭০৩২৪.৯৬
প্রিমিয়ার ব্যাংক৩৯২.৪০৩২৮.০৯
এক্সিম ব্যাংক৩৭২.০২২১৫.৬৬
শাহজালাল ব্যাংক৩৫৭.৬৬২৫৯.১৫
আইএফআইসি ব্যাংক৩৪৪.৬৮২৫৪.১২
ইউসিবি৩৩০.৪৭২৪৫.১৭
ব্যাংক এশিয়া৩০৪.৫৯২৭২.৮৩
ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক২৯৩.৯৩৩৩৪.৪২
ট্রাস্ট ব্যাংক২৯১.৯০২৬৭.৫৪
উত্তরা ব্যাংক২৭০.৩৭২২১.৯৮
এনসিসি ব্যাংক২৬৪.৩৯২৫০.৪৭
মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক২৩৬.৮৪২৯৭.৩২
মার্কেন্টাইল ব্যাংক২৩৫.৪২৩৫৭.৯৩
আল-আরাফাহ ব্যাংক২০৭.৬৬২০৮.৭৬
স্যোসাল ইসলামী ব্যাংক২০৬.৮৩১৭৫.০২
এনআরবিসি ব্যাংক১৯৩.৪৮২২৬.৩৫
সাউথইস্ট ব্যাংক১৭৫.৫৮১৭৮.৪৩
ঢাকা ব্যাংক১৬৭.১৩২১৩.৬৫
ইউনিয়ন ব্যাংক১৬২.৭০৮৭.২৪
যমুনা ব্যাংক১৫৮.৮৪২৫১.২৫
ওয়ান ব্যাংক১৫৫.৯৪৮৪.৪১
স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক১১২.৫৮৭৯.১৭
গ্লোবাল ব্যাংক৯৬.৩২১৩১.৯৪
এবি ব্যাংক৭১.৪৬৭১.৬৮
সাউথবাংলা ব্যাংক৫৯.৩৪৫৩.৯৯
মিডল্যান্ড ব্যাংক৫৬.২০৫১.৪০
রূপালি ব্যাংক২৮.৩৫৫০.০১
আইসিবি ইসলামীক ব্যাংক(২৫.২৬)(৩৯.৪৮)
ন্যাশনাল ব্যাংক(৩২৬১.৬০)৩৮.১৬
মোট৫৯৯৮.৭৬ কোটি টাকা৮৫৩৯.৫৭ কোটি টাকা

২০২২ সালে ন্যাশনাল ব্যাংকের পাশাপাশি আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লোকসান করেছে। ব্যাংকটির ২৫ কোটি ২৬ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। এরপরে সবচেয়ে কম মুনাফা হয়েছে রূপালি ব্যাংকের। ওই বছরে ব্যাংকটির ২৮ কোটি ৩৫ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে। আর দ্বিতীয় সর্বনিম্ন ৫৬ কোটি ২০ লাখ টাকা মিডল্যান্ড ব্যাংকের ও তৃতীয় সর্বনিম্ন ৫৯ কোটি ৩৪ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে সাউথবাংলা ব্যাংকের।

বিজনেস আওয়ার/২২ মে, ২০২৩/আরএ

ফেসবুকের মাধ্যমে আপনার মতামত জানান: